আবারও আইপিএলে সাকিব


৮ ও ১১ই এপ্রিল কলকতা নাইট রাইডার্সের হয়ে দুটি ম্যাচ খেলে দেশে ফিরে এসেছিলেনসাকিব আল হাসান । আজ আবারও তিনি আইপিএল খেলার জন্য ভারতের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন। আগামী ১৪ই মে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের বিপক্ষে সাকিব আল হাসান কলকাতার হয়ে মাঠে দেখা যাবে  । আইপিএলের এ আসরের প্রথম  ম্যাচেও সাকিব আল হাসান মাঠে নেমেছিলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ানদেরে বিপক্ষে। জয় দিয়ে শুরু করেছিল তার দল। ১৬৮ রান তুলতে মুম্বাই ইন্ডিয়ানরা ৩টি উইকেট হারায়। বল হাতে সাকিব আল হাসান নিয়েছিলেন ১টি উইকেট। তবে ব্যাট হাতে তার মাঠে নামার সুযোগ হয়নি। এরপর রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটি খেলে সাকিব দেশে ফিরেন। এরপর পাকিস্তান সিরিজে নিজেকে উজার করে দিয়েছেন। গতকাল ভারত যাওয়ার আগে নিজের রেস্তোরা সাকিব আল হাসান সাকিব ডাইনে’ উদ্বোধনের সময় ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জয় সম্ভব বলেই হুংকার দেন। তিনি বলেছেন, ‘আমরা আত্মবিশ্বাসী পাকিস্তানের বিপক্ষে যেমন খেলেছি আশা করি তেমন খেললে ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জয় সম্ভব।’ গত মাসে আইপিএলে যাওয়ার আগেও সাকিব আল হাসান পাকিস্তানের বিপক্ষে নিজেদের ফেরারিট দাবি করে সিরিজ জয়ের কথা বলেছিলেন। আগামী ৭ই জুন ঢাকায় আসবে ভারত দল। ফতুল্লায় খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে ১০ই জুন থেকে শুরু হবে সিরিজের একমাত্র টেস্ট। সেই লক্ষে ১লা জনু  থেকে দলের ক্যাম্প শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। ২৪শে মে শেষ হয়ে যাবে আইপিএলের ফাইনাল। যদি তার দল ফাইনাল খেলে তাহলে এরপরই দেশে ফিরবেন সাকিব আল হাসান
পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টেস্টে  তেমেন একটা ফর্মে ছিলেন না সাকিব আল হাসান । কিন্তু সাকিব আল হাসান যে টি-টোয়েন্টি মাস্টার তার প্রমান পাকিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জয় এনে দিয়ে। পাকিস্তানের বিপক্ষে এর  আগে ৮ বছর ৭টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জয় ছিল না বাংলাদেশের। মিরপুর শেরে বাংলা মাঠে পাকিস্তানের ছুড়ে দেয়া ১৪২ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৩৮ রানেই ৩টি উইকেট হারায় বাংলাদেশ দল। সেখান থেকে সাব্বির রহমান রুম্মানকে নিয়ে চতুর্থ উইকেটে ১০৫ রানের অপরাজিত জুটি গড়ে দলকে জয় এনেদেন।সাকিব আল হাসান ৫৭ ও সাব্বির ৫১ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন