দেশের বাজারে অপ্পো আর ৭ প্লাস


দেশের বাজারে অপ্পো আর ৭ প্লাস


অপ্পো সম্প্রতি বাজারে আনল তাদের সবচেয়ে বড় ডিসপ্লের ফোন, অপ্পো আর ৭ প্লাস। অপ্পো আর ৭ ফোনটিকে আরও বড় করে ও লোভনীয়
 কিছু ফিচার যুক্ত করে ছাড়া হয়েছে নতুন এই সংস্করণ। এতে অপ্পো আর ৭ প্লাস চমৎকার এক ডিভাইস হয়ে উঠেছে।

ডিসপ্লে
সবার কাছেই যে ডিভাইসটিকে যথোপযুক্ত মনে হবে, তা নয়। ডিভাইসটির ৬ ইঞ্চির বিশাল ডিসপ্লে অনেকের কাছে অস্বস্তিদায়ক হতে পারে।
১৯২০*১০৮০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ডিসপ্লে সর্বোচ্চ শার্পনেস হয়তো দেবে না, কিন্তু যা মিলবে তা প্রাইস ট্যাগের হিসেবে যথেষ্ট ভালো।
 এর স্ক্রিনে ভিউ আঙ্গেলও চমৎকার। কড়া সূর্যের আলোতেও স্ক্রিন দেখতে কোন সমস্যা হয় না।

ডিজাইন
প্রথমেই বলে দেওয়া যায় এই ডিভাইসের ডিজাইন আইফোন থেকে অনুপ্রাণিত হওয়া। তা সত্ত্বেও অপ্পো আর ৭ প্লাস বেশ সুন্দর একটা ফোন।
হাতে সব দিক থেকেই প্রিমিয়াম অনুভব এনে দেয় এর সলিড বডি।
ডিভাইসের পেছনে ঠিক ক্যামেরার নিচেই রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।
এই জায়গাটায় থাকার সুবিধা হল, হাত যেহেতু সবসময় ফোনের পেছনে থাকে, তাই ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরে হাত রাখাটা অনেক অভ্যাসের পর্যায়ে চলে আসবে।

ক্যামেরা
সামনে-পেছনে দু’জায়গাতেই রয়েছে দুটি অসাধারণ ক্যামেরা, যার একটি ১৩ মেগাপিক্সেলের ও অপরটি ৮ মেগাপিক্সেলের।
ক্যামেরা অ্যাপে রয়েছে আল্ট্রা এইচডি, ম্যাক্রো মোড ইত্যাদি অনেক ফিচার, যেগুলো মূলত প্রিমিয়াম ফোনেই দেখা যায়।

পারফরমেন্স
১.৫ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর ও ৩ জিবি র্যালম রয়েছে ভেতরে। সাধারণ কাজগুলোতে ফোনটি থাকবে খুবই রেস্পন্সিভ।
গেইমিংয়েও এই ফোনটি অত্যন্ত ভালো। সর্বোচ্চ হাই গ্রাফিক্সের গেইমেও ল্যাগ পাওয়া যাবে না।
ডিফল্ট ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্পেস রয়েছে, যা মেমোরি কার্ড দিয়ে ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ব্যাটারি
অপ্পো দীর্ঘ ব্যাটারির সুনাম এই ফোনেও বজায় রেখেছে। ৪১০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি টানা ব্যাবহারে ১৭ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাকআপ দিতে সক্ষম।
 শুধু তাই না, এতে ফাস্ট চার্জিং ফিচারও রয়েছে, যেখানে মাত্র আধাঘণ্টাতেই ব্যাটারি প্রায় পূর্ণ হয়ে যাবে।

পারফরমেন্স
১.৫ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর ও ৩ জিবি র্যালম রয়েছে ভেতরে। সাধারণ কাজগুলোতে ফোনটি থাকবে খুবই রেস্পন্সিভ।
গেইমিংয়েও এই ফোনটি অত্যন্ত ভালো। সর্বোচ্চ হাই গ্রাফিক্সের গেইমেও ল্যাগ পাওয়া যাবে না।
ডিফল্ট ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্পেস রয়েছে, যা মেমোরি কার্ড দিয়ে ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

ব্যাটারি
অপ্পো দীর্ঘ ব্যাটারির সুনাম এই ফোনেও বজায় রেখেছে। ৪১০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি টানা ব্যাবহারে ১৭ ঘণ্টা পর্যন্ত ব্যাকআপ দিতে সক্ষম।
 শুধু তাই না, এতে ফাস্ট চার্জিং ফিচারও রয়েছে, যেখানে মাত্র আধাঘণ্টাতেই ব্যাটারি প্রায় পূর্ণ হয়ে যাবে।

দাম
দেশের বাজারে ডিভাইসটি ৪২ হাজার ৮০০ টাকায় পাওয়া যাবে।

এক নজরে ভালো
– দেখতে সুন্দর
– ভালো ডিসপ্লে
– দীর্ঘ ব্যাটারি ও ফাস্ট চার্জিং

এক নজরে খারাপ
– বড় সাইজ অনেকের কাছে অসুবিধাজনক মনে হতে পারে