লো ব্যাটারির উন্নত কনফিগারেশনের ট্যাব সনি জেড ৪

জেড সিরিজ দিয়ে স্মার্টফোনে সনি যতটা সাফল্য পেয়েছে, ট্যাবে তেমন একটা পায়নি। অনেকের মতে এর মূল কারণ, দাম বেশি রাখা হলেও এতে ফিচারে তেমন কোনো উন্নতি আসেনি। আগের অভিজ্ঞতা থেকে এবার জাপানি কোম্পানিটি নতুন ট্যাব জেড ৪ এনেছে।
গ্রাহক ও বিশ্লেষকদের মন্তব্যগুলো যে সনি মন দিয়ে শুনছিলো তা বোঝা যায় নতুন ডিভাইসের ভেতরের কাজ দেখে। আগের সমালোচনা কাটাতে এটিতে বেশ নতুনত্বের ছোঁয়া দেওয়া হয়েছে। যে কারণে হাইএন্ড হলেও জেড ৪ চলতি বছরে বাজারের সেটা ট্যাবের খাতায় নাম লিখিয়েছে।
ডিজাইন
প্রথম দৃষ্টিতেই সনির ডিভাইস হিসেবে চিনতে পারা যায়। সিম্পল কিন্তু এলিগেন্ট ডিজাইনের কারণেই ভিন্নতা চোখে পড়ে। আর ডিভাইসটির পুরুত্বের বৈশিষ্ট্যও বিশেষ কিছু।
xperia tab 4_techshohor
নতুন এ ট্যাবে মেটাল ব্যাক নয়, প্লাস্টিক ব্যবহার করা হয়েছে পেছনে। এটা হতাশাজনক। বিশেষ করে এমন হাইএন্ড ট্যাবলেটের বিবেচনায়।
তবে প্লাস্টিকের কারণেও সুবিধে হয়েছে কিছুটা। ডিভাইসটি অনেক হালকা হয়েছে। মাত্র ৩৯৩ গ্রাম।
ডিসপ্লে
ফোনটির ১০.১ ইঞ্চি আকারের স্ক্রিনের ডিসপ্লের রেজুলেশন ২৫৬০*১৬০০। সনির ট্রাইলুমিনাস টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে এতে । মোট কথায়, অসম্ভব সুন্দর এক ডিসপ্লে। একেবারে তাকিয়ে থাকার মত সুন্দর।
শার্পনেস ও কালার রিপ্রোডাকশনে এটি আইপ্যাড এয়ার ২-কেও ছাড়িয়ে গেছে, যা শার্প ডিসপ্লের আলোচনায় চারদিকে সাড়া ফেলে দিয়েছিল।
xperia tab 4_techshohor
মুভি ও টিভি শো দেখতে যারা পছন্দ করেন, তাদের জন্য এর থেকে ভালো অপশন আর সম্ভব না।
পারফরমেন্স
স্ন্যাপড্রাগন ৮১০ চিপসেট ও ২ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর রয়েছে। র্যা ম থাকছে ৩ জিবি। সব মিলিয়ে অত্যন্ত শক্তিশালী এক ডিভাইস, জেড ৪।
সব বিভাগেই এটি আপনাকে প্রায় নিখুঁত অভিজ্ঞতা দেবে। কোনরকম ল্যাগ ছাড়াই খেলতে পারবেন ভারি গ্রাফিক্সের সব গেইম।
৩২ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি থাকছে, যা মেমোরি কার্ড দিয়ে যা ১২৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।
ক্যামেরা
পেছনে ৮ মেগাপিক্সেল ও সামনে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। কোয়ালিটি মাঝারি মানের বলা যায়। পেছনের ক্যামেরা কোয়ালিটি যদিও এইচডিআর মোড দিয়ে উন্নত করা গেলেও সামনের ক্যামেরায় সে সুযোগ থাকছে না।
xperia tab 4_techshohor
ব্যাটারি
পুরো ট্যাবে এক দিকেই যেন একটু নজর কম দেওয়া হয়েছে, সেটা হল ব্যাটারি লাইফ। উন্নত সব কনফিগারেশন ব্যাটারি লাইফকে বেশ কমিয়ে দিয়েছে।
টানা চালালে সর্বোচ্চ ৬ ঘন্টা ব্যবহার করতে পারবেন সনি এক্সপেরিয়া জেড ৪।
হাইএন্ড এ ট্যাবের দাম ধরা হয়েছে ৫০ হাজার ৭০০ টাকা।
এক নজরে ভালো
– অসম্বব সুন্দর ডিসপ্লে
– নিখুঁত পারফরমেন্স
– হালকা
এক নজরে খারাপ
– বাজে ব্যাটারি লাইফ