ক্যামেরার মতো দুর্দান্ত নয় পারফরমেন্স : সনি জেড৫ কম্প্যাক্ট

চলতি বছর সনির ফ্ল্যাগশিপ ফোন জেড৫ বাজারে আসার কথা। কিন্তু এই ফোনটি আনার আগে এরই এক বাজেট সংস্করণ বাজারে আনা হয়েছে, যার মডেল জেড৫ কম্প্যাক্ট। শেষ কম্প্যাক্ট ফোন জেড৩ বের হয় ২০১৪ সালে। সেটা বাজারে সাড়া জাগানোতে এই বছর আবারও এই সিরিজের আরেকটি ফোন আনা হল।
ডিজাইন
ফোনটির পেছনে-সামনে যথারীতি গ্লাসের ফিনিশ রয়েছে। গ্লাস বলা হলেও হাতে প্রায় প্লাস্টিকের মতই অনুভূতি হয়। জেড৫ এর মত এর বডি এত চিকন নয়, ৮.৯ মিলিমিটার পুরুত্ব। আজকের বাজারের তুলনায় যাকে কোনভাবেই ‘স্লিম’ বলা যায় না।
ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরের অবস্থানটা এই ফোনে বেশ ভালো, যখন তখন আঙ্গুল নিয়ে যাওয়া যায় সেখানে। সাদা,কালো, লাল ও হলুদ এই চার রঙে পাওয়া যাচ্ছে ডিভাইসটি।
sony z5 compact (2)
ডিসপ্লে
এতে ৭২০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের ৪.৬ ইঞ্চির ডিসপ্লে রয়েছে। ১০৮০ পিক্সেল না হলেও সবকিছু যথেষ্ট শার্প ও ক্লিয়ার। ভিউ আঙ্গেলও চমৎকার। যে কোন সাইড থেকে তাকালেও ডিসপ্লের কালার ও কন্ট্রাস্ট অটুট থাকবে।
পারফরমেন্স
স্ন্যাপড্রাগন ৮১০ চিপসেটের ১.৫ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর ভেতরে রয়েছে। সাথে রয়েছে আরও ২ জিবি র‍্যাম। সাধারণ কাজকর্মে ফোনটি দ্রুতগতির হবে। কিন্তু পেছনে অনেক অ্যাপ খোলা থাকলে অথবা ভালো গ্রাফিক্সের গেইম চালালে ল্যাগ ধরা পড়তে পারে। তাছাড়া ডিভাইসটির বেশ তাড়াতাড়ি গরম হওয়ার প্রবণতাও রয়েছে।
ডিফল্ট স্পেস হিসেবে ভেতরে থাকছে ৩২ জিবি, মেমোরি কার্ড দিয়ে যা ২০০ জিবি পর্যন্ত বাড়াতে পারবেন।
sony z5 compact (3)
ক্যামেরা
প্রতিবারের মত এবারো সনির বড় আকর্ষণটা ক্যামেরায় থাকছে। এতে ২৩ মেগাপিক্সেল ব্যাক ও ৫ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। যারা ছবি তুলতে পছন্দ করে তাদের এ রকম দুটি অসাধারণ ক্যামেরা থাকলে সত্যি আর কিছু লাগে না।
ছবির কোয়ালিটি দারুণ। তাছাড়া অনেক ফিচারের পাশাপাশি পেছনের ক্যামেরাটি দিয়ে ৪কে ভিডিও-ও শ্যুট করা যায়।
ব্যাটারি
এই আরেকটি জায়গায় ফোনটি তুলনাহীন। এতে ২৭০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ারের ব্যাটারি রয়েছে, যা গোটা দেড় দিনের মত ব্যাকআপ দেবে।
sony z5 compact (4)
দাম
দেশের বাজারে এই ডিভাইস ৪০ হাজার ৯০০ টাকায় পাওয়া যাবে।
এক নজরে ভালো
– দারুণ ক্যামেরা
– দীর্ঘ ব্যাটারি
এক নজরে খারাপ
– মোটা
– ভারি গেইমে ফোন গরম হয়ে যেতে পারে