সেলফি তুলতে গিয়ে ২০১৫ ভারতে মারা গেছে ২৭ জন

সেলফি এখন এতটাই জনপ্রিয় যে মানুষ এর জন্য মৃত্যুঝুঁকি নিতেও দ্বিধা করছে না। বিশ্লেষকরা এই আসক্তিকে এখন একটি ব্যধি হিসেবে উল্লেখ করেছেন।
সেলফি পাগল মানে এই না যে, এর জন্য মৃত্যুঝুঁকি নিতে হবে। কিন্তু কিছু মানুষ সে ঝুঁকি নিচ্ছে এবং শেষ পর্যন্ত মারাও যাচ্ছে। ২০১৫ সালে সেলফি তুলতে গিয়ে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছে ভারতে। ওয়াশিংটন পোস্টের একটি প্রতিবেদনে এমন তথ্যই উঠে এসেছে।
ওয়াশিংটন পোস্ট তাদের প্রতিবেদনে জানায়, সেলফি তুলতে গিয়ে বিশ্বব্যাপী যারা মারা যায় তার অর্ধেকই ভারতের। গত বছর সেলফি তুলতে গিয়ে ভারতে ২৭ জন মারা যায়।
এখন পর্যন্ত সেলফি তুলতে যেসব ঝুঁকি নেওয়ার ফলে মানুষ মারা যায় সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- চলন্ত ট্রেনের সামনে সেলফি, ছাদের রেলিঙে দাঁড়িয়ে সেলফি ইত্যাদি।
গত বছরের মতো এ বছরও সেলফি তুলতে গিয়ে মানুষের মৃত্যু অব্যাহত রয়েছে। ইতিমধ্যে এ কারণে মুম্বাইয়ে দু’জন মারা যায়। আর সেজন্যই মুম্বাই পুলিশ বেশ কয়েকটি জায়গাকে ‘নো সেলফি জোন’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে।