বলিউডের সেরা ১০ বডি বিল্ডার তারকা !


বর্তমানে নায়ক হতে হলেই সুঠাম দেহের অধিকারী হতে হবে। এই কথা সকলের জানা। বিশেষ করে বলিউডের অভিনেতারা সিনেমায় তাদের দেহ এবং পেশী বহুল শরীর প্রদর্শনের এক প্রতিযোগীতা নেমেছেন গত বেশ কিছু দিন ধরেই। সেই প্রতিযোগীতায় বলিউড নায়কেরা কে কতটা এগিয়ে, চলুন দেখে নেওয়া যাক এক পলকে।

হৃতিক রোশান: পুরোপুরি ছয় ফুট উচ্চতার এই বলিউড অভিনেতার ওজন মাত্র ৭৪ কিলোগ্রাম। বর্তমানে তাকেই বলা হচ্ছে বলিউডের সেরা সুঠাম দেহের অধিকারী অভিনেতা। ৪১ বছর বয়সি হৃতিকের বলিউডে নায়ক হিসেবে অভিষেক হয় তার বাবা রাকেশ রোশান পরিচালিত কাহো না পেয়ার হ্যায় সিনেমার মধ্য দিয়ে।
প্রথম চলচ্চিত্র দিয়েই ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের ষষ্ঠ আসরে সেরা অভিনেতা হওয়ার গৌরব অর্জন করেন তিনি। তবে এর আগে ১৯৮০ সালে আশা সিনেমায় একটি বিশেষ চরিত্রে তাকে দেখা যায়। তখন তার বয়স ছিল মাত্র ছয় বছর।
নায়ক হিসেবে অভিষেকের পর কাভি খুশি কাভি গাম, কই মিল গ্যায়া, ক্রিশ, ধুম টু, যোধা আকবর, গুজারিশ, জেন্দেগি না মিলেগি দোবারা, ক্রিশ থ্রির মতো বক্স অফিস মাতানো সিনেমা উপহার দিয়েছেন বলিউডের সেরা দেহের অধিকারী এই অভিনেতা। বর্তমানে তিনি দুই সন্তানের জনক।

সালমান খান: বলিউডে যে নায়কদের নিয়ে আলোচনা চলে আসছে বহুদিন ধরে তাদের মধ্যে প্রথম সারিতে আছেন সালমান খান। এ ড্যাশিং হিরোর উচ্চতা মাত্র ৫ ফিট ৮ ইঞ্চি। আর বর্তমানে ওজন ৮১ কিলোগ্রাম। এই অভিনেতা ভক্তদের কাছে ‘বলিউডের টাইগার’ হিসেবে বিশেষ পরিচিত। এছাড়া ভক্তরা তাকে ‘ব্লকবাস্টার খান’, ‘ভাইজান’, ‘সাল্লু’, ‘বক্স-অফিস রাজা’ ইত্যাদি বহু নামেই ডাকেন। তার শরীরী আবেদন সবসময়ই ভক্তদের মধ্যে বিশেষ উদ্দীপনা তৈরি করে। যদি এটি নিয়ে প্রায়শই নানা তর্ক-বিতর্ক হয়ে থাকে।
জেনে নিন, বলিউডের সেরা ১০ বডি বিল্ডার তারকা !
বিখ্যাত এ অভিনেতার বলিউডে অভিষেক হয় ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’ সিনেমার মাধ্যমে। তবে ছবিটিতে অভিনয় করার আগের বছর ১৯৮৮ সালে ‘বিবি হো তো অ্যায়সি’ সিনেমায় একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করে দারুণ প্রশংসিত হন তিনি। ফলে তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। তিনি একের পর এক উপহার দিয়েছেন বিখ্যাত সব সিনেমা। ৪৯ বছর বয়সি এই অভিনেতার সাম্প্রতিক সিনেমা প্রেম রতন ধর পায়ো ভেঙ্গে দিচ্ছে একের পর এক রেকর্ড।

জন আব্রাহাম: ইংরেজি ‘হাঙ্ক’ শব্দটি ব্যবহার করা হয় জন আব্রাহামের ক্ষেত্রে। এই শব্দটি বিশ্লেষণ করলে দাঁড়ায় বিশেষ এক ব্যক্তি যিনি দারুণ আবেদন তৈরি করেন। ৫ ফুট ১১ ইঞ্চি উচ্চতার এই অভিনেতা হুট করেই মডেল থেকে বলিউডের নায়ক হিসেবে সাফল্য পান। তিনি ওয়ার্ল্ডের অন্যতম ফ্যাশনাবেল নায়ক হিসেবেও খ্যাতি পেয়েছেন। কারণ এ পর্যন্ত পুরুষদের ব্যবহৃত পণ্যের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে সবথেকে বেশি যাকে দেখা গেছে তিনি জন আব্রাহাম। ৭০ কেজি ওজনের এই অভিনেতা প্রত্যেকদিন তার শরীরের পেছনে ২-৩ ঘণ্টা সময় ব্যয় করেন।
প্রথম চলচ্চিত্র ‘জিসম’-এর মাধ্যমেই তিনি সেরা উদীয়মান অভিনেতার পুরস্কার জেতেন। তার বিখ্যাত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে ধুম, গরম মাসালা, কাভি আলবিদা না ক্যাহনা, ট্যাক্সি নাম্বার ৯২১১, জিন্দা, বাবুল, সালাম ই ইশক, দোস্তানা, রেস টু, মাদ্রাজ ক্যাফে উল্লেখযোগ্য।

রণবীর সিং: বলিউড পাড়ায় অল্প দিনে ভালো করার খ্যাতি রয়েছে রণবীরের। বলিউডের এই হাটথ্রবের উচ্চতা ৫ ফিট দশ ইঞ্চি। অন্যদের মতো রণবীরেরও প্রত্যেকদিন নিজের শরীরের জন্য বরাদ্দ রাখেন সময়। তিনি প্রত্যেকদিন অন্তত একঘণ্টার বেশি সময় ধরে ব্যায়ামে ব্যস্ত থাকেন।
যশ রাজের চলচ্চিত্র ‘ব্যান্ড বাজা বারাত’ দিয়ে রণবীর বলিউডে যাত্রা শুরু করেন। আর প্রথম চলচ্চিত্রেই নিজের সামর্থের প্রমাণ দেন তিনি। এর পর একে একে অভিনয় করেন লুটেরা, রামলীলা-রাসলীলা, কিলদিল, দিল ধারাকনে দো ইত্যাদি সিনেমা। যে ছবিগুলোর সাফল্য তাকে মাত্র ত্রিশ বছর বয়সেই একজন দক্ষ অভিনেতার কাতারে বসিয়েছে।

ফারহান আক্তার: পাঁচ ফিট নয় ইঞ্চি উচ্চতার অধিকারী ফারহান আক্তার বলিউডে বহুমুখী প্রতিভার অধিকারীদের একজন। সত্তর কেজি ওজনের এই অভিনেতা একাধারে পরিচালক, প্রযোজক, চিত্রনাট্যকার, গায়ক ও টিভি উপস্থাপক। তবে এই অভিনেতার গান লেখার হাতও অত্যান্ত ভাল। বহুমুখী প্রতিভার এই নায়ক তার সবল এবং সুন্দর পেশীবহুল শরীরের জন্য ভক্তদের কাছে দারুণ জনপ্রিয়।
বিশেষ করে ২০১৩ মুক্তি পাওয়া ‘ভাগ মিলকা ভাগ’ সিনেমাটিতে নতুনভাবে নিজেকে উপস্থাপনের জন্য তাকে বসিয়েছে আলোচনার নতুন আসনে। ৪১ বছর বয়সি এই অভিনেতার ঝুলিতে এখন সিনেমার সংখ্যা বাইশ।

অক্ষয় কুমার: ছয় ফিট এক ইঞ্চি উচ্চতার সুঠামদেহের অধিকারী বলিউডের ‘খিলাড়ি’ খ্যাত এই তারকা অভিনয় ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন অ্যাকশন হিরো হিসেবে। তবে শুধু অ্যাকশন নয়, কমেডি সিনেমাতেও তিনি নিজেকে মেলে ধরেছন দারুণভাবে। ৭৫ কেজি ওজনের এই শক্তিমান অভিনেতা সাম্প্রতিক সময়ে দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছেন প্রচুর।
তার কমেডির ধাচের সিনেমাগুলো অক্ষয়কে খ্যাতির চূড়ায় নিয়ে গেছে। ৪৮ বছর বয়সি এই অভিনেতার ছোটবেলা থেকেই তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়া এবং খুব ভোরে ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস। শতাধিক সিনেমায় অভিনয় করা ওই অভিনেতা সেরা অভিনেতার মুকুট পড়েছেন দুবার।

আমির খান: আমির খানের সম্পূর্ণ নাম মোহাম্মাদ আমির হুসাইন খান। বলিউডের মিস্টার পার্ফেক্টশনিস্ট বলা হয়ে থাকে আমিরকে। মাত্র পাঁচ ফিট ছয় ইঞ্চি উচ্চতার এই অভিনেতা নিজের জাত চিনিয়েছেন বহুবার।
তবে ‘গাজিনি’ সিনেমার জন্য নিজের শরীরকে বিশেষভাবে প্রস্তুত করায় তিনি ভক্তদের কাছে প্রচুর সমাদৃত হয়েছিলেন। তারপর থেকেই তার পেশীর প্রতি সবার নজর। মিস্টার পারফেকশনিস্টের বর্তমানে ওজন ৭৪ কেজি। তার ঝুলিতে রয়েছে রাজা হিন্দুস্তানি, লাগান, কিয়ামতো সে কিয়ামতো তাক, ফানা, তারে জামিন পর, রাং দে বসন্তি, থ্রি ইডিয়টস, পিকের মতো বক্স অফিস মাতানো সিনেমা। তিন সন্তানের জনক আমির বর্তমানে বলিউডের সফল অভিনেতার অন্যতম।

শাহরুখ খান: বলিউড বাদশা নামেই যিনি পরিচিত তিনি শাহরুখ খান। মাত্র পাঁচ ফিট আট ইঞ্চি উচ্চতা নিয়েও যিনি জয় করে নিয়েছেন সবকিছু। শাহরুখ খান দেখিয়েছেন ৪০ বছর পরেও কীভাবে ফিটনেস ধরে রাখতে হয়।
ওম শান্তি ওম সিনেমায় তার সিক্স প্যাক বডি তাকে নিয়ে যায় আলোচনার তুঙ্গে। এছাড়া ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ সিনেমায়ও তাকে দেখা গিয়েছে নতুনভাবে। সবমিলিয়ে নিজের ওজন ৭৫ কেজির মধ্যেই সীমাবদ্ধ রেখেছেন এই অভিনেতা।

বিদ্যুৎ জামাল: বলিউডের মার্টিন বলে খ্যাত প্রায় ছয় ফুট উচ্চতার অভিনেতা বিদ্যুৎ জামালের অভিষেক হয় অ্যাকশনধর্মী সিনেমা ‘ফোর্স’এর মাধ্যমে। তবে প্রথম সিনেমাতেই নিজের অভিনয় দক্ষতা আর বলিষ্ঠ শরীরের মাধ্যমে তিনি বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।
শোনা যায় ৭৪ কেজি ওজনের এই অভিনেতা নাকি তার তিন বছর বয়স থেকেই নিজের শরীরের প্রতি সচেতন ছিলেন।

বরুন ধাওয়ান: বর্তমান বলিউডের সবথেকে সম্ভাবনাময় অভিনেতাদের একজন বরুন ধাওয়ান। পাঁচ ফিট দশ ইঞ্চি উচ্চতার এই অভিনেতা তার সিক্স প্যাক বডির জন্য চকলেট বয় হিসেবে বলিউড পাড়ায় বেশ জনপ্রিয়। বরুনের ওজন বর্তমানে ৭৮ কেজি। অল্প সময়ে খ্যাতি পাওয়া এই অভিনেতা সহকারী পরিচালক হিসেবে বেশ দক্ষ। ‘মাই নেম ইস খান’ সিনেমায় তিনি সে পরিচয় দিয়েছেন।
তবে অভিনেতা হিসেবে ২০১৩ সালে মুক্তি পাওয়া ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার’ সিনেমায় অভিষেকের মাধ্যমে তার অভিনয় ক্যারিয়ারটা বেশ পাকাপাকি ভাবেই শুরু হয়। বর্তমানে বরুন অভিনীত ‘দিলওয়ালে’ সিনেমা বক্স অফিস রেকর্ডের অপেক্ষায়। এই সিনেমায় সহশিল্পী হিসেবে শাহরুখ খান, কাজলের মতো তারকাদের পেয়েছেন।