কক্সবাজারে হোটেল প্রাইম পার্কের কম দামে সবচে সেরা হানিমুন অফার !


হানিমুনের বাংলা প্রতিশব্দ মধুচন্দ্রিমা। একান্তে সময় কাটানোর জন্য নবদম্পতির কাছে হানিমুন পরম প্রত্যাশিত কিছু। হানিমুনের ধারণা এসেছে পশ্চিমা সভ্যতা থেকে। এ দেশে উচ্চবিত্ত তো বটেই, মধ্যবিত্তের মধ্যেও হানিমুনের প্রসার বাড়ছে এখন। বেড়েছে বিভিন্ন পরিস্থিতি বোঝাতে হানিমুন শব্দের ব্যবহারও।  

জার্মানরাই হানিমুনের উদ্ভাবক। অথচ তাদের ভাষায় হানিমুনের সমার্থক শব্দ নেই। হানিমুন (honeymoon) বোঝাতে তারা ইংলিশ বা অন্য কোনো ভাষার ঘাড়ে চাপে। প্রাচীনকালের জার্মানির সামাজিক রীতি অনুযায়ী বিয়ের পর এক মাস নব দম্পতিকে ভিন্ন এক জায়গায় রাখা হতো এবং নবদম্পতিকে ঘটা করে খাওয়ানো হতো গ্যাঁজানো মধুর শরবত। এ রীতি পরে ইউরোপের অন্যান্য জাতির মধ্যে ছড়ায়। এখন হানিমুনে মধুও নেই, মাসও নেই। বিয়ের পরে অথবা পরে কোনো অনুকূল সময়ে হানিমুনপর্ব সারা যায় এবং তা এক মাস হতে হবে, এমন কোনো কথা নেই। কয়েক দিনের হলেই চলে। কারণ হানিমুন এখন দম্পতির আর্থিক সঙ্গতির ওপর নির্ভরশীল। আমাদের বাংলাদেশী দের জন্য হানিমুন ডেসিটিনেসন মানেই বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার । কিন্তু অনেকেই ঝামেলায় পরেন কি করবেন, কোথায় যাবেন কোন হোটেলে থাকবেন এই নিয়ে । আর তাদের জন্যই আমাদের আজকের এই আয়োজন ।  হোটেল প্রাইম পার্ক দিচ্ছে অসাধারন একটি হানিমুন প্যাকেজ । 

সবচাইতে কম খরচে বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকতে আপনার প্রিয়জনকে নিয়ে কাটান অসাধারণ একটি সময় ! আপনার হানিমুনের জন্য আপনি বেছে নিতে পারেন   "স্টার হানিমুন" প্যাকেজ ! মাত্র ৭০০০ টাকায় এই প্যাকেজটিতে যা থাকছেঃ-

১।দুই রাত তিন দিন অ্যাকোমোডেশন (কাপল প্রিমিয়াম রুম)
২। প্রতিদিনের বুফে ব্রেকফাস্ট 
৩। একটি শেফ'স স্পেশাল ক্যান্ডেল লাইট ডিনার
৪।একটি কাপল হানিমুন কেক 
৫।ফ্রুট বাস্কেট 
৬। পিকআপ/ড্রপ সার্ভিস 
৭।আনলিমিটেড ওয়াই-ফাই ইন্টারনেট 
৮।ওয়াইল্ড ফ্লাওয়ার রিসেপসন 
৯। ওয়েলকাম ড্রিঙ্কস সহ
আরও অনেক কিছু !
এছাড়াও এর সাথে তাদের কিছু নিয়মিত সার্ভিস পাবেন একেবারেই বিনামূল্যে ! 

ঠিকানাঃ 
হোটেল প্রাইম পার্ক 
প্লট- ৫৮ ব্লক-সি, হোটেল মোটেল জোন । 
কলাতলি ৪৭০০ কক্সবাজার, বাংলাদেশ । 
ফনঃ ০১৬৭০৭৬২৬৭২