গ্যালাক্সি স্যামসাং এস৭ দিয়ে যে ৭টি কাজ করতে পারবেন


ডিজাইন টু পভারফেক্ট : গ্যালাক্সি স্যামসাং এস৭ এজ-এ রয়েছে স্যামসাংয়ের অনন্য কার্ভড এজ ডিজাইনের ডিসপ্লে যাতে রয়েছে অ্যামোলেড স্ক্রিন টেকনোলজি। এর নতুন ফিচার হচ্ছে অলওয়েজ অন ডিসপ্লে (এওডি) যা, একজন ব্যবহারকারীকে ফোন স্লিপিং মোড কিংবা কম পাওয়ার মোডেও কিছু তথ্য দেবে। এই সুবিধাটির মাধ্যমে অ্যামোলেড টেকনোলজির অনন্য সুবিধাটি ব্যবহার করা হয় যা শুধু প্রয়োজনীয় পিক্সেল ব্যবহার করে।

ক্যামেরা : এই নতুন স্যামসাং ফ্ল্যাগশিপ ডিভাইসে রয়েছে ইমেজ সেন্সর যাতে, ব্যবহার হয়েছে উচ্চ রেটের ১.৪ ইউএম পিক্সেল, এফ/১.৭ অ্যাপারচার যা কম আলোতে উজ্জ্বল ছবি তুলতে সক্ষম। এ ক্যামেরা ৫৬ শতাংশ বেশি আলো নিশ্চিত করে যার মাধ্যমে পরিচ্ছন্ন এবং উচ্চমানসম্পন্ন ছবি তোলা যায়। এস৭ এজ ব্যবহারকারী পাবে প্রফেশনাল ফটোগ্রাফির অভিজ্ঞতা।

এর ক্যামেরার ইমেজ সেন্সরের প্রতিটি পিক্সেলে আছে দুটি ফটোডায়োড যা খুব দ্রুততর গতিতে ছবি তুলতে সক্ষম। এমনকি নিজের চোখের কম আলোর গতিশীল বস্তুকে শনাক্ত করতে পারে। শুধু তাই নয়, এটির আশ্চর্যজনক ফিচার হচ্ছে এর মোশন প্যানারোমা এবং হাইপার ল্যাপস যা সেরা মোবাইল ফটোগ্রাফি নিশ্চিত করে।

কার্যক্ষতা : নতুন কাস্টম প্রসেসর, শক্তিশালী জিপিইউ এবং ৪ জিবি র‌্যামের সমন্বয়ে, রয়েছে ৩২ জিবি ইন্টারনাল মেমরি। আর ২০০ জিবি পর্যন্ত মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহারের সুবিধা তো থাকছেই। এটির ৩৬০০ অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি সারা দিন ব্যাকআপ নিশ্চিত করবে। এরপরও এটির দ্রুত চার্জিং প্রযুক্তি আপনার ফোনকে খুব স্বল্প সময়ে পূর্ণ চাজ করার সুযোগ দেবে।

গেমিং রিডিফাইন্ড : পৃথিবীতে প্রথমবারের মতো কোনো স্মার্টফোনে ভলকান এপিআই সাপোর্ট করে যা ৮০ শতাংশ পর্যন্ত সিপিইউর ওপর চাপ কমায়, ৬৭ শতাংশ পর্যন্ত জিপিইউর কার্যক্ষমতা বাড়ায়। তাই আপনি এস৭ এজ-এ গেম খেলে কম্পিউটারের মতো অভিজ্ঞতা পাবেন।

গেমিং অভিজ্ঞতাকে আরও বাড়াতে থাকছে গেম লঞ্চার, যেখানে আপনি গেম সিটিং সমন্বয় করতে পারবেন। এ ছাড়া গেম খেলার সময় গেমপ্লে রেকর্ড, স্ক্রিনশট এমনকি প্রয়োজনে গেমকে মিনিমাইজও করতে পারবেন।

লাইভ অন এজ : এর এজ-এ ৯টি প্যানেল রাখা হয়েছে যাতে ১০টি করে অ্যাপস কিংবা ফোল্ডার রাখার সুবিধা রয়েছে। আপনি এটির স্ক্রিন এজকে কাস্টমাইজ বা পজিশন করতে পারবেন। এস৭ এজ-এর আরেকটি চমৎকার ফিচার হচ্ছে এটির টাস্ক এজ প্যানেলে আপনার প্রয়োজনীয় কাজগুলোকে অ্যাসাইন করতে পারবেন সহজেই।

বাইর ও ভেতর সুরক্ষিত : এই স্মার্টফোনে রয়েছে আইপি৬৮ সার্টিফিকেশন যা অফিসিয়ালি দাবি করা হয়েছে যে, ১.৫ মিটার পানির নিচে ৩০ মিনিট পর্যন্ত থাকতে সক্ষম। রয়েছে দ্রুততম ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।

এ ছাড়া স্যামসাং KNOX হ্যাকার এবং ম্যালওয়ারের বিরুদ্ধে সুরক্ষা দেয় যা, নিয়মিত আপডেট হয়। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এজ KNOX এনেবলড অ্যাপটি ব্যবহারকারীর স্পর্শকাতর তথ্য আলাদাভাবে এনক্রিপ্ট করে রাখার মাধ্যমে বাড়তি সুরক্ষা প্রদান করে।

ডিসকভার দ্যা গ্যালাক্সি : একটু ভাবুন, আপনার ৫.৫ ইঞ্চির ফোনটি হয়ে যাবে পারসোনাল থিয়েটার। স্যামসাং গিয়ার ভিআরকে ধন্যবাদ যে, সারা বিশ্ব থেকে আপনি এখন উপভোগ করতে পারবেন ৩৬০ ডিগ্রি ভিডিও। এমনকি আপনি নিতে পারবেন শ্বাসরুদ্ধকর এবং রোমাঞ্চকর সব অভিজ্ঞতার। এগুলো ছাড়াও থাকছে আলট্রা হাই কোয়ালিটি অডিও প্রযুক্তিসমৃদ্ধ লেভেল ইউ প্রো বেস্ট হ্যান্ড ফ্রি এবং ট্রু ২৪ বিট ডিজিটাল অডিও অভিজ্ঞতা।