বায়োমেট্রিক সিম নিবন্ধন বন্ধে উকিল নোটিশ

মোবাইল ফোনের সিম আঙ্গুলের ছাপ বা বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিবন্ধন বন্ধে সংশ্লিষ্ট ১১ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের প্রতি একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন খায়রুল হাসান সরকার নামের এক ব্যক্তি।
বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার বাসিন্দা খায়রুল সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হুমায়ুন কবির পল্লবের মাধ্যমে ওই নোটিশ সংশ্লিষ্ট দফতরে পাঠিয়েছেন।
ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি), আইন সচিব, পুলিশের আইজিপি, ঢাকার পুলিশ কমিশনার, মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনরবিএয়ারটেল,বাংলালিংক, টেলিটক ও সিটিসেল কর্তৃপক্ষকে উকিল নোটিশটি পাঠানো হয়েছে।
1392696819994
খায়রুল আলামের আইনজীবী হুমায়ূন কবির গণমাধ্যমকে জানান, আগামী দুই দিনের মধ্যে নোটিশের লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে। সেখানে এই সময়ের মধ্যেই বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধন বন্ধে গণমাধ্যমে এর পক্ষে সব ধরনের প্রচারণা বন্ধ করতে বলা হয়েছে।
এটি না করা হলে উচ্চ আদালতে রিট করা হবে বলেও জানিয়েছেন আইনজীবী হুমায়ূন কবির।
বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম নিবন্ধনে নিজের তথ্য পাচারসহ নানান ধরনের ক্ষতির আশঙ্কা থেকেই যায়। তাই সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষ হলেও সেই আশঙ্কা থেকেই এই নোটিশ পাঠানো হয়েছে বলে জানান আইনজীবী হুমায়ূন কবির।
তবে বিকেল চারটা পর্যন্ত এ ধরনের কোনো নোটিশ হাতে পাননি বলে জানিয়েছেন বিটিআরসি সচিব সরওয়ার আলম। তিনি টেকশহর ডটকমকে বলেন, যেকেউ এমন নোটিশ পাঠাতেই পারে। নোটিশ হাতে পেলে পরে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর থেকে দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে আঙ্গুলের ছাপ বা বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে মোবাইল সিম নিবন্ধন শুরু করে অপারেটরগুলো। তখন থেকে আঙুলের ছাপ ছাড়া আর কোনো সিম কেনাও যাচ্ছে না।