সিম নিবন্ধন পর্যবেক্ষণ করবে ভ্রাম্যমান টিম

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে মোবাইল ফোনের সিম সঠিকভাবে নিবন্ধন করা হচ্ছে কী-না এবং সেখানে গ্রাহকরা কোনো ধরনের হয়রানির শিকার হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করতে শিগগির ভ্রাম্যমান টিম মাঠে নামানো হবে।
বুধবার রাজধানীর কয়েকটি এলাকা ঘুরে পরে মিরপুরের কয়েকদিন দোকান সিম নিবন্ধন প্রক্রিয়া পরিদর্শন শেষে এ কথা বলেন তিনি।
তারানা হালিম বলেন, সিম নিবন্ধন করতে গিয়ে অনেক সময় গ্রাহকদের বিভিন্ন ধরনের ভোগান্তি পোহাতে হয়। আবার অনেকেই গ্রাহকদের কাছ থেকে টাকা-পয়সাও আদায় করেন। মন্ত্রণালয় এবার বিষয়গুলো কঠোরভাবে দমন করবে।
12666531_1079214088795591_1084605830_n
তিনি বলেন, গ্রাহকরা যেন কোনো ধরনের ভোগান্তিতে না পড়েন সেজন্য শিগগির একাধিক ভ্রাম্যমান টিম মাঠে থাকবে।  যারা অবৈধ মোবাইল হ্যান্ডসেট উদ্ধারসহ অন্যান্য কাজে এখন মাঠে কাজ করছে তারাই এই টিমে কাজ করবে। কোনো অভিযোগ পেলে নিবন্ধনকারীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন তারা।
প্রতিমন্ত্রী এ সময় মিরপুরের এশিয়া টেলিকম নামের একটি দোকানে সিম নিবন্ধন কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন। গ্রাহকরা কোনো ধরনের ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন কি-না তাও খতিয়ে দেখেন তিনি।
গত ১৬ ডিসেম্বর সিম নিবন্ধনে আঙ্গুলের ছাপ বা বায়োমেট্রিক পদ্ধতির আনুষ্ঠানিক শুরু হয়। তারপর থেকে আঙুলের ছাপ ছাড়া কেউ আর সিম কিনতে পারছেন না।
অভিযানে তার সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান প্রকৌশলী শাহজাহান মাহমুদসহ মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য কর্মকর্তারা।