এরিকসনের প্রযুক্তিতে জিপির ফোরজি


গ্রামীণফোনের ফোরজি বা এলটিই নেটওয়ার্ক ডিজাইন ও বাস্তবায়ন করবে সুইডিশ টেলিযোগাযোগ প্রযুক্তি, পণ্য ও সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান এরিকসন।
এছাড়া অপারেটরটির টুজি ও থ্রিজি নেটওয়ার্ক ট্রান্সফর্মেশনেও কাজ করবে কোম্পানিটি।
স্পেনের বার্সালোনায় বৃহস্পতিবার মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে গ্রামীণফোনের মূল কোম্পানি টেলিনরের সঙ্গে এ বিষয়ে চুক্তি করে এরিকসন।
চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশসহ মায়ানমার ও থাইল্যান্ডে টেলিনর গ্রুপের মোবাইল ফোন অপারেটরগুলোর ফোরজি বাস্তবায়ন এবং টুজি ও থ্রিজি ট্রান্সফর্মেশনে হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার প্রযুক্তিসহ নেটওয়ার্ক উন্নয়নে বিভিন্ন সেবা দেবে এরিকসন।
চুক্তিতে বলা হয়েছে, তিন দেশের টেলিনর গ্রুপের অপারেটরগুলোর নেটওয়ার্ক উন্নয়নে মাল্টি-স্ট্যান্ডার্ড রেডিও বেইস স্টেশন অরবিএস৬০০০ স্থাপন করবে কোম্পানিটি। এটি একই ক্যাবিনেট থেকে থ্রিজি এবং ফোরজি বা এলটিই সাপোর্ট দেবে।
এছাড়া রেডিও ডট সিস্টেম এবং আরবিএস৬৪০২ এর মতো ইনডোর স্মল সেলও বাসানো হবে যেটি ইনডোরে কার্যকর মবিলিটি ও সিকিউরিটি সেবা প্রদান করবে।
এরিকসন
এরিকসন বলছে, স্মল সেল বেইস স্টেশন আরবিএস৬৪০২ স্থাপনা ১০ মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে সেল্ফ অরগানাইজিং নেটওয়ার্ক ফিচারের মাধ্যমে গ্রাহকদের ৩০০ এমবিপিএসের বেশি গতি দিতে পারে।
অন্যদিকে রেডিও ডটে মোবাইল ডাটা পাঁচগুন বেশি কার্যকর হবে, কলড্রপ শূণ্যে নেমে আসবে এবং ইন্সটলেশন টাইম প্রতি ডটে চার মিনিটেরও কমে নেমে আসবে।
চুক্তিতে আরও বলা হয়েছে, নির্দিষ্ট কিছু এলাকায় শক্তিশালী নেটওয়ার্ক ও নিখুঁত মোবিলিটি প্রদানে মাইক্রো রেডিও বেইস স্টেশন আরবিএস৬৫০১ বসানো হবে।
এরিকসন জানায়, এসব সেবার ফলে তিন দেশের তিন অপারেটরের গ্রাহকরা শক্তিশালী নেটওয়ার্ক ও উন্নত ব্রডব্যান্ডের সুবিধা পাবেন। মিলবে দ্রুত ওয়েব ব্রাউজিং ও ডাউনলোড সুবিধা।
চুক্তি সম্পর্কে এরিকসনের দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও ওশেনিয়া অঞ্চলের প্রধান স্যাম সাবা বলেন, এই চুক্তি এরিকসনের প্রযুক্তি, সেবা এবং নেতৃত্বকে প্রমাণ করে। এরিকসনের নেটওয়ার্ক সল্যুশন গ্রামীণফোন, মায়ানমার টেলিনর এবং ডিট্যাক এর গ্রাহকদের দারুণ অভিজ্ঞতা দেবে।