আমারি ঢাকায় বৈশাখের ঢাক ঢোল ধামাকা অফার


বাংলা নববর্ষ উদযাপনে আমারি ঢাকায় রয়েছে বাঙ্গালীদের ঐতিহ্যবাহী নানা ধরনের আয়োজন। পহেলা বৈশাখের দিনটিকে উৎসবের আমেজে জাঁকজমক করে তুলতে নানা সাংস্কৃতিক আয়োজনের পাশাপাশি বাঙ্গালীর ঐতিহ্যবাহী খাবারের বিকল্প নেই। সে বিষয়কে সামনে রেখে আমারি ঢাকায় বিভিন্ন খাবারের আয়োজনের পাশাপাশি বর্ষবরণ উদযাপন করা হবে বাউল সঙ্গীত, বাঁশিবাদক, বায়োস্কোপ, চুড়িওয়ালা, ফরচুনটেলারসহ নানা ধরনের আয়োজন নিয়ে। তাদের এতোসব আয়োজনের মধ্যে রয়েছে ভিন্নতার ছাপ। আমারি ঢাকার আয়োজনে পাচ্ছেন-
আমায়া রেস্টুরেন্ট অফার
আমারির সিগ্নেচার রেস্টুরেন্ট, আমায়া ফুড গ্যালারিতে ১৪ ই এপ্রিল এশিয়ান এবং আন্তর্জাতিক আ-লা-কার্ট মেন্যুর সাথে থাকবে নানা ধরণেরঐতিহ্য বাহী খাবারের সমারোহ সকাল, দুপুর এবং রাতের আয়োজনে।
এই বিশেষ দিনে আমায়ার বুফে আয়োজনে মুখরোচক ইলিশ মাছের নানা খাবারের আয়োজনের পাশাপাশি থাকবে ভুনাখিচুরী, বিরিয়ানী, মাটনবিরিয়ানী, বিভিন্ন ধরণের চিকেন আইটেম, বিফ কালিয়া, রুপচাঁন্দা মাসাল্লা, লাউচিংড়ি, খাশির গোস্তভুনাসহ আরও হরেক রকম খাবার। এছাড়াও থাকবে বিভিন্ন ধরণের ভর্তা যেমন- শুঁটকিভর্তা, শিমভর্তা, ঢেড়সভর্তা, ফ্রুটচাট। অন্যান্য অনেক রকমের মজাদার খাবারের মধ্যে থাকবে দেশীয় উপকরণ দিয়ে তৈরি বিভিন্ন প্রকার সালাদ যেমন- কাচাঁ আমের সালাদ, কাচুম্বুরি সালাদ, তান্দুরী বিফ সালাদ, ছোটচিংড়ির কামরাঙ্গা সালাদ এবং নানা ধরণের এ্যাপিটাইজার।
নতুন বছরের পিঠা-পুলি উৎসব আয়োজনকে সামনে রেখে হালুয়া, খিরসা, পুলি-পিঠা, রসমালাই, দুধকুলির পাশাপাশি থাকবে ইউরোপিয়ান পেস্ট্রি আইটেম, ফ্রেশফ্রুটস্ এবং বিভিন্নধরণের আইসক্রিম।
আমায়া রেস্টুরেন্টের সারাদিনের এই বৈশাখী আয়োজনে সকালের নাস্তা পাচ্ছেন মাত্র ১৬০০+ টাকায়, দুপুরের খাবার মাত্র ১৯৯৯+ টাকায় এবং রাতের আয়োজন মাত্র ২৫০০+ টাকায়।
ক্যাস্কেইড লবিলাউঞ্জ
আমারি ঢাকার ২৪ ঘণ্টা খোলা লবিলাউঞ্জে এই বৈশাখী উৎসব আয়োজনে থাকবে দেশী ডেজার্ট আইটেম, চটপটি-ফুচকা, দেশীপিঠা, স্পেশাল দই আইস্ক্রিমসহ আরও নানাধরণের খাবার। এই আয়োজন আপনিবন্ধু-বান্ধবনিয়ে রেস্টুরেন্টে উপভোগ করতে পারেন অথবা টেইক এ্যাওয়ে বক্স হিসেবেও নিয়ে যেতে পারেন। এছাড়াও পানীয় হিসেবে থাকবে লেবুরসরবত, ডাবেরপানি, বিভিন্ন তাজাফলের সরবত, লাচ্ছি এবং জিলাপিসহ আরও নানা ধরণের আয়োজন।
উৎসবপ্রিয় অনেকেই আছেন যারা খুব বেশি ভিড় পছন্দ করেন না। কাছের মানুষদের নিয়ে একটু স্নিগ্ধ পরিবেশে উৎসব উদযাপনই তাদের কাছে সবচেয়ে ভালোলাগার বিষয়। তাই বৈশাখের এই খরতাপময় পরিবেশে গলদঘর্ম না হয়ে ইনডোর মেলার মনোরম পরিবেশে স্ববান্ধবে উপস্থিত হতে পারেন আপনিও। প্রিয়জনদের সঙ্গে দেশীয় খাবার আর মেলার আমেজে সময় পার হতে পারে প্রিয়কথনে। বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন- হোল্ডিং- ৪৭, রোড নং ৪১ গুলশান- ২, ঢাকা- ১২১২।