বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ল্যাপটপ এইচপি স্পেকট্রা


প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এইচপি এবার বাজারে আনছে বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ল্যাপটপ। এইচপি স্পেকট্রা নামে এ ল্যাপটপটি মাত্র ১০.৪ মিলিমিটার পুরু। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে সিনেট।
এইচপি স্পেকট্রা ল্যাপটপটি বিশ্বের অন্যান্য পাতলা ল্যাপটপকে পেছনে ফেলে দিয়েছে। ল্যাপটপটির স্ক্রিন ১৩ ইঞ্চি হলেও তা পুরুত্বে মাত্র ১০.৪ মিলিমিটার। অন্যদিকে অ্যাপলের বিখ্যাত ম্যাকবুক এয়ার ১৭ মিলিমিটার পুরু। এছাড়া ১২ ইঞ্চি ম্যাকবুক ও রেজর ব্লেড উভয় মডেলই ১৩ মিলিমিটার পুরু।
কিছুদিন আগেই আসুস তাদের ১৩.৩ ইঞ্চি মনিটরের ইউএক্স৩০৫সিএ মডেলটিকে বিশ্বের সবচেয়ে পাতলা ল্যাপটপ হিসেবে দাবি করেছিল। সে ল্যাপটপটি ১২.৩ মিলিমিটার পুরু, যা এইচপির স্পেকট্রার তুলনায় বেশি।
স্পেকট্রা ল্যাপটপটির রঙেও এসেছে নতুনত্ব। সাধারণ বিভিন্ন রঙের পাশাপাশি এটি পাওয়া যাচ্ছে উজ্জ্বল সোনালি রঙেও। ব্যবহারকারীদের মাঝে এ রং সাড়া ফেলবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।
ল্যাপটপটির নির্মাণ উপকরণেও এসেছে বৈচিত্র। এর বহু অংশ অ্যালুমিনিয়ামে তৈরি। এমনকি লিডও অ্যালুমিনিয়ামে তৈরি। তবে নিচের অংশ কার্বন ফাইবারে তৈরি বলে জানিয়েছে এইচপি। এটি ল্যাপটপটির ওজন ও ব্যবহারযোগ্যতায় সঠিক ভারসাম্য বজায় রাখবে বলে মনে করছেন ডিজাইনাররা।
ল্যাপটপটির ওজন ২.৪৫ পাউন্ড। এ ওজন ১৩ ইঞ্চি ল্যাপটপের মধ্যে সবচেয়ে হালকা নয়। তবে অন্যান্য ল্যাপটপের তুলনায় এটি যথেষ্ট হালকা। ব্যবহারকারীরা সহজেই এটি বহন করতে পারবেন।
আগের মডেলের ল্যাপটপগুলোতে যে কুলিং সিস্টেম ব্যবহৃত হয় এটি তার থেকে আলাদা। এতে কিছুটা ছোট কুলিং ফ্যান রয়েছে। এর কুলিং সিস্টেমে ইন্টেলের প্রযুক্তি ব্যবহৃত হয়েছে। হাইপারব্যারিক কুলিং নামে এ পদ্ধতিতে ল্যাপটপের ভেতর থেকে শুধু গরম বাতাস বের করা হয়, ঠাণ্ডা বাতাস নয়।
ল্যাপটপটির ডিসপ্লের রেজুলিশন ১৯২০ বাই ১০৮০ পিক্সেল। এটি নন-টাচ স্ক্রিন। এর অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে আছে উইন্ডোজ ১০, যা ল্যাপটপটিতে দারুণ কাজ করে।
স্পেকট্রার প্রসেসর হচ্ছে ইন্টেল কোরআই৫ ও কোরআই ৭। এছাড়া এতে রয়েছে ৮ জিবি র‌্যাম ও ৫১২ জিবি স্টোরেজ।
এখনো বাজারে আসেনি এইচপি স্পেকট্রা। তবে ২৫ এপ্রিল থেকে এর প্রিঅর্ডার দেওয়া যাবে এইচপির ওয়েবসাইটে। যুক্তরাষ্ট্রে এর প্রারম্ভিক মূল্য রাখা হয়েছে ১,১৬৯ ডলার। তবে আন্তর্জাতিক বাজারের মূল্যতালিকা এখনও জানানো হয়নি।