গ্যাসের চুলায় নান রুটি

 

নান রুটি তো সবারই পছন্দ তাই দেখে নিন বানানোর সহজ রেসিপি


উপকরনঃ
১।আটা/ময়দা- ২ কাপ ( আমি আটা নিয়েছি)
২।ডিম-১টা ( গুলানো)
৩।তেল-২টেবিল চামচ
৪।চিনি- ১টেবিল চামচ
৫।গুড়া দুধ-২টেবিল চামচ
৬।ইস্ট-২চা চামচ
৭।লবন-দেড় চা চামচ
৮।পানি-পরিমানমত ( নরমাল পানি)








পদ্ধতিঃ
১) ১/৩কাপ হালকা কুসুম গরম পানিতে চিনি গুলে তাতে ইস্ট দিয়ে নেড়ে দিতে হবে ইস্ট আস্তে আস্তে ফুলে উঠবে, ১০ মিনিট ঢেকে রাখতে হবে।
২) ১০মিনিট পর অন্য পাত্রে আটা নিয়ে তেল ,লবন, গুড়া দুধ দিয়ে হাত দিয়ে নেড়ে চেড়ে নিতে হবে এবার ইস্ট এর মিশ্রনটা দিয়ে মাখতে হবে।একটা ডিম ভেঁঙ্গে ফেটিয়ে নিয়ে আটার সাথে ভালো করে মাখতে হবে, এখন ডো টা রুটির ডো এর মতো বানাতে যতটুকু পানি দরকার ততটুকু অল্প অল্প করে মিশাতে হবে( একবারে দিলে বেশী পানি পড়ে যেতে পারে) এবং একটা দলা বিহীন মসৃন ডো বানাতে হবে। ডোর পাত্রকে একটা টাইট ঢাকনা দিয়ে আটকাতে হবে (এয়ার টাইট পাত্র হলে আরো ভালো) দুই চুলার মাঝামাঝি রাখতে পারলে ভালো হবে। চুলা অল্প আঁচে জ্বালিয়ে রাখতে হবে। এবার ১ঘন্টা এভাবেই থাকবে।
৩) ১ ঘন্টা পর ডো ২ ডাবল থেকে ৩ ডাবল ফুলে যাবে। এটাকে আবার হাত দিয়ে মেখে মেখে ফোলা ভাব কমিয়ে দিতে হবে। এবার ডো টাকে ৫-৬ ভাগ করে নিতে হবে ও রুটি বেলতে হবে। খুব মোটা বা খুব পাতলা রুটি হবে না। আটার গুড়া প্রয়োজন হলে দিবে।
৪) তাওয়া বা মোটা তলা ওয়ালা ফ্রাইপেনে রুটি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে রাখতে হবে অল্প জ্বালে ২-৩ মিনিট পর বা রুটির নীচ লাল লাল হলে উল্টে ঢেকে দিতে হবে, রুটিটা ফুলে যাবে এবং অন্য পাশ লাল লাল হলে নামিয়ে নিতে হবে, রুটি ছ্যকার কাপড় দিয়ে হাল্কা চাপ দেয়া যাবে।
টিপস
**** ইস্ট কিনে ডীপ ফ্রীজে রাখলে অনেকদিন ভালো থাকে।
                                                                                                                                -শাম্মী আখতার