রোজায় খাওয়া দাওয়া হয়ে পড়ে অনেকটাই বাঁধাধরা। ইফতারে ভাজাপোড়া, সন্ধ্যারাতে এবং সেহেরিতে ভাত। এই গৎবাধা রুটিন থেকে বের হয় অনেকেরই ইচ্ছে করে মুখরোচক কিছু খাওয়ার। বাইরে খাওয়ার সুযোগ না পেলে নিজেই ঘরে তৈরি করে নিন বারবিকিউ চিকেন। চলুন, দেখে নিই রেসিপিটি।


উপকরণ
- ১ টেবিল চামচ বারবিকিউ সস
- ৪টা বোনলেস চিকেন ব্রেস্ট
- ১টা মাঝারি গাজর, তেকোনা টুকরো করে কেটে সেদ্ধ করে রাখা
- অর্ধেকটা সবুজ জুকিনি, তেকোনা টুকরো করে কাটা
- অর্ধেকটা হলুদ স্কোয়াশ, তেকোনা টুকরো করে কাটা
- লবণ স্বাদমতো
- গোলমরিচের গুঁড়ো স্বাদমতো
- ১ টেবিল চামচ ওরচেস্টারশায়ার সস
- ৪ চা চামচ অলিভ অয়েল
- ৩/৪ কোয়া রসুন, ক্রাশ করা
- ৪/৬ টা পিঁয়াজ, অর্ধেক করা
- ১ চা চামচ শুকনো পার্সলি
- ১ চা চামচ ময়দা
- গার্নিশের জন্য ধনেপাতা, পুদিনাপাতা

প্রণালী
১) চিকেন ব্রেস্ট একটি পাত্রে নিন। এতে লবণ, গোলমরিচের গুঁড়ো দিন। ওরচেস্টারশায়ার সস, বারবিকিউ সস, এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল দিন এবং ভালো করে মিশিয়ে নিন। ম্যারিনেট হতে দিন।
২) ২ চা চামচ অলিভ অয়েল একটি নন-স্টিক প্যানে গরম করে নিন। এতে রসুন দিয়ে সোনালি করে সাঁতলে নিন। এরপর পিঁয়াজ দিয়ে সোনালি করে ভেজে তুলুন।
৩) এতে গাজর, জুকিনি এবং স্কোয়াশ দিন। ভালো করে নেড়েচেড়ে নিন। এতে দিন লবণ, গোলমরিচ গুঁড়ো এবং শুকনো পার্সলি। নেড়েচেড়ে মাখিয়ে রান্না হতে দিন এক মিনিট। টস করে নামিয়ে নিন।
৪) ওই প্যানেই আবার বাকি অলিভ অয়েল গরম করে নিন। ম্যারিনেট হওয়া চিকেন ব্রেস্ট এতে দিয়ে দিন। দুই দিকে সমানভাবে সোনালি করে রান্না করে নিন। ঢাকনা চাপা দিয়ে রান্না করুন যাতে পুরোপুরি সেদ্ধ হয়ে আসে। প্লেটে নামিয়ে নিন।
৫) সস তৈরির জন্য আধা কাপ পানি গরম করে নিন ওই প্যানেই। এতে ময়দা দিয়ে হুইস্ক করে নিন। মিশ্রণটি ঘন হয়ে এলে লবণ ও গোলমরিচ গুঁড়ো দিয়ে দিন। ছেঁকে নামিয়ে রাখুন একটি বাটিতে।

চিকেন ব্রেস্ট স্লাইস করে প্লেটে নামিয়ে নিন। এর পাশে ভেজিটেবল রাখুন, চিকেনের ওপরে কিছু সস ছিটিয়ে দিন। ধনেপাতা-পুদিনাপাতা দিয়ে সার্ভ করুন গরম গরম।

ভালো করে বুঝতে দেখে নিন রেসিপির ভিডিওটি।

 

সুইট কর্ন বা বেবি কর্নের সাথে দারুণ যায় পনিরের স্বাদ। আর এই দুইটি ফ্লেভারের দারুণ মিশেল যদি ইফতারে পাওয়া যায় তাহলে কেমন হয় বলুন তো? আজ দেখুন ইফতারের ভাজাভুজির একটি অন্যরকম পদ।


উপকরণ
- দেড় কাপ চেডার চিজ গ্রেট করা
- ১টা আলু সেদ্ধ করে ভর্তা করা
- ৩ টেবিল চামচ কর্ন স্টার্চ
- আধা চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়ো
- ১ চা চামচ অরিগানো
- কাঁচামরিচ কুচি স্বাদমতো
- সিকি কাপ ময়দা
- দেড় কাপ ব্রেড ক্রাম্ব
- আধা কাপ সুইট কর্ন সেদ্ধ করা
- আধা কাপ ক্যাপসিকাম কুচি
- ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি
- ১ কোয়া রসুন কুচি
- ডিপ ফ্রাই করার জন্য তেল

প্রণালী
১) কড়াইতে তেল গরম হতে দিন।
২) একটি পাত্রে নিন পনির, আলু, সুইট কর্ন, ক্যাপসিকাম, কাঁচামরিচ, রসুন, অল্প লবণ, ধনেপাতা, ২ টেবিল চামচ কর্ন স্টার্চ, গোলমরিচ গুঁড়ো, অরিগানো। এগুলোকে খুব ভালো করে মাখিয়ে নিন। ইচ্ছে হলে কাঁচামরিচ কমিয়ে দিতে পারেন। অরিগানো না থাকলেও চলবে।
৩) কর্ন স্টার্চ একটি প্লেটে ঢেলে নিন। আরেকটি প্লেটে ব্রেড ক্রাম্ব ঢেলে নিন।
৪) ময়দা এবং পানি মিশিয়ে পাতলা একটি মিশ্রণ তৈরি করে নিন।
৫) পনিরের মিশ্রণ থেকে ছোট ছোট বল তৈরি করে নিন। এগুলোকে প্রথমে কর্ন স্টার্চে অল্প করে মাখিয়ে নিন। এরপর ময়দার মিশ্রণে ডুবিয়ে নিন। সবশেষে ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে নিন। এভাবে ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে নেবার পর এগুলোকে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন। অতিথি এলে বের করে ঝটপট ভেজে দিতে পারেন।
৬) এই বলগুলোকে এবার ডিপ ফ্রাই করে নিন।

গরম গরম পরিবেশন করুন সসের সাথে। দেখে নিন ভিডিওটি।

সারা দিন রোজা রাখার পর পাকস্থলী খুব ক্ষুধার্ত ও দুর্বল থাকে। তারপর যদি এত রকম গুরুপাক খাবার একসঙ্গে খাওয়া হয়, তাহলে কী অবস্থা হবে? পেটের সমস্যা, মাথাব্যথা, দুর্বলতা, অবসাদ, আলসার, অ্যাসিডিটি, হজমের সমস্যা ইত্যাদি হবে রোজার নিত্যসঙ্গী। অনেকের ওজনও বেড়ে যায়।

Acidity-problems-and-the-ways-to-get-rid-of-Ramadan

এ বিষয়ে বারডেম জেনারেল হাসপাতালের পুষ্টি বিভাগের প্রধান আখতারুন নাহার বলেন, রোজায় দামি খাবার খেতে হবে এমন নয় বরং সুষম, সহজপাচ্য ও পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে। গুরুপাক খাবার, পোড়া তেল, বাইরে ভাজা চপ, পেঁয়াজু, বেগুনি, কাবাব, হালিম, মাংস-জাতীয় খাবার না খাওয়া ভালো। এতে হজমে নানা সমস্যা দেখা দিতে পারে।



অ্যাসিডিটি হলে কী করবেন?

প্রথম ও প্রধান করণীয় হলো যেসব খাবারে অ্যাসিডিটি হয় বা হচ্ছে যেমন ভাজা-পোড়া, চর্বি-জাতীয় খাবার ইত্যাদি বেশি গ্রহণ করা যাবে না বা খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দিতে হবে। সহজপাচ্য খাবার গ্রহণ করা উচিত। একেবারে পেটভর্তি খাবার গ্রহণ করা যাবে না। খাবার গ্রহণের পর হাঁটাহাঁটি করা উচিত। পেট পুরে খেয়ে নিচু হয়ে বা পেটে চাপ পড়ে এমন কিছু করা ঠিক নয়। কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে এ ধরনের কাজ করতে পারেন। শোয়ার সময় মাথা উঁচু করে শুতে হবে। অ্যাসিডিটির কারণে পেটে ব্যথা হলে অ্যাসিডিটি কমানোর ওষুধ দেওয়া যেতে পারে। অনেক সময় দেখা যায় ইফতারের পর হঠাৎ পেটে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভূত হয়, যা মারাত্মক হতে পারে। তখন চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

কীভাবে খাবেন?

* নিজেকে ইফতারের সামনে সংযত করুন। আস্তে আস্তে খাওয়া শুরু করুন।

* প্রথমে পানি বা শরবত পান করুন। তারপর খোরমা বা খেজুর খান। তারপর আস্তে আস্তে বাকি খাবার খান। পেটভরে না খেয়ে একটু ক্ষুধা রেখে খেতে হবে। তারপর আধা ঘণ্টা পর পানি পান করতে হবে।


কী খাবেন, কী খাবেন না?

* খেজুর বা খোরমা অবশ্যই খাবেন। এতে আছে শর্করা, চিনি, সোডিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস, আইরন, কপার, সালফার, ম্যাঙ্গানিজ, সিলিকন, ক্লোরিন ফাইবার; যা সারা দিন রোজা রাখার পর খুবই দরকারি।

* চিনিযুক্ত খাবার বাদ দিলে ভালো হয়। এটা খুব তাড়াতাড়ি রক্তে চিনির মাত্রা বাড়িয়ে দেয়, ওজন বাড়ায়। তাই যথাসম্ভব চিনি ও চিনিযুক্ত খাবার কম খান।

* সব মাসের মতো সবজি ও ফল খেতে হবে নিয়মমতো। তা না হলে এই সময়ে কোষ্ঠকাঠিন্য হবে নিত্যসঙ্গী।

* এই গরমে অন্তত ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি না খেলে হজমের সমস্যা হবে। ইফতারের পর থেকে ঘুমাতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত একটু পরপর পানি খেতে হবে।

* খাদ্যতালিকায় সব গ্রুপের খাবার থাকতে হবে অর্থাৎ সুষম খাবার খেতে হবে। আমিষ, শর্করা, ফ্যাট, ভিটামিন, দুধ, দই, মিনারেলস, আঁশ ইত্যাদি খেতে হবে নিয়মমতো।

* ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার যেমন¦লাল আটা, বাদাম, বিনস, শস্য, ছোলা, ডাল ইত্যাদি খেতে হবে। এগুলো হজম হয় আস্তে আস্তে, তাই অনেক সময় পর ক্ষুধা লাগে। রক্তে চিনির পরিমাণ তাড়াতাড়ি বাড়ে না।

* কাঁচা ছোলা খাওয়া ভালো। তবে তেল দিয়ে ভুনা করে খাওয়া ঠিক না।

* চা-কফির মাত্রা কমাতে হবে। তা না হলে পানিশূন্যতা, কোষ্ঠকাঠিন্য, ঘুমের সমস্যা হতে পারে।

* সেহ্‌রিতেও খুব বেশি খাওয়া বা সেহ্‌রি না খাওয়া ঠিক না। সেহ্‌রি না খেলে শরীর দুর্বল হয়ে যাবে।

* বাদ দিতে হবে ভাজা-পোড়া ও গুরুপাক খাবার যেমন ছোলা ভুনা, পেঁয়াজু, বেগুনি, চপ, হালিম, বিরিয়ানি ইত্যাদি
   বাদ দিতে হবে।

* সহজপাচ্য খাবার, ঠান্ডা খাবার যেমন। দই, চিড়া খাবেন। তাহলে সারা দিন রোজা রাখা নাজুক পাকস্থলী ঠিকমতো খাবার হজম করতে পারবে।

* কোষ্ঠকাঠিন্য হলে ইসবগুল খেতে পারেন।

* বেশি দুর্বল লাগলে ডাবের পানি বা স্যালাইন খেতে পারেন ইফতারের পর।

* কোমল পানীয় ঘুমের সমস্যা, অ্যাসিডিটি, আলসার ইত্যাদির কারণ। তাই এ কোমল পানীয়কে সারা জীবনের জন্য পারলে বাদ দিন।

 
Make-Iftar-stale-rice-masala-cheese-Rice-balls-recipe-and-video

রোজার সময়টায় আসলে ভাত খেতে তেমন পছন্দ করেন না কেউই। সন্ধ্যারাত বা সেহেরির ভাত রয়েই যায়। এই ভাত অপচয় না করে সেই বাসি ভাত দিয়েই তৈরি করে ফেলতে পারেন দারুণ একটি ফ্রাইড আইটেম। ইফতারের অন্যান্য উপকরণের সাথে এই মাসালা চিজ রাইস বল পেট ভরাতে সাহায্য করবে। চলুন দেখে নিই দারুণ সহজ রেসিপিটি।


উপকরণ
- ২/৩ টেবিল চামচ পনির, গ্রেট করা
- আধা চা চামচ মরিচের গুঁড়ো
- সিকি চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
- আধা চা চামচ চাট মশলা
- ১ কাপ ভাত
- ১টা বড় পিঁয়াজ কুচি করা
- ১ টেবিল চামচ টাটকা ধনেপাতা কুচি
- লবণ স্বাদমতো
- ১ টেবিল চামচ বেসন
- ১ টেবিল চামচ চালের গুঁড়ো
- অর্ধেকটা লেবুর রস
- ডিপ ফ্রাই করার জন্য তেল

প্রণালী
১) একসাথে মাখিয়ে নিন ভাত, পিঁয়াজ, ধনেপাতা কুচি, লবণ, মরিচ, হলুদ, চাট মশলা, বেসন, চালের গুঁড়ো, পনির এবং লেবুর রস।
২) কড়াইতে তেল গরম করে নিন।
৩) ভাতের মিশ্রণ বলের আকারে গড়িয়ে নিন।
৪) ডিপ ফ্রাই করে নিন বলগুলো। সোনালি ও মুচমুচে করে ভেজে তুলুন। কিচেন টিস্যুতে তেল শুষে নিন।

গরম গরম পরিবেশন করুন কেচাপের সাথে। 

ভালো করে বুঝতে দেখে নিন রেসিপির ভিডিওটি।

 

মাত্র এক ঘণ্টায় কমে যাবে ২ পাউন্ড ওজন! ওজন বৃদ্ধি পাবার ফলে শুধুমাত্র সৌন্দর্য কমে যায় না বরং এতে স্বাস্থ্যের অনেক ক্ষতিসাধিত হয়। কারণ অতিরিক্ত ওজনের প্রধান কারণ অতিরিক্ত ফ্যাট। যা রক্তচাপের পাশাপাশি আমাদের শরীরের আরও বিভিন্ন ধরণের প্রক্রিয়ায় ক্ষতিসাধিত করে। তাই ডাক্তার অতিরিক্ত ওজনের রোগীদের আগে ওজন কমানোর নির্দেশ প্রদান করে।


আজ আমরা ওজন কমানোর একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করব। কিন্তু আগে থেকে জেনে রাখুন এই প্রক্রিয়ায় অবশ্যই আপনার পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করতে হবে। পানি কম পান করলে এই প্রক্রিয়া কোন কাজে আসবে না।

পানি ও শসার মিশ্রণ আমাদের শরীরের জন্য অত্যাধিক উপকারী একটি পানীয়। এই পানীয় আপনার ওজন কমাতে প্রাকৃতিকভাবে সাহায্য করবে।

প্রথমে একটি জগ নিন যা ২ লিটার পরিমাণ পানি বহন করতে পারে। এতে একটি শসা টুকরো টুকরো করে কেটে মিশিয়ে নিন। এবার, ১২ টি পুদিনা পাতা ও কিছু লেবুর টুকরো মেশানোর পর, ১ চা চামচ আদা থেঁতো করে মিশিয়ে নিন। সকল উপকরণ এক সাথে মিশিয়ে সারারাতের জন্য ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন। সকালে উঠে খালি পেটে আগে এক গ্লাস এই পানি পান করবেন।

আর মনে রাখবেন পানি পান করার ১ ঘণ্টা পর সকালের নাস্তা গ্রহণ করবেন। শুধুমাত্র তখনি এই পানীয় নিজের কাজ করা শুরু করব। এই পানীয় পান করার প্রথম দিন থেকে আপনি পার্থক্য বুঝতে পারবেন।

এতে ব্যবহৃত সকল উপাদান প্রাকৃতিকভাবে তৈরি তাই এই পানীয়র কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এটি আপনার ওজন কমানোর পাশাপাশি ইনিউন সিস্টেমও উন্নত করবে। সকাল থেকে এই ২ লিটার পানি সারাদিনে পান করে শেষ করবেন। পাশাপাশি আরও ৪ লিটার পানি পান করার চেষ্টা করুন।

আশ্চর্যজনক হলেও সত্যি যে, প্রথম দিন সকালে পান করার এক ঘণ্টা পরেই দেখবেন আপনার ওজন ২ পাউন্ড কমে গেছে। এভাবে প্রতিদিন একটু একটু করে ওজন কমিয়ে আপনি আপনার কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছে যাবেন।
–সূত্র: হেলদি বায়ো ফুড।

 

চিকেন চাপ রেস্টুরেন্টে গেলে অনেকেই এই খাবারটি অর্ডার করে থাকেন। পরোটা, নান রুটি অথবা পোলাও সবকিছুর সাথে খেতে দারুন লাগে এই খাবারটি। ভারতে একটু ভিন্নভাবে তৈরি করা হয় চিকেন চাপ। রোজায় সেহেরিতে হোক অথবা ঈদে তৈরি করে নিতে পারেন মজাদার এই খাবারটি। আসুন তাহলে চিকেন চাপের রেসিপিটি জেনে নেওয়া যাক।


উপকরণ:

৫০০ গ্রাম মুরগির মাংস (বড় করে কাটা)
জাফরন
লবণ
২ চা চামচ মরিচের গুঁড়ো
১/২ চা চামচ গোলমরিচের গুঁড়ো
২ চা চামচ ধনিয়া গুঁড়ো
১/২ চা চামচ চিনি
১ চা চামচ গরম মশলা
১টি ছোট পেঁয়াজের পেস্ট
১০০ মিলিগ্রাম টকদই
৫ টেবিল চামচ বেসন
১ টেবিল চামচ আদা রসুনের পেস্ট
তেল
২ টেবিল চামচ ঘি
১ চা চামচ গোলাপ জল

প্রণালী:

১। প্রথমে রান্না করার পাত্রে জাফরন গলানো পানি, লবণ, লাল মরিচ গুঁড়ো, গোলমরিচ গুঁড়ো, ধনিয়া গুঁড়ো, চিনি, গরম মশলার গুঁড়ো, পেঁয়াজের পেস্ট, টকদই, বেসন, আদা রসুনের পেস্ট ভাল করে মিশিয়ে নিন।
২। এরপর এর সাথে ৩ টেবিল চামচ তেল দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।
৩। মশলা তৈরি হয়ে গেলে এতে মুরগির টুকরো দিয়ে ৩০ মিনিট মেরিনেইট করার জন্য ফ্রিজে রেখে দিন।
৪। চুলায় প্যান গরম করতে দিন। প্যান গরম হয়ে আসলে এতে ঘি দিয়ে দিন।
৫। তারপর এতে মেরিনেইট করা মাংসের টুকরোগুলো দিয়ে দিন। সাথে মশলা এবং প্রয়োজন পড়লে সামান্য পানি দিয়ে দিতে পারেন।
৬। অল্প আঁচে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ৩০ মিনিট রান্না করুন।
৭। গোলাপ জল দিয়ে মাঝারি আঁচে আরও ৫ মিনিট রান্না করুন।
৮। ব্যস তৈরি হয়ে গেল মজাদার চিকেন চাপ।

ইউটিউব চ্যানেল: RASOI SMART - INDIAN RECIPES

 

বিস্কুট খেতে ছোট বড় সবাই বেশ পছন্দ করে। বিকেলের নাস্তায় হোক অথবা দুপুরে একুটখানি ক্ষুধা মেটাতেই হোক বিস্কুটের জুড়ি নেই। এই বিস্কুট যদি ঘরে তৈরি করা যায় তবে কেমন হয় বলুন তো? মাত্র এক মিনিটে আপনি তৈরি করে নিতে পারেন ভিন্ন ভিন্ন তিনটি স্বাদের কুকিস। আপনার ঘরে থাকা মাইক্রোওয়েভ দিয়ে তৈরি করা সম্ভব মজাদার এই কুকিস। কীভাবে? আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কুকিস তৈরির রেসিপিটি।


উপকরণ:

পিনাট বাটার মগ কুকিস
১ টেবিল চামচ মাখন
১ টেবিল চামচ ব্রাউন সুগার
১ টেবিল চামচ সাদা চিনি
১টি ডিমের কুসুম
১ টেবিল চামচ পিনাট বাটার
৩ টেবিল চামচ ময়দা
ওটমেইল এবং কিসমিস মগ কুকিস
১ টেবিল চামচ ফ্লেভার ওয়েল (নারকেল অথবা ভেজিটেবিল অয়েল)
১ টেবিল চামচ ব্রাউন সুগার
১ টেবিল চামচ সাদা চিনি
১ টেবিল চামচ অ্যাপেল সস
১/৪ চা চামচ ভ্যনিলা এসেন্স
এক চিমটি দারুচিনি গুঁড়ো
১/৪ কাপ ময়দা
১/৪ কাপ ওটসের গুঁড়ো
কিসমিস
চকলেট চিপ মগ কুকিস
১ টেবিল চামচ মাখন
১ টেবিল চামচ সাদা চিনি
১ টেবিল চামচ ব্রাউন সুগার
১/৪ চা চামচ ভ্যানিলা এসেন্স
১টি ডিমের কুসুম
৩ টেবিল চামচ ময়দা
এক চিমটি লবণ
২ টেবিল চামচ চকলেট চিপস


প্রণালী:

পিনাট বাটার কুকিস

১। একটি মগে মাখন এবং চিনি ভাল করে মিশিয়ে নিন।
২। এরসাথে ডিমের কুসুম এবং পিনাট বাটার মেশান। এরসাথে ময়দা দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।
৩। এবার এটি মাইক্রোওয়েভে হাই পাওয়ারে ৩০-৪০ সেকেন্ড বেক করতে দিন।
৪। বেক হয়ে গেল বের করে বাটার ক্রিম দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার পিনাট বাটার কুকিস।


ওটমিল এবং কিসমিস মগ কুকিস

১। প্রথমে কিছু ওটমিল গুঁড়ো করে নিন। 
২। এরপর একটি মগে ওটমিল গুঁড়ো, ময়দা, মাখন, ওটমিল, অ্যাপেল সসসহ সবগুলো উপাদান ভাল করে মিশিয়ে নিন।
৩। এবার এটি মাইক্রোওয়েভে ৩০-৪০ মিনিট বেক করুন।


চকলেট চিপস কুকিস

১। প্রথমে মগে মাখন এবং চিনি ভাল করে মেশান।
২। এর সাথে ডিমের কুসুম এবং ভ্যানিলা এসেন্স মিশিয়ে নিন।
৩। এরপর ময়দা, লবণ এবং চকলেট চিপস মিশিয়ে মাইক্রোওয়েভে ৪০-৬০ সেকেন্ড বেক করুন।
৪। ৩০-৪০ মিনিট পর চকলেট চিপস অথবা আইসক্রিম দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার চকলেট চিপস কুকিস।

ইউটিউব চ্যানেল: Gemma Stafford

পুরো রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে


আপনি যদি এসইও-তে ক্যারিয়ার গড়তে কিংবা এসইও সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তবে দৈনিক ইনকিলাবে প্রকাশিত "প্রতিনিয়ত চাহিদা বাড়ছে এসইওর" লিখাটি পড়তে পারেন। লিখাটি থেকে আপনি যে প্রশ্নগুলোর উত্তর জানতে পারবেনঃ 


 

 

১) এসইও কী এবং এর কাজ সম্পর্কে আলোচনা।
২) আপনি কীভাবে এই পেশার সাথে যুক্ত হলেন?
৩) এসইওতে খ-কালীন কাজের সুযোগ কেমন?
৪) এই পেশায় মাসে কত টাকা আয় করা সম্ভব?
৫) বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এসইও’র সম্ভাবনা ও ভবিষ্যত কেমন?
৬) নতুনরা কোথায় এবং কীভাবে শিখবে?


| অনলাইন সাইটের লিংকঃ https://goo.gl/eHXYPr
| ই-পেপারের লিংকঃ https://goo.gl/fKvrtK
| ভাল লাগলে লাইক, কমেন্ট এবং শেয়ার করতে ভুলবেন না।


আপনি যদি এসইও-তে ক্যারিয়ার গড়তে কিংবা এসইও সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তবে দৈনিক ইনকিলাবে প্রকাশিত আমাদের প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং ডিরেকেটর মোহাম্মাদ মেহেদি মেনাফা এর সাক্ষাৎকার "প্রতিনিয়ত চাহিদা বাড়ছে এসইওর" লিখাটি পড়তে পারেন। সময় উপযোগী এই লিখাটি প্রকাশিত হয়েছে দৈনিক ইনকিলাবের ক্যারিয়ার পাতায়, লিখাটি সম্পাদনা করেছেন নুরুল ইসলাম।
অসাধারন লিখাটি উপহার দেওয়ার জন্য দৈনিক ইনকিলাবের নুরুল ইসলাম ভাই কে ব্লাক আইজ ইন্সটিটিউট এর পক্ষ থেকে প্রান ঢালা শুভেচ্ছা।






Nurul Islam | Mehedi Menafa

আপনি যদি এসইও-তে ক্যারিয়ার গড়তে কিংবা এসইও সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হয়ে থাকেন তবে দৈনিক ইনকিলাবে প্রকাশিত মোহাম্মাদ মেহেদি মেনাফা (Mehedi Menafa) এর লিখা "প্রতিনিয়ত চাহিদা বাড়ছে এসইওর" লিখাটি পড়তে পারেন। সময় উপযোগী এই লিখাটি প্রকাশিত হয়েছে দৈনিক ইনকিলাবের ক্যারিয়ার পাতায়, লিখাটি সম্পাদনা করেছেন নুরুল ইসলাম।


 

| ই-পেপারের লিংকঃ https://goo.gl/fKvrtK
| অনলাইন সাইটের লিংকঃ https://goo.gl/eHXYPr
| ভাললেগে থাকলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
| লাইক অথবা মন্তব্য করে যে কোন প্রশ্ন জানতে পারেন। 

 

মোহাম্মাদ মেহেদি মেনাফা, একজন এসইও এক্সপার্ট, ওয়েবসাইট ডিজাইনার এবং ডেভলপার। ২০০৯ সাল থেকে তিনি এই সেক্টরে কাজ করছেন। বর্তমানে তিনি ব্লাক আইজ লিমিটেডের এমডি। নিজে কাজ করার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে এসইওতে যারা কাজ করতে আগ্রহী, তাদের প্রশিক্ষণও দিয়ে থাকেন। এসইও’র নানা বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা বলেন নুরুল ইসলাম।

Nurul Islam | Mehedi Menafa

Perfect-way-to-create-a-shop-just-5-minutes-Butter-Video

সকালের নাস্তায় পাউরুটির সাথে অথবা অন্য কোন খাবারের স্বাদ বৃদ্ধিতে মাখনের জুড়ি নিই। প্রায় বাসায় সকালের নাস্তায় মাখন পাউরুটি খাওয়া হয়। বাজারের মাখন তো অনেক খেলেন এবার বাসায় নিজে তৈরি করে নিন বাজারের মত মাখন। তাও আবার মাত্র দুটি উপাদান দিয়ে। ভাবছেন কীভাবে? তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক মাখন তৈরির সহজ রেসিপিটি।  


উপকরণ:

১টি বড় বল দুধের সর অথবা মালাই
পানি

প্রণালী:
১। প্রতিদিনের দুধ থেকে মালাই বা দুধের সর আলাদা করে জমিয়ে রাখুন। নরমাল ফ্রিজে এই মালাই ২-৩ দিন রাখতে পারবেন। তবে ড্রিপ ফ্রিজে এটি ১০-১৫ দিন পর্যন্ত সংরক্ষণ করতে পারবেন।
২। এবার একটি ফুড প্রসেসর নিন। ফুড প্রসেসরে মালাই দিয়ে দিন। এর সাথে আধা কাপ পানি দিয়ে ব্লেন্ড করুন।
৩। ২ মিনিট ব্লেন্ড করুন। ব্যস তৈরি হয়ে গেল মাখন।
৪। মাখন কিছুটা শক্ত করতে চাইলে এতে বরফ পানি মিশিয়ে আবার ব্লেন্ড করুন। এতে মাখন জমাট বাঁধবে। আপনি যদি মাখন লবাণক্ত করতে চান, তবে এর সাথে এক চিমটি লবণ দিয়ে দিতে পারেন।
৫। এবার একটি পাত্রে মাখন ঢেলে নিন। মাখন হাত দিয়ে বল বানিয়ে বাড়তি পানি বের করে ফেলুন। এই বাটার মিল্ক আপনি বিভিন্ন রান্নায় ব্যবহার করতে পারবেন।
৬। এবার ফ্রিজে রেখে সংরক্ষণ করুন।

টিপস:

১। মালাই বা দুধের সরের পরিবর্তে হেভি ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

ইউটিউব চ্যানেল:Nisha Madhulika

পুরো রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে

সারাদিন পার করে ইফতারে একটু মিষ্টি খাবার খেতে ভালোবাসেন সবাই। ফলমূলের পাশাপাশি তাই ডেজার্টের কদরটাও কম নয়। আমের এই মৌসুমে চলুন দেখে নিই আমের স্বাদে দারুণ একটি সেমাইয়ের রেসিপি। খুব কম উপকরণের সহজেই তৈরি হবে এই খাবারটি। যারা সাধারণ দুধ-সেমাই তৈরি করতে পারেন, তারা এটাও তৈরি করতে পারবেন অনায়াসে।


উপকরণ:
- ১ কাপ আমের পাল্প
- ১ লিটার দুধ
- পৌনে এক কাপ সেমাই
- ১ টেবিল চামচ ঘি
- পৌনে এক চা চামচ এলাচি গুঁড়ো
- ৬ টেবিল চামচ চিনি
- কাঠবাদাম ও পেস্তাবাদাম কুচি
- গার্নিশ করার জন্য আমের টুকরো

প্রণালী:
১) প্যান গরম করে ঘি দিন এতে। ঘি গরম হয়ে এলে এতে সেমাই দিয়ে নেড়েচেড়ে ভেজে নিন। সেমাইয়ের রং পরিবর্তন হয়ে এলে এতে দুধ দিয়ে ফুটিয়ে নিন।
২) দুধ ফুটে গেলে এতে চিনি দিয়ে দিন। চিনি গলে গেলে চুল বন্ধ করে এলাচি গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। ঠাণ্ডা হয়ে এলে আমের পাল্প দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।
৩) ঠাণ্ডা করে ফ্রিজে রাখুন। পরিবেশন করুন ওপরে বাদাম কুচি এবং আমের টুকরো দিয়ে।

ভালো করে বুঝতে দেখে নিন রেসিপির ভিডিওটি-




সবকিছু ধীরে ধীরে অনলাইন কেন্দ্রিক হয়ে যাওয়ায় ইমেইল, ফেসবুক থেকে অনলাইন ব্যাংকিং সব কিছুতেই পাসওয়ার্ডের প্রয়োজন হয়। কিন্তু দুর্বল পাসওয়ার্ড বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারে। সম্প্রতি বিশ্বব্যাপী এমনই ২৫টি পাসওয়ার্ড চিহ্নিত হয়েছে।

কখনই ব্যবহার করবেন না যে ২৫টি পাসওয়ার্ড

 উন্নত পাসওয়ার্ড দেওয়ার অভ্যাস তৈরি করতে ২০১৩ সাল থেকে ৫ মে বিশ্ব পাসওয়ার্ড দিবস পালন করা হচ্ছে। দুর্বল পাসওয়ার্ড ব্যবহার বন্ধ করতে প্রচারও চালানো হচ্ছে বিভিন্ন সংস্থার পক্ষ থেকে। সম্প্রতি স্প্ল্যাশডাটা নামে একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা খারাপ বা দুর্বল পাসওয়ার্ডের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে। তাতে দেখা গেছে, ‘পাসওয়ার্ড’ ও ‘১২৩৪৫৬’ সবথেকে বেশি ব্যবহৃত দুর্বল পাসওয়ার্ড। এমনই মোট ২৫টি পাসওয়ার্ডকে খারাপ বলে চিহ্নিত করেছে ওই সংস্থা। বলা হয়েছে, ২০১৫ সালে অনলাইন তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ার বিভিন্ন ঘটনার উপরে ভিত্তি করেই এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে।
 123456 
Password
 12345678
 QWERTY
 12345
 123456789
 Football
 1234
 1234567 
Baseball
 Welcome 
1234567890
 abc123 
111111
 1qaz2wsx
 dragon
 master 
monkey
 letmein 
login 
princess 
qwertyuiop 
solo
 passw0rd
 starwars 



মাত্র ৮৭০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে সেলফি তোলার মোবাইল সেট। বিশ্বখ্যাত আইটেল মোবাইল কম্পানি এই সেট সম্প্রতি বাজারে এনেছে এই সেট। সাশ্রয়ী মূল্যে সাধারণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকা ৫টি মোবাইল বর্তমানে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। যার সর্বোচ্চ মূল্য ৬ হাজার ৪০০ টাকা পর্যন্ত। তবে আগামীতে এ কম্পানি আরো বেশি দামের মোবাইল বাজারজাত করবে।

  মাত্র ৮৭০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে সেলফি তোলার মোবাইল সেট। বিশ্বখ্যাত আইটেল মোবাইল কম্পানি এই সেট সম্প্রতি বাজারে এনেছে এই সেট। সাশ্রয়ী মূল্যে সাধারণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকা ৫টি মোবাইল বর্তমানে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। যার সর্বোচ্চ মূল্য ৬ হাজার ৪০০ টাকা পর্যন্ত। তবে আগামীতে এ কম্পানি আরো বেশি দামের মোবাইল বাজারজাত করবে।  আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কম্পানির পক্ষে এসব তথ্য জানানো হয়। এসময় কম্পনির নানা তথ্য তুলে ধরেন কান্ট্রি ম্যানেজার শ্যামল সাহা। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন কম্পানির সেলস ম্যানেজার স্টেফেন গুও, জেরি হে ও টিম লিও এবং মার্কেটিং ম্যানেজার মিথুন হালদার।  সংবাদ সম্মেলনে শ্যামল সাহা বলেন, আইটেল স্বল্পমুল্যে বিভিন্ন মডেলসহ স্মার্ট ফোনও দিচ্ছে। প্রান্তিক অঞ্চলকে টার্গেট করে ইতোমধ্যে প্রত্যন্ত অঞ্চলেও চালু করা হয়েছে সার্ভিস সেন্টার। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী অত্যাধুনিক মোবাইল হ্যান্ডসেটের জগতে আইটেল অগ্রদুত। যার মূল লক্ষ্য পৃথিবীর সকল মানুষকে যোগাযোগের নিবিড় বান্ধনে আবদ্ধ করা। এ ব্র্যান্ডের মূলনীতি হলো সম্পৃক্ত হও এবং উপভোগ কর। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে আমরা ৫ মাস আগে কার্যক্রম শুরু করেছি। গুণগত মান ও সেবা নিশ্চিত করাই আমাদের মূল লক্ষ্য।    সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ট্রানশান হোল্ডিং-এর তৈরি এই সেটের উন্নত প্রযুক্তি ও গুণগত মান নিশ্চিত করে কম্পানি ফোন সেট বাজারে ছেড়েছে। সর্বোচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ক্যামেরা, দীর্ঘ মেয়াদী ব্যাটারি ও জাভা সংযুক্ত উৎকৃষ্ট মানের ফিচার সম্পন্ন হওয়ায় এই হ্যান্ডসেট ব্যবহারে নতুন অভিজ্ঞতা হবে। তিনি আরো বলেন, গত দশকে ট্রানশান হোল্ডিং ফ্রান্স, নাইজেরিয়া, কোনিয়া, সৌদি আরব, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম, চায়না, হংকং প্রভৃতি দেশে ৪০ এর অধিক অফিস স্থাপন করেছে। এই কম্পানি বিশ্বব্যাপী মোবাইল শিফটমেন্টে ৭ম স্থান অধিকার করেছে।


আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কম্পানির পক্ষে এসব তথ্য জানানো হয়। এসময় কম্পনির নানা তথ্য তুলে ধরেন কান্ট্রি ম্যানেজার শ্যামল সাহা। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন কম্পানির সেলস ম্যানেজার স্টেফেন গুও, জেরি হে ও টিম লিও এবং মার্কেটিং ম্যানেজার মিথুন হালদার।

সংবাদ সম্মেলনে শ্যামল সাহা বলেন, আইটেল স্বল্পমুল্যে বিভিন্ন মডেলসহ স্মার্ট ফোনও দিচ্ছে। প্রান্তিক অঞ্চলকে টার্গেট করে ইতোমধ্যে প্রত্যন্ত অঞ্চলেও চালু করা হয়েছে সার্ভিস সেন্টার। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাপী অত্যাধুনিক মোবাইল হ্যান্ডসেটের জগতে আইটেল অগ্রদুত। যার মূল লক্ষ্য পৃথিবীর সকল মানুষকে যোগাযোগের নিবিড় বান্ধনে আবদ্ধ করা। এ ব্র্যান্ডের মূলনীতি হলো সম্পৃক্ত হও এবং উপভোগ কর। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে আমরা ৫ মাস আগে কার্যক্রম শুরু করেছি। গুণগত মান ও সেবা নিশ্চিত করাই আমাদের মূল লক্ষ্য।



সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ট্রানশান হোল্ডিং-এর তৈরি এই সেটের উন্নত প্রযুক্তি ও গুণগত মান নিশ্চিত করে কম্পানি ফোন সেট বাজারে ছেড়েছে। সর্বোচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন ক্যামেরা, দীর্ঘ মেয়াদী ব্যাটারি ও জাভা সংযুক্ত উৎকৃষ্ট মানের ফিচার সম্পন্ন হওয়ায় এই হ্যান্ডসেট ব্যবহারে নতুন অভিজ্ঞতা হবে। তিনি আরো বলেন, গত দশকে ট্রানশান হোল্ডিং ফ্রান্স, নাইজেরিয়া, কোনিয়া, সৌদি আরব, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম, চায়না, হংকং প্রভৃতি দেশে ৪০ এর অধিক অফিস স্থাপন করেছে। এই কম্পানি বিশ্বব্যাপী মোবাইল শিফটমেন্টে ৭ম স্থান অধিকার করেছে।


Cold-Stone-kremarite-offer-Iftar

আমেরিকান আইসক্রিম ব্র্যান্ড কোল্ড স্টোন ক্রেমারিতে রমজান উপলক্ষে চলছে বিশেষ ছাড়। একটি আইসক্রিম কিনলে আরেকটি পাওয়া যাবে বিনা মূল্যে। এ ছাড়া সাহরিতে দুটি প্যাকেজ কিনলেই একটি মিলবে বিনা মূল্যে। ইফতারির আয়োজনেও থাকছে মজাদার নানা পদ।
                                                                                                                    
                                                                                                                                 -শাম্মী আখতার

Mehdi-Festival


১৬ জুন থেকে গৃহসুখনে শুরু হচ্ছে সপ্তাহব্যাপী মেহেদি উৎসব। এই সময়ের মধ্যে উৎসবের রঙে রাঙিয়ে নিতে পারেন নিজেকে। এ ছাড়া গৃহসুখনে সৌন্দর্য ও হস্তশিল্প কোর্সে প্রশিক্ষণ চলছে।

                                                                                                                  -শাম্মী আখতার

Discount-saundaryacarcaya



১৭ রমজান পর্যন্ত রেড বিউটি স্যালনে চলছে সৌন্দর্যচর্চার ওপর বিশেষ ছাড়। ছাড়ে ১ হাজার ৫০০ টাকায় মিলবে ফেসিয়াল ও পেডিকিউর-ম্যানিকিউর। এ ছাড়া মাথা ও পায়ের ম্যাসাজ মাত্র ১ হাজার টাকায়।

                                                                                                                                  -শাম্মী আখতার

ভাত ছাড়া বাঙালীর বেঁচে থাকা দায়। এদেশের সব বাড়িতেই নিত্যদিন ভাত রান্না হবেই, আর মাঝে মাঝেই বেঁচে যায় অনেকটা ভাত। এই ভাত কী করেন আপনি? হয়তোবা গৃহকর্মীকে দিয়ে দেন, দরিদ্র কোনো মানুষকে দিয়ে দেন অথবা পুরোটাই ফেলনা যায়। আর না। এই বাসি ভাত দিয়েই তৈরি করে ফেলুন দারুণ মজাদার একটি আইটেম। খুব কম খরচে মাত্র আধা ঘন্টায় তৈরি করে ফেলতে পারবেন দারুণ বাসি ভাতের কাটলেট।

Cutlet-with-rice-will-be-stale


উপকরণ

-   আধা কাপ বাসি ভাত
-   তিনটা মাঝারি আলু, সেদ্ধ করে খোসা ছাড়ানো
-   এক চা চামচ জিরা গুঁড়ো
-   এক চা চামচ ধনে গুঁড়ো
-   এক চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
-   সিকি চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
-   আধা চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো
-   এক চা চামচ চাট মশলা
-   লবণ স্বাদমতো
-   সিকি কাপ টাটকা ধনেপাতা কুচি
-   ১/২ টেবিল চামচ কর্ন ফ্লাওয়ার
-   ব্রেড ক্রাম্ব প্রয়োজনমতো
-   ভাজার জন্য তেল
প্রণালী

১) সেদ্ধ আলুগুলোকে গ্রেট করে একটা বোলে রাখুন। এতে ভাত, জিরা, ধনে, মরিচ, হলুদ, গরম মশলা, চাট মশলা, লবণ এবং ধনেপাতা কুচি দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন। সব মিশে গেলে কর্ন ফ্লাওয়ার দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

২) মিশ্রণটিকে ছোট ছোট ভাগ করে কাটলেটের আকৃতি দিন। এগুলোকে গড়িয়ে নিন ব্রেড ক্রাম্বের ওপর।

৩) ননস্টিক কড়াই/তাওয়া গরম করে নিন। অল্প করে তেল গরম করে কাটলেটগুলোকে উল্টেপাল্টে ভেজে নিন মাঝারি আঁচে। সোনালি রঙ ধরলে নামিয়ে নিন। টিস্যু পেপারে রাখুন যাতে তেলটা শুষে নেয়।

প্রতিটা কাটলেটের ওপর পিঁয়াজের রিং, চাটনি এবং কচি ধনেপাতা দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।
                                                                                                                        -শাম্মী আখতার

আম খেতে সবাই পছন্দ করে। আমের স্বাস্থ্য উপকারিতার বিষয়েও কারো সন্দেহ নেই। কিন্তু আম পাতাও স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারি যা আনেকেই জানেন না। আম পাতা ভিটামিন, এনজাইম, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং খনিজ উপাদানে ভরপুর। আম পাতায় মেঞ্জিফিরিন নামক সক্রিয় উপাদান থাকে যার অপরিমেয় স্বাস্থ্য উপকারিতা আছে। কচি আমের পাতা সিদ্ধ করে সেই পানি পান করা বা পাতা গুরু করে খাওয়া যায়। আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে বিভিন্ন রোগ নিরাময়ে আম পাতার  ব্যবহার বর্ণনা করা হয়েছে। আম পাতার স্বাস্থ্য উপকারিতাগুলো সম্পর্কে জেনে নিই চলুন।

  7-Extraordinary-Health-Benefits-of-mango-leaves


১। ডায়াবেটিস নিরাময়ে       

কচি আমের পাতায় ট্যানিন নামক অ্যান্থোসায়ানিডিন থাকে যা প্রারম্ভিক ডায়াবেটিস নিরাময়ে খুবই কার্যকরী। আম পাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করে একটি বৈয়মে রেখে দিন। প্রতিদিন ১ চামচ আমপাতার গুঁড়ো গরম পানিতে সিদ্ধ করে চায়ের মত পান করতে পারেন অথবা তাজা পাতা পানিতে ভিজিয়ে সারারাত রেখে দিন, সকালে পানিটি ছেঁকে নিয়ে পান করুন। ডায়াবেটিসের সূত্রপাত হয়েছে এমন রোগীদের জন্য আম পাতা অনেক উপকারি। শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে ও হাইপারগ্লাইসেমিয়া কমাতে সাহায্য করে কচি আমপাতা।

২। হাইপারটেনশন কমায়

আম পাতায় হাইপোট্যান্সিভ উপাদান আছে যা উচ্চ রক্তচাপ কমতে সাহায্য করে। উচ্চ রক্তচাপ কমানোর জন্য তিন সপ্তাহ যাবত প্রতিদিন কয়েকবার আম পাতার চা পান করুন।  

৩। আমাশয় ভালো করে

আম পাতা আমাশয় নিরাময়ে কাজ করে যা ঐতিহ্যগতভাবে ব্যবহার হয়ে আসছে। রোদ থেকে দূরে ছায়াতে রেখে আম পাতা শুকিয়ে গুঁড়া করে নিয়ে মসৃণ পাউডার তৈরি করা হয়। আন্ত্রিক রোগ নিরাময়ের জন্য দিনে কয়েকবার এই পাউডার খেতে হবে।

৪। আঁচিল নিরাময়ে

পরিপক্ক আম পাতা পুড়িয়ে কালো করে গুঁড়া করে নিন। সামান্য পানি মিশিয়ে পেস্টের মত তৈরি করে আঁচিলের উপরে লাগালে আঁচিল দূর হবে। আঘাত প্রাপ্ত স্থানে রক্ত বন্ধ করার জন্যও এই পেস্ট ব্যবহার করা যায়।

৫। উদ্বিগ্নতা কমায়

আম পাতা ভেজানো পানি ধীরে ধীরে চুমুক দিয়ে খেলে শান্ত বা স্থির হতে সাহায্য করে। যেহেতু আম পাতায় রক্ত চাপ কমানোর উপাদান আছে তাই এটি অ্যাংজাইটি দূর করতেও খুব ভালো কাজ করে।

৬। কিডনি ও পিত্তপাথর অপসারণ করে

আম পাতার চা কিডনি ও পিত্তপাথর ভাঙ্গতে ও দেহ থেকে বাহির হয়ে যেতে সাহায্য করে। পাথর অপসারণের জন্য এক গ্লাস পানিতে আম পাতা চূর্ণ মিশিয়ে পান করুন।

৭। মাড়ির সমস্যায়

আম পাতার ছাই দাঁত ব্যথা কমতে সাহায্য করে। আম পাতা সিদ্ধ পানি দিয়ে কুলকুচি করলে মুখের বিভিন্ন প্রকার সমস্যায় উপকার পাওয়া যায়।      

আম পাতা বিভিন্নভাবে স্বাস্থ্যের উপকার করে থাকে। তবে আম পাতার চায়ে আপনার অ্যালার্জির সমস্যা হয় কিনা তা নিশ্চিত হওয়া প্রয়োজন। আম পাতায় আম গাছের আঠা বা কষ আছে কিনা দেখে নিতে হবে, তা না হলে এই কষ শরীরে  প্রবেশ করলে আপনি অসুস্থ হয়ে পড়তে পারেন। তাছাড়া এই কষ ত্বকে লাগলে ত্বক পুড়ে যেতে পারে।

                                                                                                                               -শাম্মী আখতার

 

সচরাচর পালা-পার্বন ছাড়া মাটন রান্না হয়না। এর কারণ অনেকেই মাটন রান্না করতে জানেন না, সাহসও পান না তাই। আর এই রান্নায় যে অনেকগুলো উপকরণ লাগে তা বলাই বাহুল্য। আজ জেনে নিন মাটন রান্নার খুব সহজ একটি রেসিপি।


উপকরণ

    - ৭৫০ গ্রাম মাটন চপ
    - ৩/৪ টেবিল চামচ তেল
    - ৪/৫টা লবঙ্গ
    - ৭/৮টা গোলমরিচ
    - ৩/৪টা এলাচি
    - ১ ইঞ্চি পরিমাণ দারুচিনি
    - ৩/৪টা বড় পিঁয়াজ স্লাইস করা
    - দের টেবিল চামচ আদা-রসুন বাটা
    - ৩/৪টা কাঁচামরিচ চেরা
    - আধা চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
    - ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
    - ১টা লেবুর রস
    - আধা কাপ টমেটো পিউরি
    - দেড় চা চামচ গরম মশলা গুঁড়ো
    - লবণ স্বাদমতো
    - ২ টেবিল চামচ পুদিনা পাতা কুচি
    - আধা কাপ দই


প্রণালী
১) একটি নন-স্টিক প্যানে তেল গরম করে নিন। এতে লবঙ্গ, গোলমরিচ, এলাচি এবং দারুচিনি দিয়ে সাঁতলে নিন।
২) তেলে পিঁয়াজ দিয়ে দিন, স্বচ্ছ হয়ে না আসা পর্যন্ত ভাজুন। এরপর মাটন চপ দিয়ে দিন। এতে আদা-রসুন বাটা দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে নিন মাংসে। ঢাকনা চাপা দিয়ে রান্না হতে দিন ৫ মিনিট।
৩) এরপর এতে কাঁচামরিচ দিয়ে আবার ঢেকে দিন ১০-১৫ মিনিটের জন্য। এরপর এতে হলুদ গুঁড়ো, মরিচ গুঁড়ো এবং লেবুর রস দিয়ে মিশিয়ে নিন।
৪) টমেটো পিউরি দিন, মিশিয়ে রান্না হতে দিন ২-৩ মিনিট। এরপর গরম মশলা গুঁড়ো এবং লবণ দিয়ে মিশিয়ে নিন। এরপর পুদিনা পাতা এবং দই দিন। ভালো করে মিশিয়ে রান্না হতে দিন। মাংস পুরোপুরি রান্না হয়ে এলে নামিয়ে ফেলুন।

ওপরে ধনেপাতা কুচি ছিটিয়ে পরিবেশন করুন গরম গরম। 

ভালো করে বুঝতে দেখে নিন রেসিপির ভিডিওটি।

 
Adding-life-to-taste-different-dates-milkaseka-Iftar-Fun-Video

সারাদিন রোজা রাখার পর প্রাণ জুড়াতে এক গ্লাস ঠান্ডা শরবতের জুড়ি নেই। শরবতের পরিবর্তে অনেকেই বিভিন্ন ফলের জুস পান  করে থাকেন। প্রতিদিন একইরকম পানীয় পান করতে করতে একঘেয়ামি চলে আসে। তাই পানীয়তে চাই ভিন্ন কিছু, নতুন কিছু। আমের জুস, কলার জুস অথবা কমলার জুস অনেক তো হল, এইবার তৈরি করুন মজাদার খেজুরের মিল্কশেক। মজাদার এই মিল্কশেকটি অল্প কিছু উপাদান দিয়ে তৈরি করা সম্ভব। ইফতারিতে ঝটপট তৈরি করুন খেজুর মিল্কশেক।


উপকরণ:

১৫ থেকে ২০টি খেজুর
৩ থেকে ৪ কাপ দুধ
৭-৮টি দারুচিনি গুঁড়ো
বরফের টুকরো

প্রণালী:

১। প্রথমে খেজুরের ভিতর থেকে বীচি আলাদা করে নিন। এলাচের খোসা ছাড়িয়ে গুঁড়ো করে নিন।
২। এইবার ব্লেন্ডারে খেজুর, এলাচ গুঁড়ো, দুধ এবং বরফের টুকরো দিয়ে ব্লেন্ড করুন।
৩। খেজুর, দুধ ভাল করে ব্লেন্ড না হওয়া পর্যন্ত ব্লেন্ড করতে থাকুন।
৪। পরিবেশন পাত্রে ঢেলে বাদাম কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন ভিন্ন স্বাদের মজাদার খেজুরের মিল্কশেক।

টিপস:

১। আপনি চাইলে খেজুরের সাথে একটি পাকা কলা, কাঠবাদাম কুচিও যোগ করতে পারেন। এটি মিল্কশেকের স্বাদ বৃদ্ধির সাথে সাথে এর পুষ্টিগুণ করে দেবে দ্বিগুণ।

ইউটিউব চ্যানেল: VentunoHomeCooking

পুরো রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে

 

দিনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খাবার হল সকালের নাস্তা। সকালের খাবার আপনাকে সারাদিনের কাজের শক্তি দিয়ে থাকে। অথচ ওজন কমানোর জন্য অনেকেই সকালের নাস্তা খাওয়া বাদ দিয়ে দেন। দিনের শুরুতে এমন কোন খাবার যদি খাওয়া যায় যা আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করবে তবে কেমন হয়? পুষ্টিবিদগণ সকালের নাস্তায় স্বাস্থ্যকর খাবার রাখার পরামর্শ দেন। সকালে নাস্তায় রাখতে পারেন পুষ্টিকর কলার প্যানকেক। মজাদার স্বাস্থ্যকর এই খাবারটি পুষ্টিগুণ জেনে নেওয়া যাক।


যা যা লাগবে:

২টি ডিম
১/২ কাপ পাকা কলার পেস্ট
সামান্য দারুচিনির গুঁড়ো (ইচ্ছা)

যেভাবে তৈরি করবেন:

১। একটি পাত্রে কলা এবং ডিম ভাল করে মিশিয়ে নিন।
২। চুলায় মাঝারি আঁচে তেল গরম হয়ে আসলে এতে মিশ্রণটি কেকের আকারে দিয়ে দিন। কেকের এক পাশ ফুলে উঠলে অপর পাশ পরিবর্তন করুন।
৩। দুই পাশ হয়ে গেলে নামিয়ে ফেলুন।

কার্যকারিতা:

ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, ওমেগা-থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড এবং প্রোটিন যা ওজন কমাতে সাহায্য করে। শরীরে ভাল কলেস্টেরল তৈরি করে এবং হৃদরোগ প্রতিরোধ করে থাকে।

পাকা কলাতে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় অ্যান্টি অক্সিডেন্ট, ফাইবার, মিনারেল, ভিটামিন, প্রোটিন, ভিটামিন বি৬, ম্যাগনাসিয়াম, কপার, পটাশিয়াম ভিটামিন সি ইত্যাদি। এটি রক্তে চিনির পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করে। কলাতে থাকা ফাইবার ক্ষুধা লাগা কমিয়ে পেট অনেকক্ষণ ভরিয়ে রাখে।  কলার পটাশিয়াম উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধ করে।

সকালের নাস্তায় কলার প্যানকেক রাখুন, এটি আপনার ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করবে।

পুরো পদ্ধতিটি দেখে নিতে পারেন ছোট এই ভিডিওতে

Shrimp-with-garlic-shrimp-and-fish-are-cooked-in-different-flavors-recipe-and-video

চিংড়ি মাছটি পছন্দ করেন এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া ভার। প্রায় সবাই চিংড়ি এবং চিংড়ির তৈরির খাবার খেতে পছন্দ করেন। চিংড়ির মালাইকারি, চিংড়ি দোপেঁয়াজি, চিংড়ি ভুনা খেতে খেতে একোঘেয়েমী চলে এসেছে? নতুন কোন চিংড়ির রেসিপি খুঁজছেন? তাহলে আজকের রেসিপিটি আপনার জন্য। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক ভিন্ন স্বাদের রেসিপি গার্লিক শ্রিম্প।


উপকরণ:

    ১/২ কেজি চিংড়ি মাছ
    ১/২ কাপ অলিভ অয়েল
    ১/২ কাপ রসুন কুচি
    ১ চা চামচ লাল শুকনো মরিচ গুঁড়ো
    ২ চা চামচ পাপরিকা
    লবণ স্বাদমত
    ৩-৫ টেবিল চামচ লেবুর রস
    ১/২ কাপ পার্সলি/ধনেপাতা কুচি

প্রণালী:

১। চিংড়ি মাছে খোসা ছড়িয়ে পরিষ্কার করে মাথা ফেলে দিন।
২। মাঝারি আঁচে প্যানে অলিভ অয়েল গরম করতে দিন।
৩। তেল গরম হয়ে আসলে এতে লাল শুকনো মরিচ গুঁড়ো, রসুন কুচি দিয়ে এক মিনিট ভাজুন।
৪। তারপর এতে চিংড়ি মাছগুলো দিয়ে মাঝারি আঁচে ভাজুন।
৫। এটি ৩ মিনিট রান্না করুন। খুব বেশি সময় ধরে রান্না করা থেকে বিরত থাকুন। বেশি সময় রান্না করলে চিংড়ি শক্ত রাবারের মত হয়ে যাবে।
৬। এর সাথে পাপরিকা, লবণ এবং গোলমরিচ গুঁড়ো দিয়ে দিন।
৭। মাছ সিদ্ধ হয়ে আসলে এতে লেবুর রস , পার্সলি পাতা কুচি দিয় দিন।
৮। সবগুলো উপাদান ভাল করে নেড়ে নামিয়ে ফেলুন।
৯। ভাত অথবা পোলাও এর সাথে পরিবেশন করুন মজাদার গার্লিক শ্রিম্প।

টিপস:

১। রসুনের পরিমাণটি আপনি নিজের স্বাদমতো আরও বাড়িয়ে দিতে পারেন।


ইউটিউব চ্যানেল:Chef Buck

পুরো রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে

Different-ways-of-looking-for-the-egg-korma-recipe-and-video

কোর্মা খাবারটি নাম শুনলে চোখের সামনে ভেসে উঠে মুরগির কোর্মা। অনেকে আবার মাছের কোর্মা, ডিমের কোর্মা রান্না করে থাকেন। পোলাওয়ের সাথে ডিমের কোর্মা খেতে দারুন লাগে। এই ডিমের কোর্মাটি এইবার রান্না করুন একটু ভিন্ন ভাবে।


উপকরণ:

৪টি সিদ্ধ ডিম
৬-৭টি কাঠবাদাম
১ চা চামচ শুকনো তরমুজের বীচি
৯-১০টি কাজুবাদাম
১ চা চামচ শুকনো পেঁপে বীচি
১ টেবিল চামচ ভাজা পেঁয়াজ
১ টেবিল চামচ তেল
১টি তেজপাতা
৩-৪টি লবঙ্গ
১টি এলাচ
৩-৪টি দারুচিনি
১ চা চামচ জিরা
১ টেবিল চামচ আদা রসুনের পেস্ট
১/৪ কাপ টমেটো পিউরি
১ চা চামচ ধনিয়া গুঁড়ো
১/২ চা চামচ জিরা গুঁড়ো
২ চিমটি হলুদের গুঁড়ো
১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
৩ টেবিল চামচ টকদই

লবণ

প্রণালী:

১। কাঠবাদাম, মিষ্টি কুমড়োর শুকনো বীচি, কাজুবাদাম এবং পেঁপের শুকনো বীচি গরম পানিতে ১৫ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন।
২। তারপর এটি পেঁয়াজ বেরেস্তার সাথে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে পেস্ট করে নিন।
৩। এরপর চুলায় প্যান দিয়ে এতে তেল, তেজপাতা, লবঙ্গ, দারুচিনি এবং এলাচ দিয়ে দিন।
৪। তারপর এতে জিরা, আদা রসুনের পেস্ট, টমেটো পিউরি এবং ব্লেন্ড করা পেস্ট, ধনিয়া গুঁড়ো, জিরা গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, মরিচ গুঁড়ো এবং লবণ দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।
৫। এটি জ্বাল হয়ে আসলে এতে টকদই দিয়ে ২৫ মিনিট জ্বাল দিন।
৬। এরপর আরেকটি প্যানে তেল দিয়ে ডিমগুলো ভেজে নিন। এর সাথে উপরে হলুদ গুঁড়ো, মরিচ গুঁড়ো এবং লবণ ছিটিয়ে দিন। 
৭। এবার পরিবেশন প্লেটে কোর্মা মশলা দিয়ে দিন। তার উপর ভাজা ডিম দিয়ে উপরে মশলা এবং ধনে পাতা দিয়ে পরিবেশন করুন।

ইউটিউব চ্যানেল: VahChef

পুরো রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে

বাঙালীদের ইফতারে পেঁয়াজু, বেগুনি, বুট, আলুর চপ বেশিই বেশি দেখা যায়। তবে স্বাদের ভিন্নতার জন্য কখনও কখনও কাবাব, পরোটা, চিকেন পাফ, হালিম ইত্যাদি তৈরি করা হয়। তবে এই খাবারগুলো তৈরি বেশ সময়সাপেক্ষ এবং ঝামেলাময়। ইফতারে অনেকেই খোঁজেন ঝটপট সহজ কোন রান্না। এমনি একটি রান্না হল চিজ বল। সহজ অল্প সময়ে তৈরি করা সম্ভব এই খাবারটি।


উপকরণ:

২ কাপ পনির কুচি
১ কাপ ব্রেড ক্রাম্বস
তেল
১ টেবিল চামচ কর্ণ ফ্লাওয়ার
২ টেবিল চামচ ময়দা
১.৫ ইঞ্চি আদা কুচি
১/৪ চা চামচ গোল মরিচ গুঁড়ো
লবণ স্বাদমত
২ চা চামচ লেবুর রস
১ চিমটি বেকিং সোডা
২টি কাঁচা মরিচ কুচি
১/৪ চা চামচ লাল মরিচ গুঁড়ো
১/৪ চা চামচ জিরা গুঁড়ো
১ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি

প্রণালী:

১। একটি পাত্রে পনির কুচি, ব্রেড ক্রাম্বস, ময়দা, আদা কুচি, গোল মরিচ গুঁড়ো, লবণ, লেবুর রস, বেকিং সোডা, কাঁচা মরিচ কুচি, মরিচ গুঁড়ো, জিরা গুঁড়ো এবং ধনেপাতা কুচির সাথে অল্প পানি মিশিয়ে ডো তৈরি করে নিন।
২। ডোটি দিয়ে ছোট ছোট বল তৈরি করুন।
৩। চুলায় তেল গরম করতে দিন। তেল গরম হয়ে আসলে এতে বলগুলো দিয়ে দিন।
৪। মাঝারি আঁচে বলগুলো ভাজুন। বাদামী রং হয়ে আসলে নামিয়ে ফেলুন।
৫। ব্যস তৈরি হয়ে গেল মজাদার চিজ বল।

ইউটিউব চ্যানেল:Sanjeev Kapoor Khazana

পুরো রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে


Create-easily-the-funniest-chicken-tikka-kebab-recipe-and-video

চিকেন টিক্কা কাবাবের নাম শুনলেই জিভে পানি চলে আসে। অনেকেই রেস্টুরেন্টে গেলে এই খাবারটি অর্ডার করে থাকেন। নান রুটি, পরোটা, এমনকি সাধারণ রুটির সাথে মানিয়ে যায় এই খাবারটি। কিন্তু সবসময় রেস্টুরেণ্টে যাওয়া সম্ভব হয় না। তখন উপায়? আপনি চাইলে খুব সহজে ঘরেই তৈরি করে নিতে পারেন দারুন স্বাদের চিকেন টিক্কা কাবাব। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক চিকেন টিক্কা কাবাবের সহজ রেসিপিটি।


উপকরণ:

√ ৩০০ গ্রাম হাড়ছাড়া মুরগির বুকের মাংস (কিউব করে কাটা)
√ ১ টেবিল চামচ ধনিয়া গুঁড়ো
√ ১ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
√ ১/২ চা চামচ গরম মশলা
√ লবণ
√ ১ টেবিল চামচ আদা রসুনের পেস্ট
√ ৪ টেবিল চামচ টকদই
√ ১টি লেবুর রস
√ ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল
√ ১টি পেঁয়াজ কিউব করে কাটা
√ ১টি ক্যাপসিকাম কিউব করে কাটা
√ ২ টেবিল চামচ ধনেপাতা কুচি
√ এক চিমটি খাবারের রং

প্রণালী:

১। একটি পাত্রে মুরগির মাংস, টকদই, পেঁয়াজ, ক্যাপসিকাম, গরম মশলা, মরিচ গুঁড়ো, ধনিয়া গুঁড়ো, লবণ, আদা রসুনের পেস্ট এবং লেবুর রস দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিন।
২। এরপর এতে অলিভ অয়েল, ধনেপাতা কুচি, খাবারের রং দিয়ে আরও কিছুক্ষণ মাখুন।
৩। মুরগির মিশ্রণটি মেরিনেট করার জন্য ফ্রিজে ২-৩ ঘন্টা রেখে দিন। যতো বেশি সময় ফ্রিজে রাখতে পারবেন তত ভাল।
৪। এবার শাসলিক কাঠি বা শিকে মেরিনেট করা মুরগির টুকরো, ক্যাপসিকামের টুকরো এবং পেঁয়াজের টুকরো দিয়ে সাজিয়ে নিন।
৫। ওভেন ২৫০ ডিগ্রী সেলসিয়াসে প্রি হিট করে নিন।
৬। এবার কাবাবের কাঠিগুলো ওভেনে ১৫-২০ মিনিট বেক করুন। মাংস নরম হয়ে বাদামী রং হয়ে এলে বের করে ফেলুন।
৭। আপনি চাইলে এটি গ্যাসের চুলায় করতে পারেন। গ্যাসের চুলায় একটি গ্রিল ফ্রাইংপ্যান নিয়ে এতে তেল ব্রাশ করে এতে কাবাবের কাঠিগুলো ঘুরিয়ে ভাল করে রান্না করে নিন।
৮। ব্যস তৈরি হয়ে গেল মজাদার চিকেন টিক্কা কাবাব।

ইউটিউব চ্যানেল: ReadySteadyEat

পুরো রেসিপিটি দেখে নিন ভিডিওতে

কে না চায় ঘরে বসে আয় করতে! আর ঘরে বসে আয় করার কথা আসলে আসবে অনলাইনে আয়ের কথা। অনলাইন থেকে আয় করার হাজার পদ্ধতির মধ্যে ইউটিউব একটি জনপ্রিয় মাধ্যম।  বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভিডিও শেয়ারিং সাইট YouTube থেকে আপনিও আয় করতে পারবেন খুবই অল্প সময়ের মধ্যে। দরকার শুধু নিয়মটা জেনে নেয়া। YouTube এ  ভিডিও তৈরী/আপলোড করে অনেকেই ইউটিউব থেকে আয় করছেন।  তবে আপনি কেন পারবেন না।? অনলাইনে আয়ের হাজার হাজার পদ্ধতির মধ্যে YouTube ও যে আছে তা অনেকেরই জানা নেই।  আর তা হল- ভিডিও শেয়ারের মাধ্যমে আয় বা ভিডিও ব্লগিং।


ভর্তি ও কোর্স ফি সংক্রান্ত নিয়ম এবং কিছু তথ্যঃ
BLACK iz IT Institute এর ইউটিউব আর্নিং এবং ভিডিও ইডিটিং কোর্সটির মুল কোর্স ফি ৭০০০ টাকা ।  কোর্স ফী ৬০০০ টাকা এবং রেজিস্ট্রেশন ফী ১০০০টাকা। YouTube আর্নিং কোর্সে অংশগ্রহণ করতে কোন প্রকার যোগ্যতা বা স্কিল এর প্রয়োজন নেই, শুধু ইন্টার্ণেট সম্পর্কে ধারাণা ( ফেসবুক, গুগল, ইউটিউব) থাকলেই এই কোর্স করে যে কেউ সফলভাবে আয় করতে পারবে। তবে কোর্সে জয়েন করার আগে অবশ্যই কিছু শর্ত মেনে জয়েন করতে হবে ।


ভর্তির জন্য অবশ্যই অনলাইনে অ্যাপ্লাই করতে হবে অথবা সরাসরি অফিসে আসতে হবে।  BLACK iz IT Institute অফিসের ঠিকানাঃ ১নং বিল্ডিং, লেক সার্কাস (২য় তলা ম্যাবস কোচিং সেন্টার) কলাবাগান, বাস স্টান্ড, ধানমন্ডি, ঢাকা ১২০৭)।  অনলাইনে অ্যাপ্লাই করতে হবে এই আর্টিকেলের নিচে ফর্মটি ফিলাপের মাধ্যমে, সফল ভাবে অনলাইনে আপ্লাই করার ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আপনার মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে কনফার্ম করা হবে।  ৭২ ঘন্টার মধ্যে সময়, স্থান, কোর্স শিডিউল সহ সকল তথ্য জানানো হবে। আরো যেকোন তথ্যের জন্য ফোন করতে পারেনঃ ০১৯১১৭৭২৩৯৮, ০১৬১১৭৭২৩৯৮, ০১৬৭১৫০২৩৯৬।


বাংলদেশেও ভিডিও ব্লগিংটা বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।  তবে ইউটিউবে ভিডিও ব্লগিং করার জন্য সব সময়ই আপনার ইউনিক ভিডিও ও সাউন্ড তৈরি করতে হবে, ভিডিওর টপিক সম্পর্কে ভালো কিওয়ার্ড রিসার্চ, সুন্দর শিরনাম এবং ভিডিওটি সুন্দর ভাবে ডেসক্রাইব করার জন্য ভালো আর্টিকেল রাইটিং জ্ঞান থাকা জরুরি।  বেশী ভিউয়ের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া বুকমারকিং জানাটা জরুরি।  ভিডিও ইডিটিং জানা থাকলে তো আরও ভালো।  এই সম্ভাবনাকে সামনে রেখে BLACK iz IT Institute শুরু করছে ইউটিউব আর্নিং এন্ড ভিডি ইডিটিং কোর্স।  BLACK iz IT Institute এর ইউটিউব আর্নিং এবং ভিডিও এডিটিং কোর্সটিতে জয়েন করতে নিচের ফর্মটি ফিলাপ করে রেজিস্ট্রেশন করুন । অনলাইনে রেজিস্ট্রেসনের করতে এই আর্টিকেলের নিচে ফর্মটি ফিলাপ করে সাবমিট করুন।  অথবা যেকোন তথ্যের জন্য ফোন করতে পারেনঃ ০১৯১১৭৭২৩৯৮, ০১৬১১৭৭২৩৯৮, ০১৬৭১৫০২৩৯৬।


BLACK iz IT Institute এর ইউটিউব আর্নিং এবং ভিডিও এডিটিং কোর্সটি মূলত তিনটি ভাগে ভাগ করা হবে।  প্রথম ধাপে থাকছে ইউটিউব, দ্বিতীয় ধাপে থাকছে ভিডিও এডিটিং এবং তৃতীয় ধাপে থাকবে ইউটিউব এসইও।  আলোচ্য তিনটি ধাপে যা যা থাকবে তা নিম্নে বর্ননা করা হলঃ
 ইউটিউব চ্যানেলঃ

    • কেন ইউটিউব কে আয়ের জন্য পছন্দ করবেন।
    • ইউটিউব এবং ইউটিউব চ্যানেল এর পরিচিতি।
    • ইউটিউব এ ভিডিওর মাধ্যমে আয়ের উপায় সমূহ।
    • ইউটিউব অ্যাকাউন্ট এবং চ্যানেল তৈরির উপায়।
    • ইউটিউব চ্যানেলের ইন্ট্রো কিংবা ভিডিও ইন্ট্রো তৈরি।
    • সার্চ ইজিন ফ্রেন্ডলি স্ট্রং ইউটিউব চ্যানেল এবং ভিডিও তৈরি।
    • ইউটিউব ভিডিও অপটিমাইজেশন এবং ভিডিও মার্কেটিং।
    • এসইও ফ্রেন্ডলি ডিসক্রিপ্সন এবং ম্যাজিক ভিডিও টাইটেল।
    • ইউটিউব ভিডি মনিটাইজ এবং গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাকাউন্ট।
    • ব্লগস্পট ব্যবহার করে নিজের একটি ওয়েব সাইট বানানো।
    • নিজের ব্লগস্পট সাইটে গুগোল অ্যাড-সেন্স নেওয়া।

ভিডিও এডিটিংঃ

    • ভিডিও এডিটিং ইন্ট্রোডাকসন এবং ভিডি ইন্ট্রো ডিজাইন।
    • ভিডিও এডিটিং এর ভিজুয়াল এবং ওডিও ইফেক্ট।
    • স্মার্ট ফুটেজ ডিটেকশন এন্ড ভিডিও ক্যাপ্সন সেটিং।
    • ভিডিও ইডিটিং ফিল্টার এবং রিটাচিং ইফেক্টস ।
    • স্ক্রিন ক্যাপচার ভিডিও টিউটরিয়াল মেকিং।
    • টেক্সট, ফিল্টার ইফেক্ট, স্ক্রিন ডিটেকশন ট্যাবিলাইজেসন।
    • প্রিমিয়াম ভিডিও ইফেক্ট এবং বিভিন্ন ফরম্যাটে ভিডিও এডিটিং
    • ফ্রেম বাই ফ্রেম প্রভিউ, স্পিড কন্ট্রোল, প্লে ইন রিভার্স।
    • ওডিও সেপারেসন, অটো এনহেঞ্চ এবং আরও অনেক…।

ভিডিও অপটিমাইজেশনঃ

    • ভিডিও মেকিং কনসেপ্ট এন্ড কিওয়ার্ড রিসার্চ ।
    • ট্রেন্ড ভিডিও এবং গুগোল এডওয়ার্ড এর ব্যাবহার।
    • থাম্বনেইল ডিজাইন এন্ড ফটো ডিজাইনিং এন্ড ইডিটিং।
    • স্লাইড ভিডিও মেকিং এন্ড ডিজাইনিং।
    • ইউটিউব এন্ড সার্চ ট্রেন্ড এর ব্যবহার।

কোর্সে ব্যাবহ্রিত সফটওয়্যার এন্ড টুলসঃ

    • ওয়ান্ডার সেয়ার
    • ফিলমোরা
    • ফটোস্কেপ
    • ইউটিউব ভিডিও ইডিটর
    • পাওয়ার পয়েন্ট
    • গুগোল এডওয়ার্ড
    • গুগোল অ্যানালিস্টিক
    • গুগোল ট্রেন্ড

কোর্সটি সম্পর্কে আরও কিছু তথ্যঃ

    • মোট ক্লাস সংখ্যাঃ ১৬ টি
    • উন্নতমানের ল্যাব ক্লাসরুমের সুবিধা।
    • প্রতিটি ক্লাসের সাথে কালার প্রিন্টেড লেকচার শীট।
    • উন্নতমানের প্রোজেক্টর সহ ক্লাস রুম।
    • কোর্স পরবর্তি সময়ে সারা জীবন সাপোর্ট।
    • স্টুডেন্টদের নিয়ে ফেসবুকে আলাদা গ্রুপ রয়েছে।
    • শুরু থেকে প্রফেশনাল লেভেল পর্যন্ত যাবতীয় বিষয় দেখানো হয়।
    • হাতে কলমের পাশাপাশি প্র্যাক্টিকাল করে দেখান হবে।
    • প্রাকটিস করার জন্য প্রয়োজনীয় সোর্স ফাইল, সফটওয়্যার এবং টুলস প্রদান করা হবে।
    • ফ্রিল্যান্সিং এর উপর লিখা কিছু বই এর পিডিএফ কপি দেওয়া হবে।



BLACK iz IT Institute এর ইউটিউব আর্নিং এন্ড ভিডিও ইডিটিং কোর্সটি চলবে ২ মাস পর্যন্ত। কোর্সে ক্লাসের সংখ্যা মোট ১২ টি। কোর্সে ভর্তির জন্য অবশ্যই নিচের ফর্ম ফিলাপের মাধ্যমে অ্যাপ্লাই করতে হবে অথবা সরাসরি অফিসে আসতে হবে।  BLACK iz IT Institute  অফিসের ঠিকানাঃ ১নং বিল্ডিং, লেক সার্কাস (২য় তলা ম্যাবস কোচিং সেন্টার) কলাবাগান, বাস স্টান্ড, ধানমন্ডি, ঢাকা ১২০৭)।  অনলাইনে অ্যাপ্লাই করতে হবে নির্দিষ্ট ফর্ম ফিলাপের মাধ্যমে, সফল ভাবে অনলাইনে অ্যাপ্লাই করার ৪৮ ঘন্টার মধ্যে মোবাইলে এসএমএস এর মাধ্যমে কনফার্ম করা হবে।  ৭২ ঘন্টার মধ্যে সময়, স্থান, কোর্স শিডিউল সহ সকল তথ্য জানানো হবে। অনলাইনে রেজিস্ট্রেসনের করতে এই আর্টিকেলের নিচে ফর্মটি ফিলাপ করে সাবমিট করুন।  অথবা যেকোন তথ্যের জন্য ফোন করতে পারেনঃ ০১৯১১৭৭২৩৯৮, ০১৬১১৭৭২৩৯৮, ০১৬৭১৫০২৩৯৬।

কোর্সে অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন করতে নিচের ফর্মটি ফিলআপ করুন

 

এই রোজায় ইফতারে কি খাচ্ছেন? সেই সবসময়ের মতো পিঁয়াজু-বেগুনি-আলুর চপ? একটু স্বাদ বদলে চমকপ্রদ কিছু তৈরি করতে চাইলে দেখে নিন আজকের চিকেন ব্রেড পিজ্জার রেসিপিটি। মাংস, পনির এবং ক্যাপসিকামের দারুণ স্বাদে ইফতারে আপনার মনটাই ভালো হয়ে যাবে। পেট ভরাতে সহায়ক এই স্ন্যাক্সটি ইফতার পার্টিতে পরিবেশন করতে পারেন, আবার প্রতিদিনের ইফতারেও রাখতে পারেন। চলুন দেখে নিই সহজ রেসিপিটি।


উপকরণ
- ২টা গ্রিলড চিকেন ব্রেস্ট, শ্রেড করা
- ৮টা পাউরুটির স্লাইস
- পিজ্জা সস প্রয়োজনমতো
- ২ টেবিল চামচ মাখন
- ১ চা চামচ রসুন কুচি
- আধা চা চামচ শুকনো মরিচ
- ৩/৪টা ফ্রেশ বেসিল পাতা
- ১ কাপ বিভিন্ন রঙের ক্যাপসিকামের লম্বা টুকরো
- ২০০ গ্রাম মোজারেলা চিজ, ছোট কিউব করে কাটা
- ফ্রেশ অরিগানো প্রয়োজনমতো

প্রণালী
১) ওভেন ১৮০ ডিগ্রিতে প্রিহিট হতে দিন।
২) একটি পাত্রে মাখন নিন। এতে শুকনো মরিচ ভেঙ্গে নিন। রসুন এবং বেসিল পাতা ছিঁড়ে দিন। ভালো করে মিশিয়ে নিন।
৩) মাখনের মিশ্রণ প্রতিটি রুটির স্লাইসের ওপরে মাখিয়ে নিন এবং একটি বেকিং ট্রেতে রাখুন। এবার প্রিহিটেড ওভেনে দিয়ে ৪-৬ মিনিট বা মুচমুচে হওয়া পর্যন্ত বেক করে নিন।
৪) মুচমুচে এই ব্রেড স্লাইসের ওপরে পিজ্জা সস দিয়ে নিন। এর ওপরে চিকেন, ক্যাপসিকামের টুকরো, মোজারেলার টুকরো এবং কিছু অরিগানো দিয়ে দিন। এবার প্রিহিটেড ওভেনে আবার দিয়ে দিন। চিজ গলে যাওয়া পর্যন্ত বেক করে নিন।

এবার গরম গরম পরিবেশন করুন ব্রেড চিকেন পিজ্জা। 

ভালো করে বুঝতে দেখে নিতে পারেন রেসিপির ভিডিওটি।

রমজান মাস জুড়ে সেহরি ও ইফতারকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন অফার ঘোষণা করেছে কোমল পানীয় কোকা-কোলা।

Coca-Cola-and-Iftar-Iftar-offer

তাদের এই আয়োজনের সহযোগী থাকছে খাবার সংক্রান্ত ওয়েব পোর্টাল ঢাকা ফুডিজ ও বেসরকারি রেডিও স্টেশন রেডিও ফুর্তি।

সোমবার ঢাকার একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে তিন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা রমজান অফার সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরেন।

ঢাকা ফুডিজ এর প্রতিষ্ঠাতা আশিকুর রহমান জানান, নগর জীবনের ব্যস্ততা ও যানজটের কারণে অনেক সময় সবার পক্ষে ইফতার অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া সম্ভব হয় না। তাই বেশ কয়েক বছর ধরে চলছে সেহরি পার্টি।
“কোকা-কোলার সহযোগিতায় এর আগেও এধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল। এবছর আরও বড় পরিসরে ২৪ ও ২৫ জুন বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে সেহরি নাইটের আয়োজন করা হবে।”
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, সেহরি নাইটসে একই ছাদের নিচে ঢাকার বিখ্যাত সব রেস্টুরেন্টগুলো তাদের আয়োজন নিয়ে সমবেত হবে। এছাড়া পুরো রমযান মাসজুড়ে কিছু নির্ধারিত রেস্টুরেন্টের সেহরি আয়োজনে থাকবে কোকাকোলার অফার।

বাসায় ইফতার
রমযানের প্রথম দিন থেকে ২২ রমযান পর্যন্ত ইফতারের আগে রেডিও ফুর্তিতে থাকছে কুইজ প্রতিযোগিতা। প্রতিদিন বিজয়ী একজনের বাসায় চলে যাবে কোকাকোলার সৌজন্যে ইফতার।

রেডিও ফুর্তির চিফ অপারেটিং অফিসার মো. রেজাউল করিম জানান, রেজিও ফুর্তির শ্রোতারা তাদের নাম ঠিকানা উল্লেখ করে প্রতিদিন একটি করে প্রশ্নের উত্তর দিয়ে ইফতার প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবেন। প্রতিদিন একজন বিজয়ীর বাসায় পরিবারের সবার জন্য পাঠানো হবে ইফতার।

এছাড়া বাসায় সেহরি প্রতিযোগিতার ২২ জন বিজয়ী উদীয়মান ক্রিকেটার মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে ঈদের পরে একদিন আড্ডায় অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবেন বলেও জানান কোকো-কোলা বাংলাদেশের ম্যানেজিং ডিরেক্টর শাদাব আহমেদ খান।

                                                                                                                                 -শাম্মী আখতার

ঢাকার তেজগাঁওয়ের পিকাসো রেস্টুরেন্টে খাবারে সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় পাবেন শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংকের ভিসা ডেবিট কার্ডধারীরা।

Shahjalal-Bank-debit-card-Picasso-restaurant-discount

সোমবার দুই প্রতিষ্ঠানের মধ্যে এ বিষয়ে একটি চুক্তি হয়।

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ব্যাংকের বিজনেস ডেভলপমেন্ট অ্যান্ড মার্কেটিং বিভাগের প্রধান মুশতাক আহমেদ ও পিকাসো রেস্টুরেন্টের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত লে. জেনারেল মাসউদ চৌধুরী চুক্তিতে সই করেন।

শাহ্জালাল ইসলামী ব্যাংকের বিজনেস ডেভোলপমেন্ট অ্যান্ড মার্কেটিং বিভাগের সহ-সভাপতি আমির উদ্দিন চৌধুরীসহ দুই প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
                                      
                                                                                                                               -শাম্মী আখতার

সাধারণ আলুর চপ, পেঁয়াজু এবং বেগুনীতে একঘেয়ে লাগে ইফতার।একটু ভিন্ন স্বাদের জন্য অনেকেই বাইরের নানা অস্বাস্থ্যকর ইফতার আইটেমের দিকে ঝুঁকছেন। এরচাইতে ঘরেই তৈরি করে ফেলুন না ভিন্ন স্বাদ পেতে খুব ঝটপট ও সুস্বাদু ‘ক্রিসপি চিকেন বল’। ভিন্ন ও বাইরের খাবারের স্বাদ দুটোই বেশ ভালো করে পেয়ে যাবেন। চলুন তাহলে শিখে নেয়া যাক ঝটপট রেসিপিটি।

Iftar-instantly-get-a-different-taste-of-chicken-balls-krisapi

উপকরণঃ

- ২ কাপ মুরগির মাংসের কিমা (কিমা না পেলে হাড় ছাড়া মাংস ছোট করে কেটে নিন)
- পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ
- ১ টি ডিম

- আদা-রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ
- ৪-৫ টি মরিচ বাটা
- জিরাগুঁড়া ১ চা চামচ
- গোলমরিচ গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ

- লেবুর রস ২ চা চামচ
- ১টি আলু সেদ্ধ করে পিষে নেয়া
- ১ পিস পাউরুটি
- আধা কাপ বিস্কুটের গুঁড়া/ ব্রেডক্রাম্ব/ কর্ণফ্লেক্স গুঁড়ো
- আধা চা চামচ টেস্টিং সল্ট
- তেল পরিমাণমতো
- লবণ স্বাদমতো

পদ্ধতিঃ

- মুরগীর মাংসের কিমা ও আলু একসাথে ভালো করে মেখে নিন। যদি কিমা না থাকে তাহলে মুরগীর মাংস ছোটো করে কেটে সেদ্ধ করে পিষে নিয়ে একসাথে ভালো করে মেখে নিন।
- এরপর এতে দিন বাকি সব মসলা জাতীয় উপকরণ। মিশ্রন বেশী নরম হলে এতে পাউরুটি টুকরো করে করে মিশিয়ে নিন। প্রয়োজনে আরও ১ পিস পাউরুটি দিয়ে গোল বলের মতো তৈরি করার মতো ডো তৈরি করে নিন।
- এরপর গোল গোল বল তৈরি করে নিন। এই বল ব্রেডক্রাম্ব বা কর্ণফ্লেক্সের গুঁড়ো কিংবা বিস্কুটের গুঁড়োয় গড়িয়ে নিন।
- প্যানে ডুবো তেলে ভাজার জন্য তেল গরম দিয়ে বলগুলো লালচে করে ভেজে নিন। কিচেন টিস্যুতে তুলে নিয়ে বাড়তি তেল ঝড়িয়ে ইফতারের টেবিলে পরিবেশন করুন সুস্বাদু ‘ক্রিসপি চিকেন বল’।
   
                                                                                                                                      -শাম্মী আখতার

Potato-minced-barbecue-iftar-Special

►উপকরণ : 
আলু ২৫০ গ্রাম, কিমা ৩০০ গ্রাম, ধনেপাতা কুচি ২ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ কুচি ১ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, পানি ও তেল পরিমাণমতো, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, বিস্কুটের গুঁড়া এবং ১টি ডিম [ফেটানো]।

►প্রস্তুত প্রণালি : 
প্রথম আলু সিদ্ধ করে হাত দিয়ে চটকিয়ে ভর্তা করে ফেলুন। কড়াইয়ে তেল গরম করে আদা ও রসুন বাটা, তেল অল্প এবং লবণ ও অল্প পানিসহ কিমা ভুনা ভুনা করে রান্না করে ধনেপাতা ও কাঁচামরিচ কুচি এবং গরম মসলা গুঁড়া দিয়ে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে রাখুন। রান্না করা কিমায় আলু ভর্তা দিয়ে ভালো করে হাত দিয়ে মাখিয়ে গোল গোল চ্যাপটা করে ফেটানো ডিমে মাখিয়ে তারপর বিস্কুটের গুঁড়ায় গড়িয়ে গরম গরম ডুবন্ত তেলে ভেজে তুলুন। তারপর পরিবেশন করুন।

                                                                                                                                     -শাম্মী আখতার

সৌন্দর্য সচেতনদের বিশেষ সেবা দিতে ভ্যালেন্টিনা বিউটি পার্লার এবং জিম এর নতুন শাখা উদ্বোধন হলো বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায়। নতুন এ শাখার প্রতিটি সেবায় থাকছে দশ শতাংশ ছাড়! 

Valentina-special-discount-for-new-branch

সৌন্দর্য পিয়াসীদের কাছে ভ্যালেন্টিনা বিউটি পার্লার পরিচিত একটি নাম। এখানে বিশেষ ছাড়ের প্যাকেজে রয়েছে ফ্রুট ফেসিয়াল, মেনিকিউর, পেডিকিউর, হেয়ার অয়েল ম্যাসাজ, শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ওয়াশ এবং হেয়ার ব্লোড্রাই মাত্র ১ হাজার তিনশত নিরানব্বই টাকায়। 

ভ্যালেন্টিনার নতুন শাখায় যোগাযোগের ঠিকানা: ক/৬, হ্যাভেলি কমপ্লেক্স, তৃতীয় তলা, বসুন্ধরা প্রধান গেইট, (যমুনা ফিউচার পার্কের দক্ষিন পাশে), বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা। ফোন - ০১৭৬ ৫৭৩ ৪৪৪৪
                        
                                                                                                                                         -শাম্মী আখতার

                                                                                                                         

প্রযুক্তি ডেস্ক, সময়ের কণ্ঠস্বর – সম্প্রতি পাসওয়ার্ডের বেশ কিছু ত্রুটি আবিষ্কৃত হয়েছে। প্রায়ই পাসওয়ার্ড চুরি কিংবা হ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটছে, যার মাধ্যমে কম্পিউটার ডিভাইসের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হচ্ছে। এ সমস্যা সমাধানে ফিঙ্গারপ্রিন্ট কিংবা ফেস লকের মতো বিভিন্ন ব্যবস্থা নিয়ে বেশ জোরেশোরে গবেষণা করা হচ্ছে। এ ধারায় নতুন আশা জাগিয়ে তুলেছে মুখচ্ছবি ব্যবহার করে আনলক করার ব্যবস্থা।



আপনার পাসওয়ার্ড হবে  আপনার সেলফিই
চীনা ই কমার্স জায়ান্ট আলিবাবা ডট কম সম্প্রতি তাদের অ্যাপে সেলফিকেই পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহারের পদ্ধতি চালু করেছে। এতে আপনার স্মার্টফোন কিংবা ট্যাবের ক্যামেরায় ছবি তুলে তা পাসওয়ার্ড হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

এ ব্যবস্থায় আপনি যখন লগইন করতে চাইবেন তখন চট করে একটি সেলফি তুলে নিতে হবে। এতে যদি চেহারা মিলে যায় তাহলে পাসওয়ার্ড মিলে গিয়েছে বলে ধরা হবে। অন্যদিকে আপনার চেহারা যদি তাতে রক্ষিত ছবির সঙ্গ না মেলে তাহলে পাসওয়ার্ড মেলেনি বলে ধরা হবে।

‘প্রাইভেসি নাইট’ নামে অ্যাপে সেলফির মাধ্যমে লক করার এ যুগান্তকারী পদ্ধতি চালু করেছে আলিবাবা। এতে যে ফিচারটির সাহায্যে অ্যাপ লক-আনলক করা হচ্ছে তাকে ফেস লক নাম দেওয়া হয়েছে।

মুখের ছবির মাধ্যমে অ্যাপ লক-আনলক করার ব্যবস্থা করায় তার নিরাপত্তা ব্যেবস্থা হতে যাচ্ছে অন্যান্য পদ্ধতির চেয়ে ভালো, এমনটাই দাবি প্রতিষ্ঠানটির।

আলিবাবা ডট কম এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, প্রাইভেসি নাইটে ব্যবহারকারীরা তাদের অ্যাপ এক সেকেন্ডের সেলফির মাধ্যমে আনলক করতে পারবেন।

এ বিষয়ে আলিবাবার অঙ্গপ্রতিষ্ঠান ৯অ্যাপস-এর কাউন্ট্রি ম্যানেজার কর্মকর্তা ইব্রাহিক পোপেত বলেন, ‘ফেস লক মানুষের প্রাইভেসি রক্ষার উপায়কে পরিবর্তন করতে চায়। এটি ফিঙ্গারপ্রিন্ট লকের পর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হতে যাচ্ছে।’

আমাদের যাবতীয় সুখ কেড়ে নেওয়ার ‘অসুখ’টা প্রকট হয়ে উঠেছে উত্তরোত্তর। গলতে গলতে প্রায় সাবাড় হয়ে যাওয়ার মুখে উত্তর মেরুর পুরু বরফের চাদর। এক লক্ষ বছরেরও বেশি সময় পর প্রায় গোটা উত্তর মেরু থেকেই ‘বিদায় ঘণ্টা’ বেজে গিয়েছে বরফের! হয় এ বছরের শেষেই, না হলে আগামী বছরেই সুমেরু সাগরকে কার্যত, ‘গুড বাই’ জানাবে ‘বরফ-সাম্রাজ্য’!

 গলে যাচ্ছে সুমেরুর সব বরফ !


এমনটাই দাবি কেম্ব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের পোলার ওশ্‌ন ফিজিক্স গ্রুপের প্রধান বিশিষ্ট বিজ্ঞানী, অধ্যাপক পিটার ওয়ারহ্যাম্‌সের।

উপগ্রহ মারফত পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল স্নো অ্যান্ড আইস ডেটা সেন্টার জানাচ্ছে, এ বছর পয়লা জুনে সুমেরু সাগরে বরফ ছিল মাত্র ১ কোটি ১১ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে। যা ৩০ বছর আগে এই সময়ে ছিল ১ কোটি ২৭ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে। মানে, গত তিন দশকে সুমেরু সাগরে ১৫ লক্ষ বর্গ কিলোমিটারেরও বেশি এলাকা থেকে সাফ হয়ে গিয়েছে বরফ। ৬টা ব্রিটেনকে যোগ করলে ভৌগোলিক এলাকার আয়তন যতটা হয়, সুমেরু সাগরের ততটা এলাকা থেকেই গত তিন দশকে বরফ ধুয়ে-মুছে সাফ হয়ে গিয়েছে!

অধ্যাপক ওয়ারহ্যাম্‌সের দাবি, ‘‘এ বছরের সেপ্টেম্বরেই সুমেরু সাগরে বরফ সাবাড় হয়ে যাবে আরও ১০ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার এলাকা থেকে। আর আগামী বছরের শেষাশেষি সুমেরু সাগরের আরও ৩৪ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার এলাকায় আর বরফ থাকবে বিন্দুমাত্র। এমনও হতে পারে, ওই সময় গোটা উত্তর মেরু থেকেই ‘নির্বাসনে’ চলে যাবে বরফ! এর মানেটা হল, উত্তর মেরুর কেন্দ্রস্থলটা একেবারেই বরফ-শূন্য হয়ে যাবে। মেরুর বরফটা শুধুই থেকে যাবে কানাডার উত্তর উপকূলের দ্বীপপুঞ্জগুলোতে। আজ থেকে ১ লক্ষ বা ১ লক্ষ ২০ হাজার বছর আগে, শেষ বার বরফ-শূন্য হয়ে গিয়েছিল সুমেরু সাগরে।’’

Blogger দ্বারা পরিচালিত.