আপনার জন্ন সেরা অ্যাপ খুঁজে নেওয়ার ৫ উপায়

অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস কিংবা উইন্ডোজ ফোন হোক, দৈনন্দিন কাজ সহজ করে তুলতে স্মার্টফোনে তৃতীয় পক্ষের অ্যাপ ব্যবহারের বিকল্প নেই। তবে কয়েক লাখ অ্যাপের মধ্যে আপনার জন্য সঠিক এবং কার্যকরী অ্যাপ নির্বাচন করাটা একটা চ্যালেঞ্জ বটে। সহজে দরকারি অ্যাপটি খুঁজে পাওয়ার কিছু পরামর্শ এখানে দেওয়া হলো।

১. অ্যাপ স্টোরের সুপারিশগুগল প্লে স্টোরে যে ধরনের অ্যাপ, আপনার দরকার সে বিভাগ নির্বাচন করলেই সেরা অ্যাপগুলো সুপারিশ হিসেবে দেখাবে। নামানোর পরিমাণ, জনপ্রিয়তা, ব্যবহারকারী এবং ডেভেলপারদের পছন্দের ওপর ভিত্তি করে প্লেস্টোর সেরা অ্যাপগুলো নামানোর সুপারিশ করে। উইন্ডোজ এবং আইওএসের অ্যাপস্টোরে ‘ফিচার’ এবং ‘অ্যাপস ইউ মাইট লাইক’ অংশে সুপারিশকৃত অ্যাপ পাওয়া যাবে।

২. জনপ্রিয় অ্যাপের তালিকাঅ্যাপলের অ্যাপ স্টোর কিংবা গুগলের প্লেস্টোরে একটি অ্যাপ নির্বাচন করলে নিচের দিকে ‘ইউজার অলসো ইনস্টলড’ অংশে নির্বাচিত অ্যাপের মতোই একই ধরনের অন্যান্য জনপ্রিয় অ্যাপ দেখাবে। এই অংশে এ ধরনের কোন অ্যাপগুলো ব্যবহারকারীরা বেশি নামাচ্ছেন, তা দেখায়।

৩. পর্যালোচনা মাথায় রাখুন
অ্যাপ স্টোরগুলোতে কোনো অ্যাপের পাতা খুললে সেই অ্যাপ সম্পর্কে অন্য ব্যবহারকারীদের পর্যালোচনা দেখাবে। সেগুলো পড়লেই অ্যাপটি সম্পর্কে ধারণা পেয়ে যাবেন। এ ছাড়া রেটিং দেখে অ্যাপটির গুণগত মান নিয়ে ধারণা পাবেন।

৪. একই ডেভেলপারের অন্য অ্যাপ
কোনো অ্যাপ ব্যবহার করে ভালো লাগলে সে অ্যাপ নির্মাতার তৈরি অন্য অ্যাপগুলোতেও একবার নজর বোলাতে পারেন। সেখানে হয়তো আপনার প্রয়োজনীয় কোনো অ্যাপ পেয়ে যাবেন। অ্যাপ স্টোরের কোনো অ্যাপের পাতায় গিয়ে ‘মোর বাই ডেভেলপার’ অথবা ‘ডেভেলপার্স অ্যাপস’ অংশে প্রবেশ করলে একই নির্মাতার তৈরি অন্যান্য অ্যাপ পেয়ে যাবেন।

৫. শেষ কবে হালনাগাদ করা হয়েছে?
সর্বশেষ এক মাসের মধ্যে হালনাগাদ করা হলে অ্যাপটি নামাতে পারেন। তবে গত এক বছর বা তার বেশি সময়ে হালনাগাদ না হলে বুঝতে হবে অ্যাপটি পরিত্যক্ত করেছেন এর নির্মাতারা। এ ছাড়া নামানোর আগে দেখে নিন অ্যাপটি আপনার স্মার্টফোনে সমর্থন করবে কি না।