মাইক্রোসফটের ‘ক্লাউড ফার্স্ট’

প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব নেওয়ার পরেই সত্য নাদেলা ঘোষণা দিয়েছিলেন, মাইক্রোসফট হবে ‘মোবাইল ফার্স্ট, ক্লাউড ফার্স্ট’। মুঠোফোন খুব একটা কাজে না দিলেও ক্লাউড কম্পিউটারের সেবা প্রতিষ্ঠানটির জন্য সোনা হয়ে ফলেছে। চলতি বছরের গত প্রান্তিকের আর্থিক ফলাফল মাইক্রোসফট প্রকাশ করেছে সম্প্রতি। তাতে ক্লাউড কম্পিউটারে বিনিয়োগের ফলে মুনাফা হয়েছে আশাতীত। মাইক্রোসফটের ইতিহাসে শেয়ারমূল্য সর্বকালের শীর্ষে পৌঁছে।


জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মাইক্রোসফটের আয় ৪৭০ কোটি ডলার। আর্থিক বিবরণী প্রকাশের পরেই প্রতিটি শেয়ারের দাম ৬ শতাংশ বেড়ে ৬০ দশমিক ৭৩ ডলারে পৌঁছেছিল। বিশ্বব্যাপী কম্পিউটার বিক্রি কমে যাওয়ায় সত্য নাদেলা ক্লাউড কম্পিউটিংয়ে মনোযোগ দেন।

২০১৪ সালে সত্য নাদেলা প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার সময় শেয়ারের মূল্য ছিল ৩৭ ডলারেরও কম। আর তখন থেকেই নাদেলা মাইক্রোসফটের প্রধান দুটি পণ্য উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম এবং অফিস সফটওয়্যারের বিকল্প খুঁজছিলেন। সে সূত্র ধরেই মাইক্রোসফট মুঠোফোন ও ক্লাউড কম্পিউটিংয়ে মনোযোগ দেয়।

ক্লাউডভিত্তিক সেবাগুলোর মধ্যে রয়েছে সার্ভার, ডেটাবেইস, সফটওয়্যার ও ডেটা স্টোরেজ। ক্লাউডে বিনিয়োগে সাফল্যের একটা বড় অংশ এসেছে ‘অফিস ৩৬৫’ থেকে। গত প্রান্তিকে মোট মুনাফার ৮ শতাংশ এসেছে অফিস ৩৬৫ থেকে। এ ছাড়া বড় ভূমিকা রেখেছে সারফেস ট্যাবলেট। আর নতুন সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচন করেছে অনলাইনভিত্তিক গেম খেলার যন্ত্র এক্সবক্স।