পিৎজা বাড়িতে পৌঁছে দেবে ড্রোন!

প্রযুক্তির উৎকর্ষের সঙ্গে বাড়ছে যন্ত্রের ওপর মানুষের নির্ভরতা। মানুষের শ্রম লাঘব এবং মানব ত্রুটি এড়িয়ে দ্রুত কাজ সমাধায় যন্ত্রকে কাজে লাগাতে নিরন্তর চেষ্টা করে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। শিল্প খাতে রোবটের ব্যবহার এরই অংশ। এবার নিউজিল্যান্ডে গ্রাহকের দরজায় পিৎজা সরবরাহে ড্রোন ব্যবহার করে সে প্রচেষ্টাকে আরও এক ধাপ এগিয়ে নিল যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আন্তর্জাতিক ফাস্ট ফুড জায়ান্ট ডোমিনো।


ডোমিনোর নিউজিল্যান্ড শাখা জানায়, গতকাল বুধবার তারা ড্রোনের মাধ্যমে পিৎজা সরবরাহ কার্যক্রম শুরু করেছে। প্রতিষ্ঠানটির দাবি, এর মাধ্যমে পৃথিবীতে প্রথমবারের মতো উড়োযানের মাধ্যমে গ্রাহকের দরজায় পণ্য সরবরাহের সূচনা ঘটল।

ডোমিনোর প্রধান নির্বাহী ডন মেইজ বলেন, প্রাথমিকভাবে অকল্যান্ডের উত্তরে হাঙ্গাপারাওয়ায় এক গ্রাহকের কাছে চালকবিহীন উড়োযান বা ড্রোনের মাধ্যমে দুটো পিৎজা সরবরাহ করা হয়েছে। ড্রোনগুলো যানজট ও ট্রাফিক সিগন্যাল এড়িয়ে নিরাপদে এবং কম সময়ে গ্রাহকের দরজায় পৌঁছাতে সক্ষম।

ডন মেইজ বলেন, ‘এটাই ভবিষ্যৎ। আজকের এই সফল সরবরাহ এই ধারণার একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রমাণ।’ তিনি জানান, চলতি সপ্তাহজুড়ে ড্রোনের মাধ্যমে পিৎজা সরবরাহের এই উদ্যোগের ওপর হাঙ্গাপারাওয়ায় আরও পরীক্ষা চালানো হবে। সফল হলে আগামী বছর এর ব্যাপ্তি বাড়ানো হবে।

ডোমিনো জানায়, শুধু নিউজিল্যান্ডেই নয়, অস্ট্রেলিয়া, বেলজিয়াম, ফ্রান্স, নেদারল্যান্ডস, জাপান ও জার্মানিতেও ড্রোনের মাধ্যমে পিৎজা সরবরাহের পরীক্ষা চালানো হচ্ছে। ডোমিনো গত মার্চে নিউজিল্যান্ডে রোবট-বাহন উন্মুক্ত করে, যা বিশ্বের প্রথম চালকবিহীন সরবরাহ যান বলে প্রতিষ্ঠানটির দাবি।