দাম কমবে ম্যাকবুক প্রোর

যাঁরা অ্যাপলের তৈরি ল্যাপটপ কিছুটা কম দামে কেনার আশা করছেন, তাঁরা আগামী বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারেন। ২০১৭ সালে ম্যাকবুক প্রোর যেসব নতুন মডেল বাজারে আসবে, এর দাম কিছুটা সাশ্রয়ী হতে পারে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকেরা।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রে দীর্ঘদিনের প্রতীক্ষিত ম্যাকবুক প্রোর নতুন লাইনআপের ঘোষণা দিয়েছে অ্যাপল। নতুন মডেলের এই ম্যাকবুকের দাম অনেক। ১৩ ইঞ্চি মাপের টাচবারবিহীন মডেলগুলোর দাম শুরুই হয়েছে ১ হাজার ৪৯৯ মার্কিন ডলার থেকে। টাচবারসহ ১৩ ইঞ্চি মাপের ম্যাকবুক প্রোর দাম ১ হাজার ৭৯৯ মার্কিন ডলার আর ১৫ ইঞ্চি মাপের মডেলগুলোর দাম শুরু হয়েছে ২ হাজার ৩৯৯ মার্কিন ডলার থেকে।
কেজিআই সিকিউরিটিজের বিশ্লেষক মিং-চি কুয়ো বলেন, ২০১৭ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকের পর আশা করা যায় ম্যাকবুক প্রোর দাম কমে যাবে।

কুয়োর যুক্তি, অ্যাপল সাধারণত শুরুতে বা প্রথম প্রজন্মের ম্যাকবুক প্রো ল্যাপটপে দাম বেশি রাখে। পরের বছর ল্যাপটপের দ্বিতীয় সংস্করণের সময় দাম কমায়। কুয়ো বলেন, আগামী বছর হালনাগাদ সংস্করণে ৩২ জিবি র‍্যাম ব্যবহার করবে অ্যাপল। এ ছাড়া ইনটেলের ক্যাননলেক নামের শক্তিসাশ্রয়ী প্রসেসর যদি সঠিক সময়ে বাজারে আসে, তবে ম্যাকবুক প্রোর দাম কমতে পারে। যদি ক্যাননলেক না আসে, তবে নতুন ল্যাপটপে কফিলেক সিপিইউ ও এলপিডিডিআর ৩ র‍্যাম ব্যবহার করবে অ্যাপল। বর্তমানে ম্যাকবুক প্রো ২০১৬ সংস্করণে ইনটেলের ষষ্ঠ প্রজন্মের স্কাইলেক কোর প্রসেসর ব্যবহার করেছে প্রতিষ্ঠানটি। অ্যাপলের নতুন ল্যাপটপ হালকা-পাতলা ও দ্রুতগতি করার পাশাপাশি নকশাতেও কিছু পরিবর্তন এসেছে। এতে টাচবার ও এলইডি প্যানেল এসেছে, যা কি-বোর্ডের ফাংশন কিগুলোর পরিবর্তে ব্যবহৃত হবে। এতে যুক্ত হয়েছে টাচআইডি ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। এতে স্পিকারও উন্নত করা হয়েছে।