প্রিমো এক্স-ফোর নানা কাজের


অ্যান্ড্রয়েড ফোন দিয়ে মাল্টিটাস্কিং বা বিভিন্ন ধরনের কাজের ক্ষেত্রে প্রিমো এক্স-ফোর মডেলটিকে জুতসই বলে দাবি করেছে প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন। সম্প্রতি বাজারে আনা ফোনটি বেশ সাড়া জাগিয়েছে বলে দাবি করে প্রতিষ্ঠানটি। ফ্ল্যাগশিপ ফোন হিসেবে প্রিমো এক্স-ফোর স্মার্টফোনটিতে ধাতব কাঠামো ব্যবহার করেছে ওয়ালটন। এ ছাড়া স্মার্টফোনটি নকশার দিক থেকে অনেকের নজর কাড়তে পারে।

ওয়ালটনের নতুন এই স্মার্টফোনে সাড়ে পাঁচ ইঞ্চির ইন-সেল ফুল এইচডি আইপিএস ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয়েছে। ডিসপ্লের সুরক্ষায় ব্যবহৃত হয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ৪। ফলে যেকোনো ধরনের দাগ থেকে ডিসপ্লে সুরক্ষিত থাকবে। ফোনটিতে বিভিন্ন অ্যাপস ব্যবহার, ইন্টারনেট ব্রাউজিং, অসাধারণ থ্রিডি গেমিং এবং দ্রুত ভিডিও লোড ও ল্যাগ-ফ্রি ভিডিও স্ট্রিমিং-সুবিধা দিতে রয়েছে ৪ জিবি র‍্যাম।

মাল্টি টাস্কিং-সুবিধা ও উন্নত পারফরম্যান্স নিশ্চিতে প্রসেসর হিসেবে রয়েছে উচ্চ ক্ষমতার ৬৪ বিট সম্পন্ন ১ দশমিক ৮ গিগাহার্টজ অক্টা কোর প্রসেসর। ব্যবহৃত হয়েছে মালি টি-৮৬০ গ্রাফিকস। এ ছাড়া রয়েছে সংরক্ষণের জন্য রয়েছে ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ এবং মেমোরি কার্ডের মাধ্যমে আরও ১২৮ জিবি পর্যন্ত বর্ধিত মেমোরি ব্যবহারের সুবিধা। দীর্ঘস্থায়ী ব্যাকআপ নিশ্চিতের জন্য ৩১৩০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারিসহ সুবিধা। ফোনটিতে তথ্যের নিরাপত্তায় রয়েছে দ্রুত সাড়া দেওয়ার সক্ষমতাযুক্ত ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার, যা শূন্য দশমিক ৩ সেকেন্ডের মধ্যে হ্যান্ডসেট আনলক করতে সক্ষম।

স্মার্টফোনটির পেছনে পিডিএএফ প্রযুক্তির অটোফোকাস, এলইডি ফ্ল্যাশ-সুবিধাসহ বিএসআই সেন্সরযুক্ত ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে, যার অ্যাপারচার এফ ২.০। আলট্রা পিক্সেল মোড অপশনটির সাহায্যে অনেক বেশি রেজল্যুশনের ছবি তোলা যায় এতে। এমনকি ডিএসএলআর এর মতো ম্যাক্রো ছবিও তোলা যাবে এই ক্যামেরা দিয়ে। ভিডিও কল ও সেলফির জন্য প্রিমো এক্স-ফোর স্মার্টফোনটির সামনে রয়েছে বিএসআই সেন্সরের ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা, যার অ্যাপারচার এফ ২ দশমিক ২।

ফোনটিতে অন্যান্য ফিচার হিসেবে রয়েছে ডুয়েল ব্যান্ড ওয়াইফাই, ব্লুটুথ সংস্করণ ৪, ওয়্যারলেস ডিসপ্লে শেয়ারিং, ওয়াই-ফাই হটস্পট, ওটিএ ও ওটিজি-সুবিধা। দ্রুতগতিতে ডেটা ট্রান্সফারের জন্য রয়েছে আধুনিক ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট-সুবিধা। ওটিজি থাকায় স্মার্টফোনটিতে ইউএসবি কি-বোর্ড, গেমিং কনসোল, পেন ড্রাইভ ব্যবহার করা যাবে।
ফোরজি-সমর্থিত হ্যান্ডসেটটির দাম ২২ হাজার ৯৯০ টাকা।