কিভাবে মাত্র এক মিনিটে ঘুমাবেন?

এটা শুরু হয়েছিল আমার প্রিয় বন্ধুর বিয়ের এক সপ্তাহ আগে থেকে। এতে করে আমি খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম এবং না ঘুমানোর জন্য আমি ছিলাম ক্লান্ত। 

তিন সপ্তাহ কোনোরকম বিশ্রাম না নিয়ে আমি আমার শ্বাশুড়ি মা কে বললাম যে আমি কি করব? তিনি আমার সমস্যা সমাধানে আমাকে কিছু কৌশল বদলাতে বললেন। এটা আমার ক্ষেত্রে শুধু কাজ ই করে নি এটা আমার জীবন বদলে দিয়েছিল। এটাকে বলা হয় ৪-৭-৮ পদ্ধতি। যেটা আপনার জন্যও দরকার।
১. চার সেকেণ্ডের জন্য শান্তভাবে নিশ্বাস নিন।
২. এরপর ৭ সেকেন্ড নিশ্বাস বন্ধ রাখুন।
৩. ধীরে ধীরে মুখ থেকে ৮ সেকেন্ড নিশ্বাস নিন।
এটা কিন্তু খুবই সাধারণ। এটা আপনাকে উত্তেজিত করবে কিন্তু খুব কাজ করবে। 

কীভাবে এটা কাজ করবে?
আমি ভেবেছিলাম তিনি মনে হয় আমার সাথে ঠাট্টা করছেন। পরদিন সকালে আমি যখন জেগে উঠলাম,আমি ভেবেছিলাম ঘুমের আগে কিছু ব্যায়াম করার জন্য আমার ভাল ঘুম হয়েছিল।
কিন্তু আমি ধরতে পেরেছিলাম কিভাবে এতা কাজ করছে। যখন আপনি উত্তেজিত থাকবেন তখন রক্তে প্রচুর পরিমান এডেরেলীন হরমোন বেড়ে যায় এবং আপনার
শ্বাস প্রশ্বাস দ্রুত হয় এবং পরিষ্কার হয়। এই ব্যায়ামটা এক ধরনের প্রশান্তিদায়ক। ধীর গতিতে শ্বাস নেবার ফলে আপনার বুক ধীরে ধীরে উথানামা করে এবং মনকে শান্ত করে।
এর ফলে আপনার সমস্ত শরীর শান্ত হয়। এটা কোন রকম শারীরিক ক্ষতি ছাড়াই আপনার অনুভূতিকে পরিবর্তন করবে। এই অনুসন্ধানটি প্রথম করেছিলেন ডাক্তা্র অ্যান্ড্রু ওয়েইল, যিনি ৪-৭-৮ পদ্ধতিটি ভারতসহ তার আশপাশের অঞ্চলে খুঁজে পেয়েছিলেন। তারা এটাকে বিনোদনের জন্যই ব্যবহার করতো। 

কীভাবে এটা আপনাকে উপকার করবে?
আমি আপনাকে একটা কথাই বলতে চাই যদি কখনো  এই ব্যায়ামটি আমার মত আপনাকেও প্রভাবিত করে তবে এটা আপনাকে যে কোনও পরিবেশে দ্রুত ঘুমাতে সাহায্য করবে। যদি গভীর রাতে আপনার ঘুম ভেঙ্গে যায় তখনো এটা আপনাকে  সাহায্য করবে। জীবনের যেকোনো সময় আপনি স্নাউবিক দুর্বল হলে এই পদ্ধতিটিকে কাজে লাগাতে পারেন।
সেই বিয়ের পর থেকেই আমি প্রতি রাতেই এটা করি। এবং প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে আমি অবাক হই কী চমৎকার এটা কাজ করে!

কিভাবে মাত্র এক মিনিটে ঘুমাবেন?এটা শুরু হয়েছিল আমার প্রিয় বন্ধুর বিয়ের এক সপ্তাহ আগে থেকে। এতে করে আমি খুব ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম এবং না ঘুমানোর জন্য আমি ছিলাম ক্লান্ত।