এশিয়ার কোন দেশের পাসপোর্ট শক্তিশালী ও দুর্বল !

 
এশিয়ার অধিবাসীদের জন্য উন্নত দেশে ভ্রমণ করতে যাওয়াটা একটু কঠিনই বটে। তবে এই মহাদেশের সব রাষ্ট্রের নাগরিকদের একইরকম সমস্যা ভোগ করতে হয় না। আপনি যদি সিঙ্গাপুর, জাপান এবং মালয়েশিয়ার নাগরিক হোন তাহলে আপনার জন্য বর্হিবিশ্বে ভ্রমণের সুযোগটা তুলনামূলকভাবে বেশি।
বিশ্বব্যাপী পাসপোর্ট  নিয়ে গবেষণাকারী সংস্থা আর্টন ক্যাপিটাল জানায়, এসব দেশের মধ্যে সিঙ্গাপুরের পাসপোর্টকে এশিয়ার সবচেয়ে শক্তিশালী এবং সারা বিশ্বে দ্বিতীয় শক্তিশালী পাসপোর্ট হিসেবে গণ্য করা হয়।

এছাড়াও, ১৫৭টি দেশে ভিসামুক্ত ভ্রমণের সুবিধা পান সিঙ্গাপুরের পাসপোর্টধারীরা। আর ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলের মধ্যে ১৭৭টিতে ভিসামুক্ত ভ্রমণের সুবিধা নিয়ে সারা পৃথিবীতে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে জার্মান পাসপোর্ট।

এশিয়ার শক্তিশালী পাসপোর্টধারী অন্যান্য দেশের মধ্যে রয়েছে জাপান (১৫৫), মালয়েশিয়া (১৫৪), দক্ষিণ কোরিয়া (১৫৩), হংকং (১৪০) এবং ব্রুনেই (১৩৪)। এদিকে, ২৬টি দেশে ভিসামুক্ত ভ্রমণের সুবিধা নিয়ে সবচেয়ে দুর্বল বা ‘খারাপ পাসপোর্টের’ তালিকায় রয়েছে পাকিস্তান। এরপর রয়েছে শ্রীলঙ্কা (৩৫), বাংলাদেশ (৩৫) এবং নেপাল (৩৭)। চীন ও ভারতের অবস্থানও খুব একটা ভালো না। চীনের নাগরিকরা ৫৭টি ও ভারতের নাগরিকরা ৪৬টি দেশে ভিসা ছাড়াই ভ্রমণ করতে পারেন।

আর্টন ক্যাপিটালের প্রধান নির্বাহী জন হানাফিনের মতে, “সুযোগ-সুবিধা বাড়ানো এবং সীমান্ত নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে এই তালিকাটি তৈরি করা হয়েছে।”