হোয়াটসঅ্যাপের ১০ বিস্ময়কর তথ্য

10-surprising-facts-WhatsApp 

সামাজিক মাধ্যমে ‍যোগাযোগের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ খুবই জনপ্রিয় এক অ্যাপ। ২০১৪ সালে ফেসবুক ১৯ বিলিয়ন ডলার দিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ কিনে নেয়। আপনি প্রতিদিনই যোগাযোগের জন্য সহজ এই অ্যাপ ব্যবহার করছেন। কিন্তু আপনি হোয়াটসঅ্যাপের ১০ বিস্ময়কর তথ্য জেনে খুশি হবেন। তথ্যগুলো হলো :

জন মানুষ, বিলিয়ন ডাউনলোড : গত বছর মার্চ মাসে ১ বিলিয়ন মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ তাদের মোবাইলে ডাউনলোড করেছে। জেনে অবাক হবেন, হোয়াটসঅ্যাপের অফিসে কাজ করেন মাত্র পাঁচজন।

সহ-প্রতিষ্ঠাতাকে নাকচ করেছিল ফেসবুক টুইটার : জান কয়ুম ও ব্রায়ান অ্যাক্টন দুইজনেই ইয়াহুতে কাজ করতেন। দুইজনেই ফেসবুক ও টুইটারে চাকরির ইন্টারভিউতে বাদ পড়েছিলেন। এরপর তারা হোয়াটসঅ্যাপে কাজ শুরু করেন।

ছবি ভিডিওর সাইজ কমাতে পারবেন : আপনি হয়তো অন্য কোন অ্যাপ ব্যবহার করে ফোনের ছবি ও ভিডিওর সাইজ কমাতে পারবেন। কিন্তৃ অনেক সময় হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করে আপনি এ কাজ করতে পারবেন। হোয়াটসঅ্যাপের মিডিয়া ফোল্ডারে আপনি এ সুবিধ খুঁজে পাবেন।

ইউজার অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে পারবেন : হোয়াটসঅ্যাপে আপনি ফোন নাম্বার@এস.হোয়াটসঅ্যাপ.নেট নামে একটি ইউজার অ্যাকাউন্ট পাচ্ছেন।

ওয়েব থেকে সরাসরি চ্যাটিং : whatsapp://send?text=HELLO এই ঠিকানা আপনার ব্রাউজারে টাইপ করলে সরাসরি ওয়েব থেকে চ্যাটিং করতে পারবেন

মেসেজ কখন পড়া হল জানতে পারবেন : হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ পাঠালেন। মেসেজ পাঠানো হলো এবং আপনি দেখলেন তা পড়াও হয়েছে। কিন্তু কখন সেটা আপনি জানতে পারছেন না। হোয়াটসঅ্যাপে আপনি এই সুবিধা পাচ্ছেন। যে মেসেজটি সম্পর্কে আপনি জানতে চান সে মেসেজের ওপর ধরে রাখুন। এরপর ইনফো বাটনে চাপ দিয়ে আপনি সকল তথ্য জানতে পারবেন।

বিভিন্ন গ্রুপ ও কন্টাক্টে বিশেষ নোটিফিকেশন তৈরি করা : সবসময় মেসেঞ্জারে আসা সব মেসেজ দেখা সম্ভব হয় না। হোয়াটসঅ্যাপে আপনি আপনার কন্টাক্ট ও গ্রুপের জন্য বিশেষ নোটিফিকেশন তৈরি করতে পারবেন। তাহলে কখন কে মেসেজ পাঠাচ্ছে আপনি তা বুঝতে পারবেন। এ্যান্ড্রয়েড ফোনে আপনি এ সুবিধা পাবেন। আইওএসে এ সুবিধা নেই।

টেক্সট সাজানো : হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ পাঠানোর সময় আপনি টেক্সট সাজাতে পারবেন। আপনার ইচ্ছামতো বোল্ড, ইটালিক বা টিল্ডস করতে পারবেন। আপনি চাইলে এগুলো ভিন্নভাবে করতে পারবেন আবার একসঙ্গেও করতে পারবেন।

কোনো তথ্য জমা রাখে না : ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার বা স্কাইপের মতো হোয়াটসঅ্যাপ কোন তথ্য জমা রাখে না। আপনি কোর মেসেজ পাঠালে ডেলিভার হওয়ার পর তা সার্ভার থেকে মুছে যায়। এক্ষেত্রে আপনাকে তথ্য জমা রাখতে আইক্লাউড ও গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করতে হবে।

এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন সুবিধা : আপনি হোয়াটসঅ্যাপ নিশ্চিন্তে ব্যবহার করতে পারবেন। মেসেজের ক্ষেত্রে তারা এন্ড টু এন্ড এনক্রিপশন ব্যবহার করে। অর্থাৎ আপনার সব তথ্য বহাল তবিয়তে থাকে। হ্যাকাররা পর্যন্ত সে তথ্য উদ্ধার করতে পারবে না।

সামাজিক মাধ্যমে ‍যোগাযোগের জন্য হোয়াটসঅ্যাপ খুবই জনপ্রিয় এক অ্যাপ। ২০১৪ সালে ফেসবুক ১৯ বিলিয়ন ডলার দিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ কিনে নেয়। আপনি প্রতিদিনই যোগাযোগের জন্য সহজ এই অ্যাপ ব্যবহার করছেন। কিন্তু আপনি হোয়াটসঅ্যাপের ১০ বিস্ময়কর তথ্য জেনে খুশি হবেন। তথ্যগুলো হলো :