জেনে নিন কোন খাবারে কতটুকু ক্যালসিয়াম রয়েছে

Find-out-what-foods-contain-calcium 
                       ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার হাড় ও দাঁত মজবুত করে।


সুন্দর দৈহিক কাঠামোর জন্য হাড়ের সুস্থতা অপরিহার্য।  হাড় দেহের আকৃতি ধরে রেখে দেহকে সঠিকভাবে পরিচালিত করে। অথচ আমরা সবচেয়ে অবহেলা এই হাড়কে করে থাকি। দেহের সার্বিক সুস্থতার জন্য আমরা নানান কাজ করে থাকি। হাড়ের যত্নে কিছু করছেন কী? হাড় গঠনে ক্যালসিয়াম মূল ভূমিকা রাখে তা আমরা সবাই জানি। শুধু হাড় নয় দাঁত মজবুত করতেও ক্যালসিয়ামের ভূমিকা রয়েছে। কোন খাবারে কতটুকু ক্যালসিয়াম আছে তা জানা থাকলে প্রতিদিনকার ক্যালসিয়াম গ্রহণের পরিমাণটি ঠিক রাখা সম্ভব হবে।   


১। দুধ

ক্যালসিয়ামের অন্যতম উৎস হল দুধ। সহজে হজম হয় বলে এই পানীয়টি যেকোনো সময় গ্রহণ করতে পারেন। এক কাপ দুধে ২৮০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম রয়েছে। যা প্রতিদিন ক্যালসিয়ামের চাহিদা পূরণ করতে সাহায্য করে।

২। কমলা

কমলা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন ডি এবং ক্যালসিয়াম রয়েছে যা ক্যালসিয়াম শুষে নিতেও সাহায্য করে। একটি মাঝারি আকৃতির কমলায় ৬০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম রয়েছে।

৩। সার্ডিন

ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ যে সকল মাছ রয়েছে তার মধ্যে সার্ডিন অন্যতম। একটি সার্ডিন মাছে ৫৬৯ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম রয়েছে। আপনি যদি মাছ পছন্দ করেন তাহলে এই মাছটি প্রতিদিনকার খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন।

৪। কাঠবাদাম

এক কাপ কাঠাবাদমে ৪৫৭ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম রয়েছে। শুধু ক্যালসিয়াম নয় এটি প্রোটিনের অন্যতম উৎস। যা হৃদরোগ প্রতিরোধ করার পাশাপাশি স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। প্রতিদিন সকালে কিংবা বিকালের এক মুঠো কাঠবাদাম খাওয়ার চেষ্টা করুন। 

৫। সয়া মিল্ক

দুধে অ্যালার্জি থাকলে কিংবা দুধ পান করতে পছন্দ না করলে সয়া মিল্ক  পান করতে পারেন। সয়া মিল্কে প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি রয়েছে। নিয়মিত পানে এটি ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি উভয়ের চাহিদা পূরন করে থাকে।

৬। ফিগ বা ডুমুর

এই খাবারটি ক্যালসিয়ামের অন্যতম আরেকটি উৎস। এক কাপ ড্রাই ফিগে রয়েছে ২৪২ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম। যা হাড় মজবুত করতে সাহায্য করে। এছাড়া এর ম্যাগনেসিয়াম পেশী সুগঠন করতে সাহায্য করে।

৭। টকদই

এক কাপ টকদই প্রতিদিনের ক্যালসিয়ামের চাহিদা পূরণে যথেষ্ট। ফ্যাট ফ্রি টকদইয়ে ৩০% ক্যালসিয়াম এবং ২০% ভিটামিন ডি রয়েছে। আপনি চাইলে প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় রাখতে পারেন এক কাপ টকদই।

৮। ডিম

ডিমকে বলা হয় ‘সুপারফুড’। ডিমে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এবং খনিজ। প্রোটিনের সব চাইতে ভালো উৎস হচ্ছে ডিম। তবে এতে মাত্র ৬% ভিটামিন ডি রয়েছে। হাড়ের সুস্থতায় প্রতিদিন একটি ডিম খাওয়ার অভ্যাস করুন।

৯। পালংশাক

দুধ খেতে পছন্দ করেন না? দুধের ক্যালসিয়ামের চাহিদা পুরণ করবে পালংশাক। এক কাপ পালংশাকে রয়েছে ২৫% ক্যালসিয়াম,  ফাইবার, আয়রন এবং ভিটামিন এ।

সুন্দর দৈহিক কাঠামোর জন্য হাড়ের সুস্থতা অপরিহার্য। হাড় দেহের আকৃতি ধরে রেখে দেহকে সঠিকভাবে পরিচালিত করে। অথচ আমরা সবচেয়ে অবহেলা এই হাড়কে করে থাকি। দেহের সার্বিক সুস্থতার জন্য আমরা নানান কাজ করে থাকি। হাড়ের যত্নে কিছু করছেন কী? হাড় গঠনে ক্যালসিয়াম মূল ভূমিকা রাখে তা আমরা সবাই জানি। শুধু হাড় নয় দাঁত মজবুত করতেও ক্যালসিয়ামের ভূমিকা রয়েছে। কোন খাবারে কতটুকু ক্যালসিয়াম আছে তা জানা থাকলে প্রতিদিনকার ক্যালসিয়াম গ্রহণের পরিমাণটি ঠিক রাখা সম্ভব হবে।