দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারির এক্স ফোর প্রো!

Four-lasting-battery-X-Pro 



সম্প্রতি দেশের বাজারে এক্স সিরিজে নতুন স্মার্টফোন হিসেবে এক্স ফোর প্রো উন্মুক্ত করেছে ওয়ালটন। ফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ফলে স্মার্টফোনটিতে দীর্ঘক্ষণ ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়। একবার ফুলচার্জ দিয়ে দীর্ঘক্ষণ এইচডি মানের ভিডিও কনটেন্ট দেখা যায় এতে। এক্সপ্রেস ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি থাকায় দুই ঘণ্টায় পূর্ণ চার্জ হয় ফোনটিতে।


সম্প্রতি ফ্ল্যাগশিপ ফোন হিসেবে এক্স ফোর প্রো ফোনটি বাজারে ছাড়ে ওয়ালটন। বেশ কিছু উন্নত ফিচারের কারণে এটি গ্রাহকের কাছে ইতিবাচক সাড়া পেয়েছে। এর উল্লেখযোগ্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে দ্রুতগতির ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার। ৮ দশমিক ২ মিলিমিটার পুরুত্বের ফোনটির হোম বাটনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার রয়েছে। এটি ০.৩ সেকেন্ডের মধ্যে সেটটি আনলক করতে পারে। ফোনটিতে রয়েছে ৬৪ বিটের ২ গিগাহার্টজ অক্টা-কোর প্রসেসর। এর র‍্যাম ৪ জিবি। গেমিংয়ের জন্য ব্যবহৃত হয়েছে মালি টি-৮৬০ গ্রাফিকস। এর ইন্টারনাল মেমোরি ৬৪ জিবি। ১২৮ জিবি পর্যন্ত এক্সটারনাল মেমোরি সমর্থন করে।

ধাতব কাঠামোর ফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লে। সাড়ে পাঁচ ইঞ্চির ফুল এইচডি স্ক্রিনে আঘাত ও আঁচড় প্রতিরোধের জন্য ব্যবহার করা হয়েছে চতুর্থ প্রজন্মের কর্নিং গরিলা গ্লাস।

স্মার্টফোনটির পেছনে ১৬ মেগাপিক্সেল ও সামনে ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে। পেছনের ক্যামেরার অ্যাপারচার এফ ২.০। কানেক্টিভিটির জন্য আছে ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ ভার্সন ৪, ওয়্যারলেস ডিসপ্লে শেয়ারিং, ওয়াই-ফাই হটস্পট, ওটিএ ও ওটিজি সুবিধা। ইউএসবি কিবোর্ড, গেমিং কনসোল ও পেনড্রাইভ ব্যবহার সুবিধাও আছে এতে।

দুই সিম সুবিধার ফোনটি থ্রিজি ও ফোরজি সমর্থন করে। ফোনটির দাম ২৮ হাজার ৯৯০ টাকা। কিস্তিতেও এটি কেনার সুবিধা আছে।

সম্প্রতি দেশের বাজারে এক্স সিরিজে নতুন স্মার্টফোন হিসেবে এক্স ফোর প্রো উন্মুক্ত করেছে ওয়ালটন। ফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। ফলে স্মার্টফোনটিতে দীর্ঘক্ষণ ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়। একবার ফুলচার্জ দিয়ে দীর্ঘক্ষণ এইচডি মানের ভিডিও কনটেন্ট দেখা যায় এতে। এক্সপ্রেস ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি থাকায় দুই ঘণ্টায় পূর্ণ চার্জ হয় ফোনটিতে।