জিপির ৩০ কোটি টাকা জরিমানার বিষয়ে বিশ্লেষণ শেষে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে: সৈয়দ তালাত কামাল

GP-30-million-fine-will-be-decided-at-the-end-of-the-analysis-Syed-Talat-Kamal    গ্রামীণফোনের হেড অব এক্সটার্নাল কমিউনিকেশনস সৈয়দ তালাত কামাল।


গো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা নিয়ে কিছুদিন আগেই গ্রামীণফোনকে ৩০ কোটি টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। 

 
কমিশনে কয়েক দফায় এই নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং সর্বশেষ ২০১তম কমিশন বৈঠকে জিপিকে ৩০ কোটি টাকা জরিমানা দিতেই হবে বলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে গ্রামীণফোন এখনও জরিমানার বিষয়ে বিশ্লেষণ করছে। এদিকে সম্প্রতি চতুর্থ প্রান্তিকের আয়-ব্যয়ের হিসাব তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলনে গ্রামীণফোনের সিইও পেটার ফারবার্গ জানান, ২০১৬ সালে ১১ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে গ্রামীণফোন। যা ২০১৫ সালের তুলনায় প্রায় ৯.৬% বেশি। একই সঙ্গে গত বছর প্রতিষ্ঠানটির কর পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ২২৫০ কোটি টাকা। যা ২০১৫ সালে ছিল ১৯৭০ কোটি টাকা। ২০১৬ সালে ১১ হাজার ৪৯০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে অপারেটরটি। যা ২০১৫ সালের তুলনায় প্রায় ৯.৬% বেশি। এসব বিষয়ে কথা হয় গ্রামীণফোনের হেড অফ এক্সটার্নাল কমিউনিকেশনস সৈয়দ তালাত কামালের সাথে।


দেশি অফার : গ্রামীণফোনের রাজস্ব বৃদ্ধি অব্যাহত আছে। এর রহস্য কী?

সৈয়দ তালাত কামাল: গ্রামীণফোন সব সময় তার গ্রাহকদের প্রয়োজনকে প্রাধান্য দেয় এবং সেই লক্ষ্যে বিনিয়োগ করে। গত বছর গ্রামীণফোন সারা দেশে থ্রিজি বিস্তারে ব্যাপক বিনিয়োগ করে এবং তার বিভিন্ন সেবা সহজ করেছে। এছাড়া বিতরণ নেটওয়ার্কেরও সম্প্রসারণ করা হয়েছে। এসব কারণে গ্রামীণফোনের রাজস্ব আয়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

দেশি অফার: ডাটা গ্রাহক বাড়ছে। আগামীতে ভয়েস কলের ব্যবসা পড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে কী না?

সৈয়দ তালাত কামাল: বিশ্ব জুড়েই ডাটার ব্যবহার বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে ভয়েস কলের পরিমাণ কমে আসছে। তবে বাংলাদেশে পরিস্থিতি ভিন্ন কারণ এখনো আমাদের ৭০ ভাগের বেশি গ্রাহক ফিচার ফোন ব্যবহার করেন। তাই এখনো ভয়েস কলের প্রবৃদ্ধি হচ্ছে।

দেশি অফার: ইন্টারনেট গ্রাহক বৃদ্ধির ব্যাপারে আপানাদের একটি পরিকল্পনা ছিল। সেটা এখন কী অবস্থায় আছে?

সৈয়দ তালাত কামাল: আমরা ইন্টারনেট গ্রাহক বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন রকম পদক্ষেপ নিচ্ছি। থ্রিজি নেটওয়ার্ক বিস্তারের পাশাপাশি আমরা স্বল্প মূল্যে স্মার্টফোন ক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি। বিভিন্ন রকম ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মও আমরা গড়ে তুলছি। এর ফলাফল গত বছর দেখেছি এবং ৮৮ লক্ষ নতুন গ্রাহক ইন্টারনেট ব্যবহার শুরু করেছেন।

দেশি অফার: ২০১৭ সালে রাজস্ব বৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা কত এবং এ জন্য কী কী করছেন?

সৈয়দ তালাত কামাল: একটি তালিকাভূক্ত কোম্পানি হিসেবে আমরা ভবিষ্যতমূখী মন্তব্য করতে পারি না।

দেশি অফার: গ্রামীণফোনের ৩০ কোটি টাকা জরিমানার বিষয়ে আপনারা কী সিদ্ধান্ত নিলেন?

সৈয়দ তালাত কামাল: আমরা বিটিআরসির চিঠি পেয়েছি এবং তার বিভিন্ন দিকগুলো খতিয়ে দেখছি। বিশ্লেষণ শেষে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। এখানে উল্লেখ্য যে আমরা বিটিআরসিকে জানিয়েই গো ব্রডব্যান্ড সেবা চালু করেছিলাম।

গো ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা নিয়ে কিছুদিন আগেই গ্রামীণফোনকে ৩০ কোটি টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।