বিয়ের শাড়ি কেনাকাটা

Gold-wedding-shop 

যদিও মূল্য দিয়ে কিনতে হয় তবুও বিয়ে মানেই মেয়েদের প্রধান অমূল্য সম্পদ বিয়ের শাড়ি। বিয়েতে কনের জন্য লাল, সাদা, নীল, মেরুন, ভারী কাজের শিফন, জামদানি, বেনারসি বা জর্জেট শাড়ি থাকতে পারে। তবে বিয়ের শাড়ি মানেই লাল শাড়ি সবার আগে মনে পড়ে। তবে আজকাল শাড়ির মধ্যে কমলা বা সবুজ রঙের শাড়িও রাখতে পারেন। কনের বিয়ের বেনারসি, শিফন, জর্জেট ও জলপাই রঙের শাড়িসহ বিয়ের সব শাড়ির দাম পড়বে ৫ হাজার থেকে আপনার সামর্থ অনুযায়ী।

আজকাল ঢাকার অনেক ফ্যাশন হাউজগুলোতে এখন অন্যান্য পোশাকের সাথে বিয়ের শাড়ির আয়োজনও রাখছে।


আড়ং থেকে বিয়ের শাড়ি নিতে চাইলে ৭,৩৯০.৪৮ টাকা থেকে ১৪,৬৫৭.১৪ টাকার মাঝে পাবেন। এর মধ্যে রয়েছে সুতি, সিল্ক, জামদানী, মুসলিন ও নকশীকাঁথা। আর আপনি চাইলেই এই শাড়িগুলো অনলাইন থেকে ঘরে বসেই অর্ডার করতে পারবেন।
এছাড়া ঢাকার মিরপুরে বেনারসি পল্লীতে গেলেই আপনি পাবেন বিয়ের শাড়ির বিশাল সমাহার। যা আপনি অন্য কোথাও পাবেন না। এখানে বিয়ের শাড়ি আপনি ৫০০০ টাকা থেকে ২,০০,০০০ টাকা বা তারো ওপরে দামে পাবেন। সেখানে গেলে আবশ্যই হাতে সময় নিয়ে যাবেন।  দাম দর করে কেনা কাটা করবেন।



আর আমাদের সকলের পরিচিত নিউমার্কেট, চাঁদনী চক, এবং ধানমন্ডি হকার্স মার্কেটেও পাবেন বিয়ের শাড়ির বিশাল সমাহার। এখানেও আপনি আপনার সামর্থের মাঝে কেনাকাটা করতে পারেন বিয়ের শাড়ি ও আনুসাঙ্গিক জিনিসপত্র। এখানেও দাম ৫০০০ টাকা থেকে বিভিন্ন দামের শাড়ি পাবেন।

যদিও মূল্য দিয়ে কিনতে হয় তবুও বিয়ে মানেই মেয়েদের প্রধান অমূল্য সম্পদ বিয়ের শাড়ি। বিয়েতে কনের জন্য লাল, সাদা, নীল, মেরুন, ভারী কাজের শিফন, জামদানি, বেনারসি বা জর্জেট শাড়ি থাকতে পারে। তবে বিয়ের শাড়ি মানেই লাল শাড়ি সবার আগে মনে পড়ে। তবে আজকাল শাড়ির মধ্যে কমলা বা সবুজ রঙের শাড়িও রাখতে পারেন। কনের বিয়ের বেনারসি, শিফন, জর্জেট ও জলপাই রঙের শাড়িসহ বিয়ের সব শাড়ির দাম পড়বে ৫ হাজার থেকে আপনার সামর্থ অনুযায়ী।