মহাকাশে বয়স কমে!

Reduced-space-age 

সম্প্রতি নাসার এক গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, দীর্ঘ দিন মহাকাশে কাটালে বয়স বৃদ্ধি শুধু থেমেই যায় না উল্টো কমে। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা টানা এক বছর আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে কাটানো নভোচারী স্কট কেলি’র ওপর পরীক্ষা চালিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে।

তাহলে কি মহাকাশচারী স্কট কেলি তাঁর দেহঘড়িকে সত্যি পেছনের দিকে ছোটাতে পেরেছিলেন? সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে কি তবে কেলি হয়ে উঠেছিলেন তরুণ থেকে তরুণতর? অথা‌ৎ সামনের দিকে এগিয়ে চলা বয়সের গতির লাগাম টেনে তা পেছনের দিকে ছোটাতে পেরেছিলেন স্কট কেলি?

মহাকাশ স্টেশনে এক বছর কাটানোর পর কেলির শরীরে কী কী পরিবর্তন হয়েছিল, তার ওপর চালানো গবেষণাপত্রে এমনটাই দাবি করা হয়েছে। গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, মহাকাশ স্টেশনে টানা এক বছর থাকাকালে কেলির শরীরের ‘বার্ধক্যের গতি’ (ageing process) উল্টো দিকে ছুটেছিল। মানে, কেলি তখন তরুণ থেকে আরও তরুণ হয়ে উঠেছিলেন।


স্কট কেলি ও তাঁর যমজ ভাই মার্ক কেলির শরীরের বায়োকেমিস্ট্রি পরীক্ষা করে গবেষকরা  দেখেছেন, পৃথিবীতে থাকা অবসরপ্রাপ্ত মহাকাশচারীর ভাই মার্ক কেলির তুলনায় ওই সময় মহাকাশ স্টেশনে থাকা স্কট কেলি আরও তরুণ হয়ে উঠেছিলেন।

বিজ্ঞানীরা জানান, সাধারণত শরীরের ডিএনএ’র ক্ষয়ক্ষতি রোধ করে ‘টেলোমিয়ার টেলোমেরাস’ নামক এনজাইম। যদিও বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে তা দৈর্ঘ্যে ছোট হতে থাকে। অথা‌ৎ, ক্ষমতা কমতে থাকে। ফলে ‘টেলোমেরেস’ ডিএনএ’র ক্ষয়ক্ষতি সারাতে পারে না। কিন্তু গবেষণায় দেখা গেছে, স্কট কেলির ক্ষেত্রে ঘটেছে উল্টোটি।

 মহাকাশে কাটানোর সময় স্কট কেলির শরীরের ‘টেলোমেরেস’ লম্বায় বড় হয়ে গিয়েছিল। এবং ওই সময় পৃথিবীতে থাকা তাঁর যমজ ভাই মার্ক কেলির ‘টেলোমেরেস’-এর তুলনায় তা অনেকটাই বড় হয়ে গিয়েছিল।


নাসা অবশ্য এটাও বলছে, দীর্ঘ দিন মহাকাশে কাটানোর জন্য যে কঠোর শারীরিক অনুশীলনের মধ্যে দিয়ে যেতে হয় কিংবা যে স্বল্প পরিমাণ আহারের মধ্যে নিজেকে সীমাবদ্ধ রাখতে হয়, সে কারণেও ‘তরুণ’ হয়ে উঠতে পারেন মহাকাশচারীরা।

যদিও নাসার ওই গবেষণা এখনও প্রাথমিক স্তরে। কোনও কোনও বিজ্ঞানী অবশ্য বলছেন, ‘‘অবিশ্বাস্য এই আবিষ্কার গবেষণার নতুন দিগন্ত খুলে দিচ্ছে।’’
অবশ্য পৃথিবীতে ফিরে আসার পর স্কট কেলির ‘টেলোমেরেস’-এর দৈর্ঘ্য আবার কমে গিয়েছে বলেই জানিয়েছেন নাসার গবেষকরা।

সম্প্রতি নাসার এক গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, দীর্ঘ দিন মহাকাশে কাটালে বয়স বৃদ্ধি শুধু থেমেই যায় না উল্টো কমে। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা টানা এক বছর আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে কাটানো নভোচারী স্কট কেলি’র ওপর পরীক্ষা চালিয়ে বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে।