ইসলামকে হেয় করার অভিযোগে পাকিস্তানে নিষিদ্ধ ‘রেইস’


‘রেইসের বিষয়বস্তু আপত্তিকর। সিনেমার কাহিনীতে ইসলাম ধর্মকে হেয় করা হয়েছে। মুসলামানদের সন্ত্রাসী ও অপরাধীর চরিত্রে উপস্থাপন করা হয়েছে। এজন্য সিনেমাটি বন্ধ করা হয়েছে’। কথাগুলো পাকিস্তান সেন্সর বোর্ডের।
 
নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত সপ্তাহে পাকিস্তানে ভারতীয় সিনেমা প্রদর্শনের অনুমতি মেলে। ইতোমধ্যে সেখানে ‘কাবিল’, ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’র মতো ছবিগুলি দেখানো শুরু হয়। তবে ‘রেইস’ মুক্তির ছাড়পত্র শেষপর্যন্ত মিলল না। আটকে গেল প্রদর্শন। 
 
সোমবারের নতুন নির্দেশে বাদ দেয়া হলো শাহরুখ-মাহিরার সিনেমা। এ ঘোষণায় বেশ ক্ষুব্ধ পরিচালক রাহুল ঢোলাকিয়া। টুইট করে তিনি জানিয়েছেন, ‘পাকিস্তানে রেইস নিষিদ্ধ? ক্ষুব্ধ! হতাশ!’
 
পাক বোর্ডের জবাবে রাহুল ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন, পাকিস্তান বোর্ডের এমন সিদ্ধান্তে কিছু বলার নেই। রেইস বিশ্ব জুড়ে সাড়া ফেলেছে। সেখানে পাকিস্তানের এই সিদ্ধান্ত তাঁকে হতাশ করেছে!
 
ভারতে ‘রেইস’ মুক্তির পর তা পাকিস্তানে প্রদর্শনের জন্য প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র চেয়ে পাকিস্তানি সেন্সর বোর্ডের কাছে আবেদন করে ছবিটির ডিস্ট্রিবিউটর সংস্থা। ওই ডিস্ট্রিবিউটর সংস্থার তরফ থেকে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।