১০ সেকেন্ডের ৬টি অভ্যাসে পান সুস্থ নিরোগ জীবন


১০ সেকেন্ডের মধ্যে কী কী কাজ করতে পারেন? অবাক হয়ে ভাবছেন ১০ সেকেন্ডে কী আর করা সম্ভব! অথচ ১০ সেকেন্ড কিংবা তার চেয়ে কম সময়ে পেয়ে যেতে পারেন সুস্বাস্থ্য, দারুণ আকর্ষণীয় ফিগার! কীভাবে? এর জন্য প্রয়োজন হবে কিছু অভ্যাস আয়ত্তে আনার। প্রতিদিনের এই কাজগুলো আপনাকে রাখবে সুস্থ এবং আপনার কাজের ক্ষমতা বাড়িয়ে দেবে বহুগুণ। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু অভ্যাস যা আপনার জীবনকে পরিবর্তন করে দেবে।
১। দুধ পান করুন
সুস্থতার অন্যতম উপাদান হলো দুধ। সকালের নাস্তায় অনেকে দুধে কর্নফ্লেক্স ভিজিয়ে খেয়ে থাকেন কিন্তু খাওয়া শেষে বাকি দুধটা আর পান করেন না। এটা ভুল, কারণ কর্নফ্লেক্সের ৪০ শতাংশ পুষ্টি দুধেই মিশে যায়। এ কারণে দুধটা রেখে দেবেন না, পান করে ফেলুন।
২। ঠান্ডা পানি পান করুন
ব্যায়ামের আগে এবং পরে কয়েক গ্লাস বরফ ঠান্ডা পানি পান করুন। গবেষণায় দেখা গেছে ঠান্ডা পানি ২৩% সহনশীলতা বৃদ্ধি করে। এছাড়া ব্যায়ামের পর ঠান্ডা পানি মেটাবলিজম হার বৃদ্ধি করে।
৩। লাল বাঁধাকপি
সবুজ বাঁধাকপির চেয়ে লাল বাঁধাকপিতে ১৫ গুন বেশী রিঙ্কেল প্রতিরোধের উপাদান আছে। এমনকি ভিটামিন সি এর পরিমাণ ও সবুজ বাধাকপির চেয়ে বেশী আছে। প্রতিদিনের খাদ্যের তালিকায় লাল বাঁধাকপি রাখুন এটি আপনার ত্বকে বয়সের ছাপ পড়া রোধ করতে সাহায্য করবে।
৪। নিজেকে খুশি রাখুন
জিমে যেতে ইচ্ছা করছে না? প্রতিবার ব্যায়াম করার সময় আপনার ঘরের ছোট ব্যাংকে কিছু টাকা ফেলুন। মাস শেষে সেই জমানো টাকা দিয়ে নিজের পছন্দের কোন কিছু কিনে নিন। কিনতে পারেন যে কোনো কিছু তা হতে পারে ছোট একটি চকলেটও। এতে ব্যায়াম করার উদ্যম পাবেন। 
৫। পাউরুটি খাওয়া বন্ধ করুন
সাদা পাউরুটি খাওয়া বন্ধ করুন। সাদা পাউরুটির পরিবর্তে ফাইবারে সমৃদ্ধ ব্রাউন ব্রেড খেতে পারেন। গবেষণায় দেখা গেছে যারা ব্রাউন ব্রেড খান তাদের ক্ষুধা কম লাগে। এটি দীর্ঘক্ষণ পেট ভরিয়ে রাখতে পারে
৬। শুনুন আপনার পায়ের কথা
পা আমাদের শরীরে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। আর এই পা-কেই আমরা সবচেয়ে বেশী অবহেলা করে থাকি। দৌড়ে দৌড়ে না চলে মাটির কাছাকাছি পা রেখে হাঁটার অভ্যাস করুন। এতে আহত হবার সম্ভাবনা কম থাকবে।