ফ্যাশনে বাহারি কোটি



ফ্যাশনের দিক থেকে মানুষ পছন্দ করে নতুনত্ব। কতটা নতুনভাবে নিজেকে সাজানো যায়। নিজেকে বাহ্যিকভাবে কতটা গ্রহণযোগ্য করে সবার কাছে তুলে ধরা যায়। ফ্যাশনের নিজস্ব কোনো ভাষা নেই। আপনি ফ্যাশনকে যেভাবে ধারণ করবেন, সে আপনাকে সেভাবেই ফুটিয়ে তুলবে। ফ্যাশনের এই যোগসূত্রে বর্তমানে কোটি রয়েছে মেয়েদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে। 

ফোরটাচ, লং স্লিভ, আনারকলি অথবা সিম্পল কামিজের সাথেও ব্যবহার করা হচ্ছে কোটি।  তবে টিনএজ বয়সী মেয়েদের মধ্যে কোটির ব্যবহার বেশি। কোটির ডিজাইনে এসেছে বেশ বৈচিত্র্য। সামনে কাটা পুরনো ডিজাইনের কোটি যেমন রয়েছে তেমনি টিউনিকের মতো ডিজাইনও করা হচ্ছে। এগুলোতে সাধারণ এক সাথে দুটো জামা দিয়ে ডিজাইন করা হয়। 

অন্যদিকে শর্ট কামিজের মতো ডিজাইন দিয়েও কোটি করা হচ্ছে, এই কোটিগুলো শাড়ির সাথে বেশি পরতে দেখা যাচ্ছে। কোটির লেন্থেও রয়েছে বৈচিত্র্য। কখনো মাঝারি, কখনো ছোট আবার কখনো লম্বা লেন্থে কোটি বা টিউনিকের ডিজাইন করতে দেখা যাচ্ছে। কখনো জামার সাথেই যুক্ত করে কোটির ব্যবহার করা হয়েছে।

কোটিগুলোতে কালার কন্ট্রাস্ট বেশ উল্লেখযোগ্য। সিঙ্গেল কালার কোটিতে বিভিন্ন কন্ট্রাস্ট কালারের পাড় ব্যবহার করা হচ্ছে। কোনো কোটিতে জারদৌসি বা জরির কাজও দেখা যাচ্ছে। আবার কোনোটিতে সিম্পল লেস দিয়ে ডিজাইনে আনা হয়েছে বৈচিত্র্য। ব্রাশ পেইন্ট ও ব্লকের ব্যবহারও উল্লেখ করার মতো।

তাছাড়া ফ্যাশনে কোটি এখন বেশ জনপ্রিয়। শর্ট কামিজ, ফ্রক, ডিজাইন করা জামা বা লং স্কার্টের সাথে কোটি পরলে বেশ স্মার্ট দেখায়, স্বাচ্ছন্দ্য লাগে। কোটি আবার আমাদের ফ্যাশনে নতুন অবয়বে ফিরে এসেছে। শুধু মেয়েদের নয়, ছেলেদের মধ্যেও এর ব্যাপক ব্যবহার রয়েছে।