আইওএসে সেরা স্ন্যাপচ্যাট

 


ইমেজ শেয়ারিং অ্যাপ স্ন্যাপচ্যাটের শেয়ার মূল্য কমে গেলেও আইওএস অ্যাপ স্টোরে স্ন্যাপচ্যাট-ই ছিল সবচেয়ে বেশি সার্চ করা অ্যাপ। মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাপ স্টোরে সার্চ করার দিক থেকে স্ন্যাপচ্যাট সবাইকে ছাড়িয়ে গেছে। ব্যবহারকারীরা সবচেয়ে বেশি সার্চ করেছে এই অ্যাপ।


আইওএস অ্যাপ স্টোরে সার্চের দিক থেকে স্ন্যাপচ্যাটের পরেই রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক মাধ্যম ফেসবুক মালিকানাধীন ইনস্টাগ্রাম। তবে ফেসবুক আছে তৃতীয় স্থানে এবং চতুর্থ স্থানে আছে গুগলের ভিডিও প্লাটফর্ম ইউটিউব। আর মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটার রয়েছে ষষ্ঠ অবস্থানে।

অ্যাপল জানিয়েছে, অ্যাপ স্টোরে সবচেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে চলতি বছরের ১ জানুয়ারি। এ দিন গ্রাহকরা রেকর্ড পরিমাণ ২৪ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয় করেছে। গবেষণা প্রতিষ্ঠান জ্যাকডো রিসার্চ এর বিশ্লেষক জ্যান ডসন জানিয়েছেন, বর্তমানে অ্যাপ স্টোর থেকে প্রতি ডলার আয়ের ৩০ সেন্ট পায় অ্যাপল। সে হিসাবে আগের বছর প্রতিষ্ঠানটির আয় হয়েছে ৮০০ থেকে ৯০০ কোটি মার্কিন ডলার।

ইমেজ শেয়ারিং অ্যাপ স্ন্যাপচ্যাটের শেয়ার মূল্য কমে গেলেও আইওএস অ্যাপ স্টোরে স্ন্যাপচ্যাট-ই ছিল সবচেয়ে বেশি সার্চ করা অ্যাপ। মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাপ স্টোরে সার্চ করার দিক থেকে স্ন্যাপচ্যাট সবাইকে ছাড়িয়ে গেছে। ব্যবহারকারীরা সবচেয়ে বেশি সার্চ করেছে এই অ্যাপ।