ফলের ফেসপ্যাকে উজ্জ্বল ত্বক

 Fruit-shiny-skin-phesapyake


মেকআপ ব্যবহারে সৌন্দর্য সাময়িকভাবে বাড়লেও দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে ত্বকে। তাই কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহার না করে প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যেই থাকুন সুন্দর। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ব্যবহার করতে পারেন ফলের ফেসপ্যাক। ফলে থাকা পুষ্টিগুণ বিবর্ণ ত্বকে ফিরিয়ে আনবে জৌলুস


মেকআপ ব্যবহারে সৌন্দর্য সাময়িকভাবে বাড়লেও দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে ত্বকে। তাই কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহার না করে প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যেই থাকুন সুন্দর। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ব্যবহার করতে পারেন ফলের ফেসপ্যাক। ফলে থাকা পুষ্টিগুণ বিবর্ণ ত্বকে ফিরিয়ে আনবে জৌলুস।

জেনে নিন বিভিন্ন ফলের ফেসপ্যাক কীভাবে তৈরি ও ব্যবহার করবেন-

স্ট্রবেরি ও দুধ

একটি পাকা স্ট্রবেরি চটকে ১ চা চামচ কাচা দুধ মিশিয়ে তৈরি করুণ ফেসপ্যাক। মিশ্রণটি ত্বকে লাগিয়ে রাখুন। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন এটি ব্যবহার করলে ত্বক হবে উজ্জ্বল।

কমলার খোসা, গোলাপজল ও মুলতানি মাটি

কমলার খোসার গুঁড়া ও মুলতানি মাটি সমপরিমাণে নিন। প্রয়োজন মতো গোলাপজল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। সপ্তাহে একদিন ফেসপ্যাকটি ত্বকে ব্যবহার করুন। ত্বক হবে দাগহীন।

কলা, লেবুর রস ও অ্যালোভেরা জেল

একটি পাকা কলা চটকে ১ টেবিল চামচ লেবুর রস ও অ্যালোভেরা জেল মেশান। মিশ্রণটি ত্বকে ২০ মিনিট লাগিয়ে রেখে ফেসওয়াশ দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন ব্যবহার করুন এটি। স্বাস্থ্যোজ্জ্বল হবে ত্বক।  

আঙুর, মধু ও লেবুর রস

কালো আঙুর চটকে মধু ও লেবুর রস মেশান। মিশ্রণটি পাতলা করে ত্বকে লাগিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ। শুকিয়ে গেলে ধিয়ে ফেলুন। ত্বকের কালচে দাগ দূর করবে এই ফেসপ্যাক।

পেঁপে, মধু ও ডিম

পাকা পেঁপে পাতলা টুকরা করে কেটে নিন। ১ টুকরা পাকা পেঁপের সঙ্গে ১ চা চামচ অপরিশোধিত মধু ও ১টি ডিমের সাদা অংশ মেশান। ভালো করে মিশিয়ে নিন সব উপকরণ। গলা ও মুখের ত্বকে লাগিয়ে রাখুন ফেসপ্যাকটি। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

মেকআপ ব্যবহারে সৌন্দর্য সাময়িকভাবে বাড়লেও দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে ত্বকে। তাই কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী ব্যবহার না করে প্রাকৃতিক উপাদানের সাহায্যেই থাকুন সুন্দর। ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে ব্যবহার করতে পারেন ফলের ফেসপ্যাক। ফলে থাকা পুষ্টিগুণ বিবর্ণ ত্বকে ফিরিয়ে আনবে জৌলুস