অনলাইন দুনিয়া নিরাপদ রাখার পাসওয়ার্ড টিপস্

Tips-to-keep-your-password-safe-online-world 

আপনার পাসওয়ার্ড কি শক্তিশালী? আপনি কি একই পাসওয়ার্ড বিভিন্ন একাউন্টে ব্যবহার করেন? আপনি হয়তো মারাত্মক ঝুঁকিতে আছেন! আপনার পাসওয়ার্ড পাল্টানো উচিত দ্রুত। তা না হলে আপনার ব্যক্তিগত ও পেশাগত জীবন মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়তে পারে।

আপনার অনলাইন দুনিয়া নিরাপদ রাখার জন্য পাসওয়ার্ড দেওয়ার ক্ষেত্রে মেনে চলবেন সাতটি টিপস্:
১. শক্ত পাসওয়ার্ড তৈরি করুন
শক্ত পাসওয়ার্ড মানেটা কি আসলে? আপনার পাসওয়ার্ড ১০ থেকে ১৫ ক্যারেক্টারের হওয়া উচিত। এবং সেখানে স্মল লেটার, ক্যাপিটাল লেটার, সংখ্যা বা বিশেষ ক্যারেক্টার যেমন @, $ বা * রাখা দরকার। এবং সেটা আগের কোন পাসওয়ার্ডের মতো হওয়া যাবে না।


২. সহজে অনলাইনে পাওয়া এমন তথ্য দিয়ে পাসওয়ার্ড নয়
ধরেন আপনার পোষা বিড়ালটাকে খুব পছন্দ করেন। তার নাম রাখলেন সুইটি। এখন সেটা দিয়ে যদি পাসওয়ার্ড রাখেন তাহলে অন্যরা কিন্তু ধরে ফেলতে পারেন। আপনি হ্যারি পটার ফ্যান তাই বলে হ্যারি পটার পাসওয়ার্ডে নিয়ে আসবেন না।
৩. প্রতিটি ওয়েবসাইট বা অ্যাপে অনন্য পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন
অনেকে একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে বিভিন্ন একাউন্টে। ফেসবুক, মেইল, ইয়াহু বা বিভিন্ন ওয়েবসাইটে একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করার মতো বোকামি করে অনেকে। কিন্তু এটা অনেক বড় নিরাপত্তা ঝুঁকি। কোন মতে একটা পাসবওয়ার্ড ফাস হয়ে গেলে আপনার সব একাউন্ট কিন্তু ঝুঁকিতে পড়ে গেল।
এখন বিভিন্ন একাউন্টের জন্য রাখা পাসওয়ার্ড আপনি ইচ্ছে করলে লিখে রাখতে পারেন। অবশ্য সেটা আপনার কম্পিউটারের আশেপাশে সেটা রাখবেন না। কোন গোপন জায়গায় বা বিশেষ সংকেত ব্যবহার করে আপনার পাসওয়ার্ডগুলো হাতে লিখে রাখতে পারেন। অবশ্য সেটা যেন অন্যের হস্তগত না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।


৪. যুক্ত একাউন্ট এড়িয়ে চলুন
যুক্ত একাউন্ট বিষয়টি কি? ফেসবুক একাউন্ট ব্যবহার করে আপনি ইচ্ছে করলে অন্যান্য সাইটেরও একাউন্ট খুলতে পারেন। কিন্তু এটা না করে সেই ওয়েবসাইটে গিয়ে নতুন করে একাউন্ট খোলাই ভালো। যুক্ত একাউন্ট অনেক আরামদায়ক। কিন্তু এ আরামদায়ক ব্যবস্থার অনেক ঝুঁকি আছে!
৫. কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবহার করুন
আপনার একাউন্টে প্রবেশ করার জন্য দু স্তর বা তার চেয়ে বেশি স্তরের অথেন্টিকেশন ব্যবহার করুন। কোন একাউন্টে প্রবেশ করতে হলে আপনার ফোন নাম্বার বা কয়েক স্তরের পদক্ষেপ যেন নিতে হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।  


৬. কোন জায়গায় আপনার পাসওয়ার্ড প্রবেশ করছেন সতর্ক থাকুন
কোন সাইট বা অ্যাপে প্রবেশ করার সময় বা পাবলিক কিউস্ক বা চার্জিং স্টেশনগুলোতে পাসওয়ার্ড প্রবেশ করার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে। পাবলিক ওয়াইফাই, এয়ারপোর্ট, প্রিয় কফি শপ, হোটেল কক্ষ বা আপনার কলেজ ক্লাসরুমের কম্পিউটারে পাসওয়ার্ড ব্যবহারে বিরত থাকতে হবে। আর সেসব পাবলিক জায়গাগুলো থেকে কখনোই আপনার পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করবেন না। ব্যক্তিগত স্মার্টফোন বা কম্পিউটার থেকেই সেটা করতে হবে। 

৭. আপনার একাউন্টে আক্রমণ করার চেষ্টা হলে নোট রাখুন
যদি খবর পান আপনার ব্যবহৃত ওয়েবসাইট বা অ্যাপে কোন আক্রমণ হয়েছে তাহলে সেটা সতর্কতার সাথে আমলে নিতে হবে। অন্য কেউও যদি আক্রান্ত হয় তাহলেও নজর দিবেন। আর দ্রুত পাসওয়ার্ড পাল্টে ফেলাও জরুরী হতে পারে।

আপনার পাসওয়ার্ড কি শক্তিশালী? আপনি কি একই পাসওয়ার্ড বিভিন্ন একাউন্টে ব্যবহার করেন? আপনি হয়তো মারাত্মক ঝুঁকিতে আছেন! আপনার পাসওয়ার্ড পাল্টানো উচিত দ্রুত। তা না হলে আপনার ব্যক্তিগত ও পেশাগত জীবন মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়তে পারে।