সনদ আনতে যাচ্ছেন জাকারবার্গ

 


অবশেষে নিজের গ্র্যাজুয়েশন সনদ আনতে যাচ্ছেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। বর্তমানে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়া ফেসবুক তৈরি করতে গিয়ে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ চুকাতে হয়েছিল তার। তবে দীর্ঘ এক যুগ পর তিনি আবার নিজ বিদ্যাপিঠে ফিরে যাচ্ছেন।


মে মাসে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে সনদ নেওয়ার পাশাপাশি বক্তব্যও দেবেন তিনি। জাকারবার্গ হার্ভার্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে কনিষ্ঠ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়টির ওয়েবসাইটে এসব তথ্য জানানো হয়।

এছাড়া এ সম্পর্কিত একটি ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করেছেন জাকারবার্গ নিজেই। সেখানে দেখা যায়, হার্ভার্ড সম্পর্কিত বিষয়ে তিনি কথা বলছেন মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি বিল গেটসের সঙ্গে। বিল গেটসও হার্ভার্ড থেকে শিক্ষা জীবনের মাঝপথে পাঠ চুকিয়েছিলেন। তারপরও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির ২০০৭ সালের সমাবর্তনে বক্তৃতা দিয়েছিলেন তিনি। বিল গেটস অবশ্য ৩০ বছর পর এ সুযোগ পান। সেদিক থেকে বেশ এগিয়ে জাকারবার্গ। ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মাত্র ১২ বছর পরই এ সুযোগটি পেয়ে গেলেন।

জাকারবার্গের পোস্ট করা ভিডিও থেকে আরও থেকে দেখা যায়, বক্তব্যের বিষয়ে বিল গেটসের সহায়তা চাইছেন তিনি। বিল গেটসও অবশ্য তাকে সহায়তা করার আশ্বাস দেন। ভিডিওটির এক কমেন্টে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী এ মানুষ বলেন, মার্ককে (জাকারবার্গ) সহায়তা করতে সবসময়ই ভালো লাগে। তোমার বক্তৃতার জন্য শুভকামনা।

অবশেষে নিজের গ্র্যাজুয়েশন সনদ আনতে যাচ্ছেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ। বর্তমানে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হওয়া ফেসবুক তৈরি করতে গিয়ে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ চুকাতে হয়েছিল তার। তবে দীর্ঘ এক যুগ পর তিনি আবার নিজ বিদ্যাপিঠে ফিরে যাচ্ছেন। মে মাসে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে সনদ নেওয়ার পাশাপাশি বক্তব্যও দেবেন তিনি। জাকারবার্গ হার্ভার্ডের ইতিহাসে সবচেয়ে কনিষ্ঠ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখবেন। সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়টির ওয়েবসাইটে এসব তথ্য জানানো হয়।