জম্পেশ খাবারে একটু ভিন্নতা



মাংস, চিংড়ি, সবজি দিয়ে জম্পেশ কিছু খাবার আছে। এগুলো অন্যভাবেও রান্না করা যায়। তেমন কিছু খাবারের রেসিপি দিয়েছেন শাহানা পারভীন



ঢ্যাঁড়স-মাংসঢ্যাঁড়স-মাংস
উপকরণ: খাসির মাংস (সেদ্ধ করা) ১ কেজি, ঢ্যাঁড়স ২০০ গ্রাম, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা ২ চা চামচ, বাদাম বাটা ১ টেবিল চামচ, এলাচি ৪টি, দারুচিনি ৪ টুকরা, গোলমরিচ ১০-১২টি, লবঙ্গ ৫টি, শুকনো মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, কাঁচা মরিচ ৪টি, লবণ স্বাদমতো, তেল ১ কাপ, বাটার ১ চা চামচ, ক্রিম ২ টেবিল চামচ, টমেটো সস ১ টেবিল চামচ, গাজর টুকরা করা ১টি।

প্রণালি: সসপ্যানে তেল দিয়ে চুলায় দিন। তেল গরম হলে তাতে পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা, রসুন বাটা, মরিচ গুড়া, বাদাম বাটা ও লবণ দিয়ে সামান্য পানিসহ মসলা ভালো করে কষিয়ে নিন। মসলা কষা হলে তাতে সেদ্ধ করা মাংস দিন এবং আবার কষান। কষানো হলে ২ কাপ গরম পানি দিয়ে দারুচিনি, এলাচি, লবঙ্গ ও গোলমরিচ দিন। অন্য একটি ফ্রাইপ্যানে বাটার দিয়ে ঢ্যাঁড়স-লবণ ও গোলমরিচ গুঁড়া ঘিয়ে স’তে করে মাংসের মধ্যে দিন। মাংস মাখা মাখা হলে কাঁচা মরিচ, গাজর, সস ও ক্রিম ছড়িয়ে দিয়ে নামিয়ে পোলাও বা পরোটার সঙ্গে পরিবেশন করুন।



অন্য রকম বিরিয়ানিঅন্য রকম বিরিয়ানি
উপকরণ: মুরগির মাংস ৮ টুকরা, খাসির মাংস ১৬ টুকরা (সেদ্ধ করা), ডিম ৪টি (সেদ্ধ করা), আলু ভাজা (ফ্রেঞ্চ ফ্রাই) ১ কাপ, গলদা চিংড়ি ভাজা ৫-৬টি, সবজি (মটরশুঁটি, সুইট কর্ন, লাল, সবুজ, ক্যাপসিকাম) ছোট ছোট করে কেটে, তেলে হালকা করে ভেজে নেওয়া ১ কাপ, পেঁয়াজ বেরেস্তা ১ কাপ, জাফরান ১ চিমটি, কেওড়াজল ২ টেবিল চামচ, কাজু ও কিশমিশ ঘিতে ভাজা ২ টেবিল চামচ, দুধ ১ কাপ, ঘি ১ কাপ, তেল প্রয়োজনমতো, লবণ স্বাদমতো, বাসমতী চালের ভাত ৬ কাপ, আদা/রসুন বাটা ১ কাপ, পেঁয়াজ বাটা ১ কাপ, গরমমসলা (দারুচিনি, এলাচি, লবঙ্গ, জায়ফল, জয়ত্রী, গোলমরিচ) প্রয়োজনমতো, কাঁচা মরিচ ৫-৬টি, কাঁচা মরিচ বাঁটা ২ টেবিল চামচ।

প্রণালি: আদা বাটা, রসুন বাটা, পেঁয়াজ বাটা, লবণ, গরমমসলার গুঁড়া (সব মসলা পরিমাণমতো) ও ২ টেবিল চামচ তেল দিয়ে মুরগির মাংস রান্না করে নিতে হবে। খাসির মাংসে আদা বাটা, রসুন বাটা, কাঁচা মরিচ বাটা, পেয়াজ বাটা, লবণ, গরমমসলা ও পরিমাণমতো তেল দিয়ে মাংস সেদ্ধ করে নিতে হবে। ১টি বড় সসপ্যানে ১ কাপ ঘি দিয়ে তাতে আধা কাপ পানি দিয়ে চুলায় বসাতে হবে। এবার তাতে অর্ধেক পরিমাণ ভাত ছড়িয়ে দিয়ে তার ওপর রান্না করা মুরগির মাংস, সেদ্ধ করা খাসির মাংস, সেদ্ধ ডিম, ভাজা আলু, ভাজা চিংড়ি স’তে করা সবজি ও বেরেস্তা দিয়ে তার ওপরে বাকি ভাত দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। এবার ঘি ছড়িয়ে দিয়ে দুধে ভেজানো জাফরান, কেওড়াজল, বেরেস্তা, বাদাম, কিশমিশ, কাঁচা মরিচ, স্বাদমতো লণ দিয়ে প্রথমে পাঁচ মিনিট মাঝারি আঁচে, পরের দশ মিনিট মৃদু আঁচে রাখতে হবে। সালাদ দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার জমজম বিরিয়ানি।



কুশারিকুশারি
উপকরণ: ভুনা খিচুড়ি ১ কাপ, পাস্তা (লবণ দিয়ে সেদ্ধ করা) আধা কাপ, চিংড়ি মসলা (টালা চিংড়ি মাছ, ১ চা চামচ নারকেল, ভাজা শুকনো মরিচ ও লবণ দিয়ে বেটে নেওয়া) ১ টেবিল চামচ, ধনেপাতা চাটনি (ধনেপাতা, কাঁচা মরিচ, তেঁতুল ও লবণ দিয়ে বেটে নেওয়া) ১ চা চামচ, টমেটো সস ২ টেবিল চামচ, সালাদ প্রয়োজনমতো।

প্রণালি: সার্ভিং ডিশে প্রথমে খিচুড়ির লেয়ার দিয়ে তার ওপরে সেদ্ধ করা পাস্তা দিন। তারপর চিংড়ি মাছের মসলা এবং ধনেপাতার চাটনি, সব শেষে টমেটো সস। সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার কুশারি।


খেজুর-মুরগির কোর্মাখেজুর-মুরগির কোর্মা
উপকরণ: মুরগির মাংস (৭০০ গ্রাম) ৮ টুকরা। খেজুর ১০-১২টি (বিচি ফেলে দিতে হবে), আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, খেজুর বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বেরেস্তা বাটা ২ টেবিল চামচ, দারুচিনি ২ টুকরা, এলাচি ৪টি, লবঙ্গ ৪টি, দুধ ১ কাপ, ক্রিম ২ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেল আধা কাপ, চিনি ১ চা চামচ, কাঁচা মরিচ ৪০৫টি, বাটার ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি: মুরগির মাংস ধুয়ে পানি ঝরাতে হবে। আদা বাটা, রসুন বাটা, পেঁয়াজ বাটা, লবণ ও ২ টেবিল চামচ তেল দিয়ে মাংস মাখিয়ে রাখতে হবে ১ ঘণ্টা। চুলায় সসপ্যান দিয়ে তাতে তেল, দারুচিনি, এলাচি ও লবঙ্গ ফোড়ন দিয়ে মাখানো মাংস ঢেলে একটু নাড়াচড়া করে ১ কাপ গরম পানি দিয়ে ঢেকে দিতে হবে। মাংস সেদ্ধ হলে আস্ত খেজুরগুলো দিন। অন্য একটি ফ্রাইপ্যানে বাটার দিয়ে তাতে খেজুর বাটা, বেরেস্তা বাটা ও দুধ দিয়ে জ্বাল দিয়ে সস তৈরি করে মাংসে ঢেলে দিন। সব শেষে কাঁচা মরিচ ও ক্রিম দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।