মাংস ছাড়াই রান্না করুন মজাদার তেহারি!

 


 কদিন যাবতই ভীষণ ঝড়-বৃষ্টি চলছে সমগ্র দেশ জুড়ে, সাথে ঘরে ঘরে খিচুড়ি খাওয়ার ধুম তো আছেই! তবে সেই এক খিচুড়ি আর কত বলুন তো? চলুন, সায়মা সুলতানার হেঁসেল থেকে জেনে নিই এমন এক তেহারির রেসিপি যা রান্না করতে কোন মাংসের প্রয়োজন নেই মোটেও! নতুন রাঁধুনিদের জন্য তেহারির এই ভার্সনটি দারুণ কাজে আসবে।


কোরমার জন্য যা লাগবে

ডিম সিদ্ধ ৫ টি ( হালকা তেলে ভেজে নেয়া )

ছোট আলু সিদ্ধ ৫-৬ টি ( হালকা তেলে ভেজে নেয়া )

হাফ কাপ দই

পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ

আদা বাটা ২ টেবিল চামচ

রসুন বাটা ২ চা চামচ

পেঁয়াজ বাটা ৩ চা চামচ

এলাচি ৩ -৪ টা

জায়ফল বাটা হাফ চা চামচ

দারুচিনি ২ -৩ টা

লবঙ্গ কয়েকটা

২ -৩ টা তেজপাতা

তেল ৪ টেবিল চামচ

লবণ স্বাদমত

প্রনালি

-তেলে ভেজে নেয়া ডিম আর আলুর সাথে উপরের সবকিছু মেখে মেরিনেট করে ১৫ মিনিট । তারপর একদম অল্প পানি দিয়ে এটাকে রান্না করুন। ১২ থেকে ১৫ মিনিটেই এটা রেডি হয়ে যাবে। হালকা ঝোল থাকবে, তেল উপরে উঠে এলেই বুঝবেন যে তৈরি।



পোলাও-এর জন্য

কালোজিরা পোলাও চাল / বাসমতি চাল ৩ কাপ

হাফ কাপ সরিষার তেল

লবণ স্বাদমত

কাঁচা মরিচ ৯-১০ টা

বেরেস্তা- ১/২ কাপ

প্রনালি

-বড় একটা হাঁড়িতে সরিষার তেল দিয়ে তাতে চাল আর লবণ দিয়ে দিন।

-চালটা একটু ভেজে নিয়ে ৫ কাপ ফুটন্ত গরম পানি আর সাথে রান্না করা আলু আর ডিম দিয়ে নেড়ে দিন। বেরেস্তা দিয়ে দিন।

-এবার চুলার আঁচটা বাড়িয়ে দিন। চালটা যখন ফুলে উঠবে আর পানি শুকাতে থাকবে তখন আঁচ একদম কমিয়ে উপরে কাঁচা মরিচ দিয়ে ঢাকনা আটকে দমে দিয়ে দিন ২০ মিনিট-এর জন্য।

-সরাসরি চুলায় দেবেন না, নিচে একটি তাওয়া দিয়ে দিন। তাওয়া না থাকলে একটা হাঁড়িতে গরম পানি দিয়ে তার উপর তেহারির হাঁড়ি বসিয়ে দিন।

-ঢাকনা ভালোভাবে লাগিয়ে দেবেন। খেয়াল রাখবেন ভাপ যেন বের না হয়। আর বেশি নাড়াচাড়া করবেন না তাহলে চাল ভেঙে যাবে।

নামিয়ে গরম গরম সালাদের সাথে পরিবেশন করুন।

কদিন যাবতই ভীষণ ঝড়-বৃষ্টি চলছে সমগ্র দেশ জুড়ে, সাথে ঘরে ঘরে খিচুড়ি খাওয়ার ধুম তো আছেই! তবে সেই এক খিচুড়ি আর কত বলুন তো? চলুন, সায়মা সুলতানার হেঁসেল থেকে জেনে নিই এমন এক তেহারির রেসিপি যা রান্না করতে কোন মাংসের প্রয়োজন নেই মোটেও! নতুন রাঁধুনিদের জন্য তেহারির এই ভার্সনটি দারুণ কাজে আসবে।