মেকআপে দারুচিনির ব্যবহার


রান্নার স্বাদ বৃদ্ধিতে দারুচিনির তুলনা নেই। ম্যাজিক্যাল এই উপাদানটি শুধু রান্নার স্বাদ বৃদ্ধি করে না রুপচর্চায়ও রয়েছে এর নানান ব্যবহার। রুপচর্চা ছাড়া মেকআপেও এটি ব্যবহার করতে পারেন। দারুচিনির অ্যান্টি অক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি ফাঙ্গাল উপাদান ত্বক সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। মেকআপে দারুচিনি ব্যবহারের কিছু উপায় নিয়ে আজকের এই ফিচার।
১। চুল রাঙাতে
প্রাকৃতিক ভাবে চুল রাঙাতে দারুচিনি ব্যবহার করতে পারেন। কন্ডিশনারের সাথে কিছু পরিমাণ দারুচিনির গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এমনকি শ্যাম্পুর সাথেও দারুচিনির গুঁড়ো মেশান। এটি ব্যবহার করুন। তারপর পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।
২। স্ক্রাব হিসেবে
ত্বকের স্ক্রাব হিসেবে এটি বেশ উপকারী। একটি পাত্রে ইপসোম সল্ট এবং দারুচিনির গুঁড়ো একসাথে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি ত্বকে এটি চক্রাকারে ম্যাসাজ করে লাগান। এই স্ক্রাবটি নিয়মিত ব্যবহার করুন। এটি ত্বক থেকে মৃত চামড়া দূর করে দেয়। ফেসপ্যাকে দারুচিনির গুঁড়ো ব্যবহার করতে পারেন, এটি ত্বক নরম কোমল করতে সাহায্য করে।
৩। ফাউন্ডেশন হিসেবে
ফাউন্ডেশনে কিছুটা গ্লো নিয়ে আসতে চাইলে দারুচিনি ব্যবহার করতে পারেন। ফাউন্ডেশন বা লুস পাউডারে কিছু পরিমাণ দারুচিনির গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এটি ত্বকে ব্যবহার করুন। এটি ত্বকে একটি আলাদা গ্লো এনে দেবে।
৪। প্রাকৃতিক ফেসপাউডার
দারুচিনি দিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন ফেসপাউডার। কিছু পরিমাণ কর্ণ স্টার্চ এবং এর সাথে কিছু পরিমাণ দারুচিনির গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। ব্যস তৈরি হয়ে গেলো ফেসপাউডার। এটি ত্বকে ব্যবহার করুন।
৫। প্রাকৃতিক লিপ বাম
প্রাকৃতিক লিপ বাম তৈরি করতে পারেন দারুচিনি দিয়ে। কিছু পরিমাণ নারকেল তেল এবং দারুচিনির গুঁড়ো একসাথে মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণটি লিপ বামের মতো কাজ করবে। এটি ঠোঁট ফাটা রোধ করে রুক্ষতা দূর করবে।
৬। মুখের দুর্গন্ধ দূর
মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে দারুচিনি ব্যবহার করতে পারেন। কুসুম গরম পানিতে দারুচিনির গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এটি দিয়ে কুলকুচি করুন। এটি দিনে কয়েকবার করুন। মুখের দুর্গন্ধ দূর হয়ে যাবে।
৭। ব্রণ রোধে
কিছু পরিমাণ দারুচিনির গুঁড়ো এবং মধু একসাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এটি ব্রণের উপর ব্যবহার করুন। কিছুক্ষণ পর ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এটি দিনে দুইবার ব্যবহার করতে পারেন।