ফলাফল বাতিলের দাবিতে ওমর সানীর ৩ আপত্তি

 ফলাফল বাতিলের দাবিতে ওমর সানীর ৩ আপত্তি


ফলাফল ‌‘বাতিল’ করার দাবি করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার মনতাজুর রহমান আকবরের কাছে আপত্তিপত্র দাখিল করেছেন সভাপতি পদে পরাজিত প্রার্থী ওমর সানী।


বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের ৩৬ ঘণ্টার মাথায় রবিবার (৭ মে) বিকালে এই আবেদন করা হয়। যেখানে ওমর সানী তিনটি বিষয়ে দৃষ্টিপাত করেছেন এই নির্বাচনের সঙ্গে যুক্ত আপিল বিভাগের কাছে। 
রবিবার রাতে  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ওমর সানী।

ওমর সানীর স্বাক্ষর করা ঐ অভিযোগপত্রে ভোটের সংখ্যায় গরমিল দাবি করে তিনি বলেন, ‘গেল শুক্রবার অনুষ্ঠিত চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে ভোট সংগ্রহ হয়েছে মোট ৫৫৮টি। এর মধ্যে ৮৯টি ভোট বাতিল বলে নির্বাচন বোর্ড প্রকাশ করেছে। মোট ফলাফল অসঙ্গতিপূর্ণ কেননা সভাপতি তিনজনের ভোট যোগ করলে মোট ৪৬৯টি ভোট হওয়া উচিত। কিন্তু প্রকাশিত ফলাফলে পাওয়া যাচ্ছে মোট ভোট ৪৫৬টি।’

ফলাফল বাতিলের দাবিতে ওমর সানীর আপত্তিপত্র
সানী আরও বলেন, ‘অন্যান্য পদে প্রাপ্ত ভোটের যোগফল কোনোভাবেই বৈধ ব্যালটের সঙ্গে মিলে না। যেমন, কার্যনির্বাহী মোট ভোট হওয়া উচিত (৫১১ গুন ১১) = ৫৬২১টি। কিন্তু প্রকাশিত ফলাফলে পাওয়া যাচ্ছে মোট ভোটের সংখ্যা ৫৬৬৫টি! তাহলে অতিরিক্ত ৪৪টি বেশি ভোট কোথা থেকে এলো? এমনকি কোষাধ্যক্ষ পদে তিন প্রার্থীর মোট ভোট ৪৬৫টি কিন্তু সেটা হওয়া উচিত ৪৬৯টি।’

সানীর এই আপত্তিপত্রে ভোট গণনার রাতে (শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে) শাকিব খানের সঙ্গে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর ঘটনাটি প্রসঙ্গে তিনি উল্লেখ করেন, ‘সমিতির সভাপতি শাকিব খান পদাধিকার বলে ভোট গণনার সময় উপস্থিত থাকতে পারেন। কিন্তু নির্বাচন কমিশন গণনার সময় জোরপূর্বক তাকে অফিস থেকে বের করে দেয়া- যা কোনওভাবেই কাম্য ছিলো না।’

সানী এই নির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে বলেন, ‘একটি পক্ষ নিজ স্বার্থে নির্বাচন বোর্ডকে প্রভাবিত করেছে। এমতাবস্থায় এ রকম অসঙ্গতিপূর্ণ ফলাফল বাতিল তথা নির্বাচন বাতিল করার আবেদন করছি।’

উল্লেখ্য, শুক্রবার (৫ মে) উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট গ্রহন শেষে ৬ মে ভোরে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয় মিশা সওদাগরকে। তিনি ২৫৯টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ওমর সানী পেয়েছেন ১৫৩টি ভোট।

ফলাফল ‌‘বাতিল’ করার দাবি করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার মনতাজুর রহমান আকবরের কাছে আপত্তিপত্র দাখিল করেছেন সভাপতি পদে পরাজিত প্রার্থী ওমর সানী।