বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ফোরজি স্মার্টফোন


ফোনটির নাম হবে জেলি। চলবে অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নোগাট সংস্করণে। এতে দুটি ন্যানো সিম সমর্থন করবে। ফোরজি নেটওয়ার্ক-সমর্থিত বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ফোন হবে এটি।
চীনের সাংহাইভিত্তিক উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ইউনিহার্জ এই স্মার্টফোন তৈরির জন্য তহবিল সংগ্রহে নেমেছে। কিকস্টার্টারে ৩০ হাজার মার্কিন ডলার তহবিল সংগ্রহের জন্য লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে প্রতিষ্ঠান। ইতিমধ্যে সে লক্ষ্য পূরণ হয়ে গেছে। ফোনটি সম্পর্কে বলা হচ্ছে, এটি কয়েন পকেট, ব্যাগের ছোট অংশ, জামার সামনের পকেট এমনকি হাতের তালুর মধ্যে সহজে ধরে যাবে। সাদা, নীল ও কালো রঙে এটি বাজারে আসবে। স্টোরেজের ভিত্তিতে এর দুটি মডেল বাজারে পাওয়া যাবে। এক জিবি র‍্যাম ও আট জিবি স্টোরেজের স্মার্টফোনটির দাম হবে ১০৯ মার্কিন ডলার আর ২ জিবি র‍্যাম ও ১৬ জিবি স্টোরেজের মডেলটির দাম হবে ১২৫ মার্কিন ডলার।
একটিকে বলা হবে জেলি ও আরেকটিকে বলা হবে জেলি প্রো। চলতি বছরের আগস্ট মাসে এটি বাজারে ছাড়ার পরিকল্পনা রয়েছে চীনের ওই প্রতিষ্ঠানটির। জেলি স্মার্টফোনটি হবে ২ দশমিক ৪৫ ইঞ্চি (২৪০ বাই ৪৩২ পিক্সেল) মাপের। এতে থাকবে টিএফটি এলসিডি ডিসপ্লে। ১ দশমিক ১ গিগাহার্টজ কোয়াড কোর প্রসেসরের ফোনটিতে মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থন করবে। ফোনটির পেছনে ৮ ও সামনে ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা থাকবে। ব্যাটারি হবে ৯৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার। জিপিএস, ব্লুটুথ ৪.০, ওয়াই-ফাই সুবিধা থাকবে এতে।
বিশ্বের শীর্ষ স্মার্টফোন নির্মাতাদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করার লক্ষ্য নেই ইউনিহার্জের। ব্যাকআপ ফোন বা স্মার্টফোনের পাশাপাশি বাড়তি আরেকটি দরকারি ফোন হিসেবে জেলি ব্যবহার করা যাবে বলে মনে করছে ইউনিহার্জ। ফোনটির নাম হবে জেলি। চলবে অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ নোগাট সংস্করণে। এতে দুটি ন্যানো সিম সমর্থন করবে। ফোরজি নেটওয়ার্ক-সমর্থিত বিশ্বের সবচেয়ে ছোট ফোন হবে এটি।
চীনের সাংহাইভিত্তিক উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান ইউনিহার্জ এই স্মার্টফোন তৈরির জন্য তহবিল সংগ্রহে নেমেছে। কিকস্টার্টারে ৩০ হাজার মার্কিন ডলার তহবিল সংগ্রহের জন্য লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে প্রতিষ্ঠান। ইতিমধ্যে সে লক্ষ্য পূরণ হয়ে গেছে। ফোনটি সম্পর্কে বলা হচ্ছে, এটি কয়েন পকেট, ব্যাগের ছোট অংশ, জামার সামনের পকেট এমনকি হাতের তালুর মধ্যে সহজে ধরে যাবে। সাদা, নীল ও কালো রঙে এটি বাজারে আসবে। স্টোরেজের ভিত্তিতে এর দুটি মডেল বাজারে পাওয়া যাবে। এক জিবি র‍্যাম ও আট জিবি স্টোরেজের স্মার্টফোনটির দাম হবে ১০৯ মার্কিন ডলার আর ২ জিবি র‍্যাম ও ১৬ জিবি স্টোরেজের মডেলটির দাম হবে ১২৫ মার্কিন ডলার।
একটিকে বলা হবে জেলি ও আরেকটিকে বলা হবে জেলি প্রো। চলতি বছরের আগস্ট মাসে এটি বাজারে ছাড়ার পরিকল্পনা রয়েছে চীনের ওই প্রতিষ্ঠানটির। জেলি স্মার্টফোনটি হবে ২ দশমিক ৪৫ ইঞ্চি (২৪০ বাই ৪৩২ পিক্সেল) মাপের। এতে থাকবে টিএফটি এলসিডি ডিসপ্লে। ১ দশমিক ১ গিগাহার্টজ কোয়াড কোর প্রসেসরের ফোনটিতে মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থন করবে। ফোনটির পেছনে ৮ ও সামনে ২ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা থাকবে। ব্যাটারি হবে ৯৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার। জিপিএস, ব্লুটুথ ৪.০, ওয়াই-ফাই সুবিধা থাকবে এতে।
বিশ্বের শীর্ষ স্মার্টফোন নির্মাতাদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করার লক্ষ্য নেই ইউনিহার্জের। ব্যাকআপ ফোন বা স্মার্টফোনের পাশাপাশি বাড়তি আরেকটি দরকারি ফোন হিসেবে জেলি ব্যবহার করা যাবে বলে মনে করছে ইউনিহার্জ।