চোর ধরতে মানিব্যাগে ক্যামেরা

 


মানিব্যাগ, কিন্তু স্ক্রিন ছাড়া স্মার্টফোনের সব ফিচারই আছে এতে। ৫১২ মেগাবাইট রম, বিল্ট ইন ক্যামেরা, ওয়াইফাই, হটস্পট, আছে চার্জ দেয়ার সুবিধাও। অত্যাধুনিক এ মানিব্যাগটি বাজারে এনেছে ভোল্টারম্যান ইঙ্ক. নামক একটি সংস্থা। এতকিছু থাকলেও বাইরে থেকে এটিকে একটি স্বাভাবিক মানিব্যাগের মতোই মনে হবে।


প্রতিষ্ঠানটি তাদের এ মানিব্যাগের নাম দিয়েছে ‘ভোল্টারম্যান স্মার্ট ওয়ালেট’। এতে জিপিএস, ওয়াই-ফাই হটস্পট এবং আরএফআইডি সেফটি রয়েছে। মানিব্যাগটিকে ফোনের চার্জিংয়ের জন্য ওয়্যারলেস চার্জার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে। কোনো ফোন যদি ওয়্যারলেস চার্জার সাপোর্ট না করে, তাহলে ওয়্যার অ্যাডেড একটি চামড়ার চার্জিং প্যাডের মাধ্যমে চার্জার হিসেবে ব্যবহার করা যাবে, যা পাওয়ার ব্যাংক হিসেবে কাজ করবে।

এই স্মার্ট মানিব্যাগে একটি বিল্ট-ইন ক্যামেরাও রয়েছে। ফলে যদি কখনো মানিব্যাগটি চুরি হয়, তাহলে সহজেই চোর ধরা যাবে। কেননা মানিব্যাগটি যে নিয়েছে তার ছবি আপনার মোবাইল স্ক্রিনে ভেসে উঠবে। মানিব্যাগে থাকা লুকানো ক্যামেরা তুলে ফেলবে ছবি। এছাড়া মানিব্যাগটি ভুলে কোথও ফেলে আসলে তা ব্লুটুথের মাধ্যমে আপনার মোবাইলে অ্যালার্ম দিয়ে এবং লোকেশান জানিয়ে দেবে।

তবে মানিব্যাগে ক্যামেরার থাকার বিষয়টি হয়তো কারো কারো পছন্দ নাও হতে পারে, তাই এই ফিচারটি অপশনাল হিসেবে রাখা হয়েছে। ডিসেম্বরে এটি বাজারে আসছে বলে জানা গিয়েছে। বিশ্বের সবচেয়ে অভিনব ও স্মার্ট এই মানিব্যাগটির দাম প্যাকেজ হিসেবে করা হয়েছে ৯৮ ডলার, ১৫৭ ডলার এবং ৩৬৫ ডলার।

মানিব্যাগ, কিন্তু স্ক্রিন ছাড়া স্মার্টফোনের সব ফিচারই আছে এতে। ৫১২ মেগাবাইট রম, বিল্ট ইন ক্যামেরা, ওয়াইফাই, হটস্পট, আছে চার্জ দেয়ার সুবিধাও। অত্যাধুনিক এ মানিব্যাগটি বাজারে এনেছে ভোল্টারম্যান ইঙ্ক. নামক একটি সংস্থা। এতকিছু থাকলেও বাইরে থেকে এটিকে একটি স্বাভাবিক মানিব্যাগের মতোই মনে হবে।