পাইরেসি ঠেকাতে সোর্স-৩ কিনে নিলো ফেসবুক

Facebook-has-bought-SOURCE-3-to-prevent-piracy 


পাইরেসি বন্ধে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছে ফেসবুক। তারই অংশ হিসেবে সোর্স-৩ নামের একটি প্রতিষ্ঠান কিনে নিল বিশ্বের সবচেয়ে বড় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি। নতুন এই প্রতিষ্ঠান ফেসবুকে পাইরেসি বন্ধে কাজ করবে। সোর্স-৩-এর এমন প্রযুক্তি রয়েছে যা দিয়ে সহজে পাইরেসি চিহ্নিত করা যায়। ফলে এখন থেকে পাইরেটেড কনটেন্ট অনেকটাই কমে আসবে বলে মনে করছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।


অনুমতি না নিয়ে কারও বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদকে নিজে ব্যবহার করাকে পাইরেসি বলে। অর্থাৎ এটা এক ধরনের নকল। গত দু’বছর আগে ফেসবুকের পাইরেটেড ভিডিও নিয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়। ফলে এ ধরনের সমস্যা সমাধানে তখনই উদ্যোগ নেয় কর্তৃপক্ষ। সে সময় রাইটস ম্যানেজার নামের একটি প্রযুক্তি চালু করে তারা, যা মূলত পাইরেটেড ভিডিও চিহ্নিতকরণ ও অপসারণে ব্যবহার হতো। এবার প্রক্রিয়াটিকে আরও গতিশীল করতে সোর্স-৩ নামক প্রতিষ্ঠান কিনে নিল ফেসবুক।

পাইরেটেড ভিডিও ঠেকাতে ফেসবুকের চেয়ে ইউটিউব আরও উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে। তাদের সেই প্রযুক্তি দিয়ে কনটেন্ট আইডির সাহায্যে যে কারও বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদের নিশ্চয়তা প্রদান করা হয়। ফলে ইচ্ছে করলেই সহজে কেউ অন্য কারও কনটেন্ট নকল করে প্রকাশ করতে পারে না।

Facebook-has-bought-SOURCE-3-to-prevent-piracy