চুলের সমস্যায় পার্লারে ছোটার দরকার নেই, বাড়িতেই প্যাক বানিয়ে নিন

Do-not-need-to-run-in-parlor-with-hair-problems-make-packs-at-home 

চুল পড়া, আগা ফেটে যাওয়া, খুশকি চুলের নাজেহাল অবস্থা। পার্লারে যাওয়ার ইচ্ছা নেই। তবে দরকার শুধু একটু ধৈর্য আর কিছুটা সময়। একেবারে সাধারণ উপকরণ দিয়ে এমন সব হেয়ার প্যাক তৈরি করা যায়, চুল ঝলমলে করে তুলতে যার জুড়ি নেই। চলু


এক কাপ দইয়ের সঙ্গে আধ কাপ মেয়োনিজ আর একটা ডিম ভালো করে মিশিয়ে নিন। চুলের গোড়া থেকে ডগা পর্যন্ত লাগিয়ে শাওয়ার ক্যাপ পরে ফেলুন। ৪০ মিনিট পরে প্রথমে পানি, তার পরে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন। চুল পড়া কমাবে এই প্যাক। আর্দ্রতাও জোগাবে।

চুলের গ্রোথ যাদের কম, তারা জোজোবা অয়েল দিয়ে প্যাক বানিয়ে নিতে পারেন। স্রেফ এক চা-চামচ জোজোবা অয়েল, এক চা-চামচ নারকেল তেল আর দু’চা-চামচ মধু ব্লেন্ড করে নিন। তার পরে তাতে মিশিয়ে দিন ১৫-২০ ফোঁটা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল। চুল এবং স্ক্যাল্পে আধঘণ্টা লাগিয়ে রেখে শ্যাম্পু করে নিন। চুলের গ্রোথ বাড়ার পাশাপাশি খুশকিও কমবে।

ডিমের কুসুমে পরিমাণ মতো ভিনিগার, লেবুর রস, অলিভ অয়েল আর মধু মিশিয়ে ব্লেন্ডারে দিন। মিশ্রণটা পেস্টের মতো হয়ে গেলে চুলে মিনিট পনেরো লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন। ডিম চুলকে কন্ডিশন তো করেই, ঝলমলেও করে। অলিভ অয়েল চুলে পুষ্টি জোগায়।

দুষণ, যত্নের অভাব এবং কেমিক্যাল প্রডাক্ট ব্যবহার করার জন্য অনেক সময় চুল অতিরিক্ত ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সেক্ষেত্রে অ্যাভোকাডো আর মেয়োনিজের প্যাক লাগিয়ে দেখতে পারেন।

চুলের ডগা ফেটে যাওয়ার সমস্যায় ভুগছেন? দই-মেথির প্যাক রয়েছে তো! দু’টেবিলচামচ মেথি সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন ব্লেন্ডারে পেস্ট বানিয়ে নিন। তার সঙ্গে মেশান আধ কাপ দই। মিশ্রণটা চুলে ঘণ্টাদুয়েক লাগিয়ে রেখে মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিন। সপ্তাহে তিন দিন ব্যবহার করলে উপকার পাবেন।

চুল পড়া, আগা ফেটে যাওয়া, খুশকি চুলের নাজেহাল অবস্থা। পার্লারে যাওয়ার ইচ্ছা নেই। তবে দরকার শুধু একটু ধৈর্য আর কিছুটা সময়। একেবারে সাধারণ উপকরণ দিয়ে এমন সব হেয়ার প্যাক তৈরি করা যায়, চুল ঝলমলে করে তুলতে যার জুড়ি নেই। চলু