সিম্ফনি ও আইটেলের সাথে কো-ব্র্যান্ডেড সাশ্রয়ী স্মার্টফোন নিয়ে এলো গ্রামীণফোন

Grameenphone-brings-a-co-branded-smart-phone-with-Symphony-and-Itel 

বাংলাদেশের মানুষের হাতে সাশ্রয়ী দামে স্মার্টফোন তুলে দেয়ার লক্ষ্যে এ দেশের বাজারে কো-ব্র্যান্ডেড সিম্ফনি জি২০ ও আইটেল আইটি১৪০৯ নিয়ে আসতে আজ সিম্ফনি ও আইটেলের সাথে যৌথ অংশীদারিত্ব করেছে গ্রামীণফোন।


দেশের শীর্ষস্থানীয় ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানটির পূর্ববর্তী কো-ব্র্যান্ডেড স্মার্টফোনের ব্যাপক সাফল্য ও জনপ্রিয়তার পর গ্রামীণফোন এর করপোরেট হাউজে এ নতুন দুই ডিভাইসের উদ্বোধন করে।

গ্রামীণফোনের হেড অব ডিভাইস সরদার শওকাত আলী, এডিসন গ্রুপের সিম্ফনি মোবাইলের বিজনেস অপারেশন ডিরেক্টর মো. মাকসুদুর রহমান এবং ট্রানসিশন বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী রেজওয়ানুল হকের উপস্থিতিতে স্মার্টফোন দু’টির উদ্বোধন করেন গ্রামীণফোনের উপপ্রধান নির্বাহী এবং প্রধান বিপণন কর্মকর্তা ইয়াসির আজমান। এ সময় গ্রামীণফোন, এডিসন গ্রুপ ও ট্রানসিশন বাংলাদেশের উচ্চপদস্থ অন্যান্য কর্মকর্তাগণও উপস্থিত ছিলেন ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গ্রামীণফোনের উপপ্রধান নির্বাহী ও প্রধান বিপণন কর্মকর্তা ইয়াসির আজমান বলেন, ‘গ্রাহকদের জীবনের সবচেয়ে পছন্দের ডিজিটাল সঙ্গী হওয়ার লক্ষ্য গ্রামীণফোনের। আর এ লক্ষ্যপূরণে, আরও বেশি মানুষকে পরস্পর সংযুক্ত রাখতে এবং ডিজিটাল মাধ্যমে তাদেরকে বাকি বিশ্বের সাথে যুক্ত রাখতে আমরা, সিম্ফনি ও আইটেল এর সাথে সাশ্রয়ী দামে মানসম্পন্ন নতুন স্মার্টফোন নিয়ে এসেছি। যা আরও বেশি মানুষকে ডিজিটাল মাধ্যমে যুক্ত করবে। আমাদের বিশ্বাস, সিম্ফনি জি২০ ও আইটেল আইটি১৪০৯ স্মার্টফোন ডিজিটাল মাধ্যমে পরস্পরের সাথে যুক্ত থাকতে এবং গ্রামীণফোনের ডিজিটাল সেবা সুবিধা গ্রহণে গ্রাহকদের সহায়তা করবে।’

অনুষ্ঠানে গ্রামীণফোনের হেড অব ডিভাইস সরদার শওকাত আলী বলেন, ‘ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপ নোটিফিকেশন লাইটের ক্ষেত্রে একদমই অভিনব সত্যিকারের ডিজিটাল স্মার্টফোন আইটেল আইটি১৪০৯।’ তিনি সাশ্রয়ী কিন্তু উচ্চ মানসম্পন্ন স্মার্টফোনটির অত্যাধুনিক ফিচারের ওপর আলোকপাত করেন। ১.২ গিগাহার্টজ কোয়াড-কোর প্রসেসরের ফোনটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে রয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ৬.০। ফোনটিতে রয়েছে চার ইঞ্চির ডব্লিউভিজিএ ডিসপ্লে, পেছনে ২ মেগাপিক্সেল এবং সামনে ০.৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ৮ জিবি রমের ফোনটিতে ইন্টার্নাল মেমোরি ৫১২ মেগাবাইট আর দীর্ঘক্ষণ চার্জের জন্য রয়েছে ১৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি। মাত্র ৩ হাজার ১০০ টাকা মূল্যের ফোনটি পাওয়া যাবে দু’টি আলাদা মেটালিক গোল্ড ও ডার্ক গ্রে কালারে।

সিম্ফনি জি২০ স্মার্টফোনটিতে রয়েছে চার ইঞ্চি ডব্লিউভিজিএ স্ক্রিন, ১.৩ গিগাহার্টজ ডুয়াল-কোর প্রেসেসর, ৪ জিবি রম এবং ৫১২ মেগাবাইট র‍্যাম। ফোনটির পেছেন রয়েছে ২ মেগাপিক্সেল ও সামনে রয়েছে ০.৩ মেগা পিক্সেল ক্যামেরা। অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ অপারেটিং সিস্টেমের ফোনটিতে রয়েছে ১৪০০ এমএএইচ ব্যাটারি। গ্রাহকদের জন্য ফোনটি কালো ও ডার্ক ব্লু  কালারে পাওয়া যাবে। ফোনটির বাজারমূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে মাত্র ২ হাজার ৯শ’ টাকা।

দু’টির যেকোন একটি ফোন কেনার সাথেই সাত দিনের মেয়াদসহ গ্রাহকরা পাবেন বিনামূল্যে ১ জিবি ইন্টারনেট ও ১ জিবি ফেসবুক ইন্টারনেট। সাথে আরও থাকছে একটি আকর্ষণীয় বান্ডেল অফার। যে অফারের অধীনে গ্রাহকরা পাচ্ছেন সাত দিনের মেয়াদে ২৯ টাকায় ৫০ মিনিট এবং সাথে বিনামূল্যে সাত দিনের মেয়াদে ১ জিবি ইন্টারনেট। ৬ মাসে সর্বোচ্চ ১২ বার গ্রাহকরা এ অফারটি নিতে পারবেন। এছাড়াও, স্মার্টফোন দু’টি কেনার ক্ষেত্রে থাকছে ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ১ বছরের ওয়্যারেন্টি সুবিধা।

এডিসন গ্রুপের সিম্ফনি মোবাইলের বিজনেস অপারেশন ডিরেক্টর মো. মাকসুদুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে আমরা গ্রামীণফোনের সাথে অংশীদারিত্ব করতে পেরে গর্বিত। এ কো-ব্র্যান্ডিং প্রকল্পের অধীনে সিম্ফনি ও গ্রামীণফোন উভয় প্রতিষ্ঠানের গ্রাহকরাই লাভবান হবেন।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ট্রানসিশন বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী রেজওয়ানুল হক বলেন, ‘সম্ভাব্য স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ক্রমবর্ধমান বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশের বাজার অত্যন্ত সম্ভাবনাময়। মানসম্পন্ন পণ্যের মাধ্যমে ভোক্তাদের প্রয়োজন মেটাতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। গ্রামীণফোনের সাথে এ অংশীদারিত্বের মাধ্যমে আমরা আরও বেশি মানুষকে ডিজিটাল বিশ্বের সাথে যুক্ত করতে এবং কানেক্টিভিটির বাইরেও তাদের জন্য অনেক সুযোগ সৃষ্টিতে সক্ষম হব।’

স্মার্টফোন দু’টি সারাদেশজুড়ে জিপি সেলস পয়েন্ট এবং অনলাইনে জিপি শপে পাওয়া যাবে।

বাংলাদেশের মানুষের হাতে সাশ্রয়ী দামে স্মার্টফোন তুলে দেয়ার লক্ষ্যে এ দেশের বাজারে কো-ব্র্যান্ডেড সিম্ফনি জি২০ ও আইটেল আইটি১৪০৯ নিয়ে আসতে আজ সিম্ফনি ও আইটেলের সাথে যৌথ অংশীদারিত্ব করেছে গ্রামীণফোন।