ফেসবুকে রয়েছে চার ধরনের ব্যবহারকারী, জেনে নিন আপনি কোন ধরনের?

There-are-four-types-of-users-on-Facebook-you-know-what-kind 


সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুক ব্যবহার করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। আর ফেসবুকে এত ব্যবহারকারীর মধ্যে আপনি কোন ধরনের ব্যবহারকারী তা কি জানেন। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ব্রিহাম ইয়ং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ফেসবুকে কত ধরনের ব্যবহারকারী রয়েছে তা বের করার জন্য একটি জরিপ চালিয়েছেন। জরিপে চারধরনের ব্যবহারকারীর ক্যাটাগরি করা হয়েছে। নিঃসন্দেহে এর যেকোনো একটি ধরনে পরবেন আপনি।


জরিপে ১৮ থেকে ৩২ বছর বয়সী ব্যবহারকারীরা অংশ নেয়। এরা ৪৮টি প্রশ্নের উত্তর দেয়। প্রশ্নগুলো ছিল ‘ফেসবুক চাপের একটি উৎস, এবং এটি আমাকে হতাশ করে’ এবং ‘ফেসবুক আমাকে আমার পরিবারের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করতে সহায়তা করে এবং আমার পরিবারকে আমার কাছে ভালোবাসা বা ভালোলাগা প্রকাশ করতে দেয়’ এধরনের।

জরিপ থেকে পাওয়া উত্তর থেকে চারধরনের ফেসবুক ব্যবহারকারী সংজ্ঞায়িত করা হয়েছে। এগুলো হল-
রিলেশনশিপ বিল্ডার

এই ধরনের ব্যবহারকারীরা তাদের বন্ধুদের এবং পরিবারের সাথে সম্পর্ক জোড়া লাগাতে এবং উৎসাহ দিতে পছন্দ করে। ফেসবুকে মূলত প্রতিটি মা এধরনের ব্যবহারকারী। এ ধরনের ব্যবহারকারীরা ফেসবুককে ‘ওপেন ভার্চুয়াল সামাজিক সমাজ’ হিসেবে দেখেন না বরং তারা এটিকে এমন জায়গা মনে করেন যেখানে তারা তাদের সততা, অনুভূতি এবং গল্পগুলি ভাগ করে নিতে পারেন।

এরা ফেসবুকে ইমোশনাল ভিডিও, গুগল থেকে নেওয়া হৃদয়গ্রাহী ফটো এবং তাদের ভালোবাসার মানুষের ছবি শেয়ার করে থাকে বেশি। এরা তাদের নিউজ ফিডের বেশির ভাগ পোস্টে কমেন্ট করে এনগ্যাজ থাকে।
উইন্ডো শপার

এই ধরনের ব্যবহারকারীদের সোশ্যাল নেটওয়ার্ক ব্যবহারের সামাজিক বাধ্যবাধকতার ধারণা রয়েছে। এই গ্রুপটি মনে করে ফেসবুক অপরিহার্য তাই তারা যাই হোক না কেন এটি ব্যবহার করার মানসিকতা রাখে। তারা ফেসবুকে খুব একটা ছবি পোস্ট করে না, তাদের প্রোফাইল আপডেট করে না অথবা অন্য লোকেদের সাথে যোগাযোগও করে না। অন্য কথায় তাদের বলা হয় ‘স্টকার’।

এই সমীক্ষার গবেষক সহ-লেখক ক্লার্ক কালাহান এর মতে, ‘এধরনের ব্যবহারকারীরা শুধু অন্যরা কী করছে তা দেখতে চায়’।
বিজ্ঞপ্তি ঘোষণাকারী

এই ধরনের ব্যবহারকারীরা ফেসবুক ব্যবহার করে শুধুমাত্র চারপাশে কি হচ্ছে তা অন্যদের জানিয়ে থাকে। তারা তাদের নিজেদের ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে শেয়ার করার প্রয়োজনীয়তা আছে বলে মনে করে না। আর তাই আপনি যদি দুই বছরের মধ্যে আপনার প্রোফাইল ছবি পরিবর্তন না করে থাকেন তাহলে প্রাসঙ্গিক তথ্য শেয়ার করলেও আপনি ‘বিজ্ঞপ্তি ঘোষণাকারী’ গ্রুপে পড়েছেন।
সেলফিস

সর্বশেষ ধরনটি হলো- সেলফিস। এরা অন্যদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে চায় সারাক্ষণ। তারা লাইক, কমেন্ট, শেয়ার এবং নোটিফিকেশনে মনোযোগ রাখে সবসময়। এরা অর্থবহ যোগাযোগের পরিবর্তে নিজস্ব প্রচারণা নিয়ে ব্যস্ত থাকে।

তবে এই জরিপ করার কারণ কি এই প্রশ্ন মনে আসতে পারে অনেকের। এখন আমরা যা কিছু করি তা সামাজিক মিডিয়ায় তাত্পর্যপূর্ণ এবং বেশিরভাগ মানুষ জানেনা তারা এটি কেন ব্যবহার করছেন, কিন্তু যদি মানুষ তাদের অভ্যাসগুলি চিনতে পারে, তবে অন্তত সচেতনতা সৃষ্টি করতে পারবে বলে মনে করা হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুক ব্যবহার করেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। আর ফেসবুকে এত ব্যবহারকারীর মধ্যে আপনি কোন ধরনের ব্যবহারকারী তা কি জানেন। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের ব্রিহাম ইয়ং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ফেসবুকে কত ধরনের ব্যবহারকারী রয়েছে তা বের করার জন্য একটি জরিপ চালিয়েছেন। জরিপে চারধরনের ব্যবহারকারীর ক্যাটাগরি করা হয়েছে। নিঃসন্দেহে এর যেকোনো একটি ধরনে পরবেন আপনি।