ফোনের বাজারে কে এগিয়ে?


মোবাইল ফোনের বাজারে এখন তীব্র প্রতিযোগিতা। কে কাকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যাবে, এমনই জোর চেষ্টা চলছে। কয়েক বছর আগে মোবাইল ফোনের বাজারে শীর্ষে ছিল নকিয়া। আর তার সঙ্গে প্রতিযোগিতায় ছিল এলজি, সনির মতো ব্র্যান্ডগুলো। এরপর সেই জায়গা দখল করে নিয়েছে স্যামসাং ও অ্যাপল। স্মার্টফোনের বাজারে এই দুটি ব্র্যান্ড এখন সবচেয়ে শক্তিশালী। বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান গার্টনারের তথ্য অনুযায়ী, অ্যাপল ও স্যামসাং এখন স্মার্টফোনের বাজারের শীর্ষে থাকলেও অন্যান্য কয়েকটি ব্র্যান্ডও দ্রুত উঠে আসছে। এই ব্র্যান্ডগুলোর যেকোনোটি যেকোনো সময় অ্যাপল ও স্যামসাংকে হটিয়ে দিয়ে বাজারের শীর্ষে চলে আসতে পারে। ২০১৬ সালের প্রথম প্রান্তিক বা প্রথম তিন মাসের স্মার্টফোন বিক্রির হিসাব ধরে স্মার্টফোন নির্মাতাদের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে গার্টনার। এই তালিকায় শীর্ষ ৫-এ রয়েছে যথাক্রমে স্যামসাং, অ্যাপল, হুয়াওয়ে, অপো, শিয়াওমি।
Worldwide Smartphone Sales to End Users by Vendor in 1Q16 (Thousands of Units)
Company
1Q16 Units
1Q16 Market Share (%)
1Q15 Units
1Q15 Market Share (%)
Samsung
81,186.9
23.2
81,122.8
24.1
Apple
51,629.5
14.8
60,177.2
17.9
Huawei
28,861.0
8.3
18,111.1
5.4
Oppo
16,112.6
4.6
6,585.1
2.0
Xiaomi
15,048.0
4.3
14,740.2
4.4
Others
156,413.4
44.8
155,561.4
46.3
Total
349,251.4
100.0
336,297.8
100.0
Source: Gartner (May 2016)
১. স্যামসাং
দক্ষিণ কোরিয়ার স্মার্টফোন নির্মাতা স্যামসাং এখনো স্মার্টফোনের বাজারে শীর্ষে। এ বছরের প্রথম তিন মাসে ৮ কোটি ১১ লাখ ৮৬ হাজার ৯০০টি মোবাইল সেট বিক্রি করে বাজারের ২৩ দশমিক ২ শতাংশ দখল করেছে স্যামসাং, গত বছরের প্রথম প্রান্তিকে যা ছিল ২৪ দশমিক ১ শতাংশ। অবশ্য গার্টনার বলছে, বছরের প্রথম প্রান্তিকে অ্যাপলের চেয়ে খানিকটা এগিয়ে রয়েছে স্যামসাং। গ্যালাক্সি এস ৭ ও নতুন পোর্টফলিও কারণে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে এগিয়ে গেলেও উন্নয়নশীল দেশগুলোর বাজারে স্থানীয় ফোন নির্মাতাদের সঙ্গে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার মুখে পড়তে হচ্ছে স্যামসাংকে।

২. অ্যাপল
বছরের প্রথম প্রান্তিকে বৈশ্বিক স্মার্টফোন বাজারে দ্বিতীয় অবস্থান টিকিয়ে রেখেছে অ্যাপল। অ্যাপলের দখলে রয়েছে বাজারের ১৪ দশমিক ৮ শতাংশ, যা ড়ত বছরের প্রথম প্রান্তিক থেকে ৩ শতাংশ কম। যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে আইফোন বিক্রির ধারা অব্যাহত থাকলেও উন্নয়নশীল দেশগুলোর বাজারে হাতফেরতা (সেকেন্ড হ্যান্ড) মোবাইল বিক্রির চেষ্টা করছে প্রতিষ্ঠানটি।

৩. হুয়াওয়ে
স্মার্টফোনের বাজারে তিন নম্বরে চীনা ব্র্যান্ড হুয়াওয়ে। চীনের স্থানীয় বাজারের পাশাপাশি ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র ও আফ্রিকার বাজারে হুয়াওয়ের কদর বাড়ছে। গার্টনারের হিসাব অনুযায়ী, বছরের প্রথম প্রান্তিকে ২ কোটি ৮৮ লাখ ৬১ হাজার ইউনিট ফোন বিক্রি করেছে হুয়াওয়ে। বর্তমানে হুয়াওয়ের বাজার দখল দাঁড়িয়েছে ৮ দশমিক ৩ শতাংশ।

৪.অপো
স্মার্টফোনের বাজারে এ বছরের প্রথম প্রান্তিকে চমক দেখিয়েছে চীনা ব্র্যান্ড অপো। গার্টনারের হিসাব অনুযায়ী, এ বছরের প্রথম প্রান্তিকে সবচেয়ে ভালো করেছে অপো। এ তিন মাসে স্মার্টফোনের বিক্রি বেড়েছে ১৪৫ শতাংশ। হুয়াওয়ে ও শিয়াওমির মতো চীনের স্থানীয় বাজারে অপো ব্র্যান্ডের জনপ্রিয়তা বাড়ছে। লেনোভো, স্যামসাংয়ের মতো প্রতিষ্ঠানের বাজার দখল কেড়ে নিয়ে এগিয়ে গেছে অপো। এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে অপো ফোনের বিক্রি সবচেয়ে বেশি বেড়েছে। এ অঞ্চলে অপোর বিক্রি বেড়েছে ১৯৯ শতাংশ। প্রথম প্রান্তিকে অপো ১ কোটি ৬১ লাখ ১২ হাজার ৬০০ স্মার্টফোন বিক্রি করেছে।

৫. শিয়াওমি
চীনের আরেক স্মার্টফোন নির্মাতা শিয়াওমির চীনের বাজারে জনপ্রিয়তা বেড়েছে। এ ছাড়াও এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলগুলোতে শিয়াওমির চাহিদা বাড়তে দেখা যাচ্ছে। গার্টনারের হিসাব অনুযায়ী, বছরের প্রথম প্রান্তিকে ১ কোটি ৫০ লাখ ৪৮ হাজার শিয়াওমি ফোন বিক্রি হয়েছে। বর্তমানে বাজারের ৪ দশমিক ৩ শতাংশ শিয়াওমির দখলে।