নোকিয়া ৮ বনাম স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস ও আইফোন ৭ প্লাস


এইচএমডি গ্লোবাল অবশেষে নোকিয়া ৮ স্মার্টফোন জনসমক্ষে উন্মোচন করল। হ্যান্ডসেটটি ৫৯৯ ইউরোতে সেপ্টেম্বরে ইউরোপের বাজারে আসবে। নোকিয়ার প্রথম স্মার্টফোন হিসেবে এতে আছে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা এবং কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর। প্রিয়.কমের পাঠকদের জন্য সদ্য উন্মোচিত নোকিয়া ৮ স্মার্টফোনের সাথে প্রতিদ্বন্দী স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস এবং আইফোন ৭ প্লাসের পার্থক্য তুলে ধরা হলো। 
ডিসপ্লে
নোকিয়া ৮: ৫.৩ ইঞ্চি (২৫৬০*১৪৪০) কিউএইচডি ডিসপ্লে। 
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস: ৬.২ ইঞ্চি (১৪৪০*২৯৬০) সুপার অ্যামোলেড কিইউএইচডি প্লাস ডিসপ্লে
আইফোন ৭ প্লাস: ৫.৫ ইঞ্চি (১০৮০*১৯২০) ফুল এইচডি ডিসপ্লে
প্রসেসর
নোকিয়া ৮: অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর 
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস: কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর 
আইফোন ৭ প্লাস: অ্যাপল এ১০ চিপ (৬৪-বিট)
র‌্যাম এবং স্টোরেজ 
নোকিয়া ৮: ৪ জিবি র‌্যাম, ৬৪জিবি স্পেস ইন্টারনাল স্টোরেজ (মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৬৫ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে) 
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস: ৪ জিবি র‌্যাম, ৬৪জিবি স্পেস ইন্টারনাল স্টোরেজ (মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ২৬৫ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে) 
আইফোন ৭ প্লাস: ২জিবি র‌্যাম, ৩২জিবি/১২৮জিবি/২৫৬জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ।
ক্যামেরা 
নোকিয়া ৮: ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা (১৩ মেগাপিক্সেল+১৩ মেগাপিক্সেল) এদের মধ্যে একটি রঙিন এবং আরেকটি সাদাকালো ছবি ধারণ করে। এতে ১৩ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা বিদ্যমান।
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস: এলইডি ফ্ল্যাশসহ ১২ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা ও ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। 
আইফোন ৭ প্লাস: ১২ মেগাপিক্সেল (টেলিফটো), ১২ মেগাপিক্সেল রিয়ার, ৭ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা।
ব্যাটারি
নোকিয়া ৮: ৩০৯০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার। 
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস: ৩,৫০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার। 
আইফোন ৭ প্লাস: ব্যাটারির তথ্য উল্লেখ করা হয়নি। (তবে অ্যাপল প্রধান নির্বাহী টিম কুকের দাবি এটি আইফোনের ইতিহাসের সবচেয়ে দার্ঘস্থায়ী ব্যাটারি সুবিধা প্রদান করে।)
অপারেটিং সিস্টেম 
নোকিয়া ৮: অ্যান্ড্রয়েড ৭.১.১ ন্যুগাট 
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ প্লাস: অ্যান্ড্রয়েড ৭.০ ন্যুগাট
আইফোন ৭ প্লাস: অ্যাপল আইওএস ১০