বাবা জেলে, ছেলেমেয়ে জানে শুটিংয়ে!

 



বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের জীবনে ট্র্যাজেডির কমতি নেই! প্রথমে মাকে হারিয়েছেন, এরপর প্রথম স্ত্রীও মারা যান ক্যানসারে। এছাড়া ১৯৯৩ সালের মুম্বাই বিস্ফোরণে জড়িতদের কাছ থেকে বেআইনি অস্ত্র কেনার দায়ে আদালত তাকে পাঁচ বছর সাজা দেন।


তবে সাজা ভোগ করতে ক্যারিয়ার ও পরিবারের বাইরে কারাগারের চার দেয়ালে সঞ্জয় দত্তের বন্দি থাকার কথা জানতো না তার অবুঝ দুই সন্তান ইকরা ও শাহরান। কারণ তাদেরকে জানতে দেওয়া হয়নি। কিন্তু বাবাকে ঘরে না পেয়ে এই যমজ ভাইবোনের মনে ঠিকই অনেক প্রশ্নের জন্ম হয়েছিল। তখন তাদের মা মান্যতা দত্ত কীভাবে বুঝিয়েছিলেন দুই সন্তানকে?

পুনের ইয়েরওয়াড়া কারাগারে বন্দি থাকার সময় নিজের পরিবারের দিন কতটা দুঃখে কেটেছে, সম্প্রতি একটি টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তা তুলে ধরেন সঞ্জয় দত্ত। তিনি জানান, কীভাবে তার স্ত্রী সন্তানদের ভুলিয়ে রাখতেন। ৫৮ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, ইকরা ও শাহরান জানতে চাইলেই মান্যতা বলতেন, বাবা শুটিংয়ে শহরের বাইরে গেছে। কিন্তু তাতেও সন্তুষ্ট হতো যমজ ভাইবোন।

সঞ্জয়ের ভাষ্য, ‘ওদের অনেক বুদ্ধি। সেজন্যই তারা মাকে পাল্টা প্রশ্ন করে আমাকে ফোনে ধরিয়ে দিতে বলতো। কিন্তু মান্যতা তখন আবার মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে বলতো, পাহাড়-পর্বতে শুটিং হওয়ায় আমার মোবাইল ফোনে নেটওয়ার্ক নেই! ভাগ্য ভালো, ইয়েরওয়াড়া কারাগার থেকে ১৫ দিন পরপর বাড়িতে ফোন করার সুযোগ পেতাম। তখন দুই সন্তানের সঙ্গে কথা বলেছি।’

ছোট বলে না হয় ভুলিয়ে রাখা গেছে, কিন্তু বেড়ে ওঠার পর যদি ইকরা ও শাহরান সত্যিটা জানতে পারে কী হবে? এই প্রশ্নের উত্তরে সঞ্জয় বলেছেন, ‘ওরা পরিণত হলে আমি নিজেই সব বিস্তারিত বলবো। সেজন্য অপেক্ষা করছি।’

কারাভোগ শেষে গত বছর ঘরে ফিরেছেন সঞ্জয় দত্ত। বড় পর্দায় তার প্রত্যাবর্তন হচ্ছে ওমাঙ কুমার পরিচালিত ‘ভূমি’র মাধ্যমে। তিনি এখন এই ছবির প্রচারণা চালাচ্ছেন। এর গল্প ধর্ষণের শিকার হওয়া মেয়ের জন্য ন্যায়বিচার পেতে জীবনবাজি রাখেন বাবা। এতে তার মেয়ের চরিত্রে আছেন অদিতি রাও হায়দারি।

নতুন ছবি প্রসঙ্গে সঞ্জয় বলেছেন, ‘হলিউডে যে ধরনের কাজ হয় তা আমার ভালো লাগে। আমার চেয়ে কম বয়সী কারও সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করাটা ভালো দেখাবে না। দর্শকদের বিনোদনমূলক ছবিই দেখাতে চাই যেখানে সমাজঘনিষ্ঠ দৃঢ় বক্তব্য আছে।’

স্মৃতি হাতড়ে সঞ্জয় জানান, ১১ বছর তাকে বোর্ডিং স্কুলে পড়ানো হয়েছে। বোম্বেতে দ্বিতীয় শ্রেণির পাস ছিল তার কাছে। এসব অভিজ্ঞতা সব পরিস্থিতি সামলে নিতে সহায়ক হয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

সামনে ওমাঙ কুমারের ‘মহারাজা’ ছবিতে অভিনয় করবেন সঞ্জয় দত্ত। এছাড়া তার হাতে আছে ‘সাহেব বিবি অউর গ্যাংস্টার থ্রি’, ‘তোরবাজ’ ও করণ জোহরের ‘সিদ্দাত।’

বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দত্তের জীবনে ট্র্যাজেডির কমতি নেই! প্রথমে মাকে হারিয়েছেন, এরপর প্রথম স্ত্রীও মারা যান ক্যানসারে। এছাড়া ১৯৯৩ সালের মুম্বাই বিস্ফোরণে জড়িতদের কাছ থেকে বেআইনি অস্ত্র কেনার দায়ে আদালত তাকে পাঁচ বছর সাজা দেন।