রোহিঙ্গাদের ওপর সহিংসতায় জোলির নিন্দা

Jolie-condemned-violence-against-Rohingyas 

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছেন হলিউড তারকা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। মুসলমানদের হত্যা ও তাদেরকে নির্যাতন বন্ধে দেশটির সরকার ও নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী অং সান সু চি’কে নিরবতা ভাঙার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন এই অভিনেত্রী-নির্মাতা।


রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) জার্মান সাপ্তাহিক ওয়ার্ল্ড অন সানডের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন জোলি। অস্কারজয়ী এই তারকার ভাষ্য, ‘মিয়ানমার সেনাবাহিনী যে হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছে তা বন্ধ করতেই হবে। এ নিয়ে কোনও প্রশ্ন থাকতে পারে না। একইসঙ্গে শরণার্থীদের জন্য রাখাইন রাজ্যে ফিরে আসার পথ তৈরি করে দিতে হবে। এটি রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার।’

মিয়ানমারে কয়েক দশক ধরে নিপীড়নের শিকার হচ্ছে রোহিঙ্গারা। দেশটির সেনাবাহিনীর তাণ্ডবে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে ৪ লাখ রোহিঙ্গা। কিন্তু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর বর্বরতার ঘটনায় নিরব থাকায় সমালোচিত হচ্ছেন অং সান সু চি। তবে জোলি বলেছেন, ‘আমরা চাই, চলমান পরিস্থিতিতে মানবাধিকারের কণ্ঠস্বর হয়ে উঠবেন অং সান সু চি। এই বর্বরতার বিরুদ্ধে দাঁড়ানো উচিত তার।’


অভিনয় ও চলচ্চিত্র নির্মাণের পাশাপাশি জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক শুভেচ্ছাদূত হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। ৪২ বছর বয়সী এই তারকা পরিচালিত ‘ফার্স্ট দে কিল্ড মাই ফাদার’ প্রদর্শিত হয়েছে টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে। এটি যুক্তরাষ্ট্রে মুক্তি পেয়েছে গত ১৫ সেপ্টেম্বর।

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছেন হলিউড তারকা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। মুসলমানদের হত্যা ও তাদেরকে নির্যাতন বন্ধে দেশটির সরকার ও নোবেল শান্তি পুরস্কার জয়ী অং সান সু চি’কে নিরবতা ভাঙার আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন এই অভিনেত্রী-নির্মাতা।