ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের ১ লাখ ডলার দিলেন সালমা

 

মেক্সিকোতে স্মরণকালের ভয়াবহ ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় এগিয়ে এলেন দেশটির বিখ্যাত অভিনেত্রী সালমা হায়েক। নিজের ক্রাউডরাইজ কর্মসূচির মাধ্যমে ইউনিসেফকে ১ লাখ ডলার দান করেছেন তিনি।


শুধু নিজে নন, অন্যদেরকেও সাধ্যমতো অর্থ সহায়তা দিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে আহ্বান জানিয়েছেন সালমা। অস্কার মনোনীত মেক্সিকান এই তারকা বলেছেন, ‘আমাদের দেশে টানা তিনটি প্রাকৃতিক বিপর্যয় হয়েছে। এর মধ্যে ভূমিকম্পে আহত ও ক্ষতিগ্রস্ত অসংখ্য শিশু ও পরিবারের এখন সাহায্য প্রয়োজন। তাদের জন্য আমি ১ লাখ ডলার দিয়েছি। আমার মতো আপনারাও এগিয়ে আসুন। যার যতটুকু সাধ্য আছে সাহায্য দিন। সহায়সম্বল হারানো মানুষগুলোকে অর্থদান ও সহানুভূতির জন্য আপনাদের উদার মানসিকতার কাছে মিনতি করছি। আপনারা যাই দেবেন তা অনেক।’

সালমা হায়েক
এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সালমার ওই কর্মসূচি থেকে ২ লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার সংগ্রহ করা গেছে। ইনস্টাগ্রামে স্প্যানিশ ভাষায় ভিডিও বার্তাটি পোস্ট করেন তিনি। ৫১ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীকে সবশেষ “দ্য হিটম্যান’স বডিগার্ড” ও ‘বিট্রিস অ্যাট ডিনার’ ছবিতে দেখা গেছে।
 

১৯৮৫ সালের পর মেক্সিকোতে এত ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয় আর ঘটেনি। সালমা মনে করিয়ে দিয়েছেন সেই ঘটনা। স্মৃতি হাতড়ে ভিডিওতে তিনি বলেছেন, ‘মেক্সিকো সিটিতে ওই ভূমিকম্পে বাসায় আটকে পড়েছিলাম। পরে আমাকে উদ্ধার করা হয়। আমার চাচাসহ অনেক ঘনিষ্ঠ বন্ধুর মৃত্যু হয়েছিল ওই ঘটনায়। এমন বিপর্যয়ে পড়ার দুঃসহ ও বেদনাদায়ক অভিজ্ঞতা নিয়ে বেঁচে আছি। এ ঘটনা ছিল ভয়ঙ্কর।’
চলতি মাসে মেক্সিকোতে দুটি ভূমিকম্প হয়েছে। কাকতালীয় হলো, এর মধ্যে দ্বিতীয়টি হয়েছে ১৯৮৫ সালের ভূমিকম্পের ৩২ বছর পূর্ণ হওয়ার দিন (১৯ সেপ্টেম্বর)। মেক্সিকো সিটির প্রাণকেন্দ্রে ৭.১ মাত্রার এই ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২০০। ৫১ কিলোমিটার পর্যন্ত ধসে গেছে বেশকিছু ভবন। এ মাসেই ঘূর্ণিঝড় কাটিয়া আঘাত করে দেশটিতে।

মেক্সিকোতে স্মরণকালের ভয়াবহ ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তায় এগিয়ে এলেন দেশটির বিখ্যাত অভিনেত্রী সালমা হায়েক। নিজের ক্রাউডরাইজ কর্মসূচির মাধ্যমে ইউনিসেফকে ১ লাখ ডলার দান করেছেন তিনি।